বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'দূষণে দোষ পাকিস্তানের'; ‘পাক কারখানা বন্ধ করতে চান?’ যোগী সরকারকে প্রশ্ন CJI-র
উত্তরপ্রদেশ সরকার দাবি করে, দিল্লির দূষণের নেপথ্যে পাকিস্তান (প্রতীকী ছবি) (HT_PRINT)
উত্তরপ্রদেশ সরকার দাবি করে, দিল্লির দূষণের নেপথ্যে পাকিস্তান (প্রতীকী ছবি) (HT_PRINT)

'দূষণে দোষ পাকিস্তানের'; ‘পাক কারখানা বন্ধ করতে চান?’ যোগী সরকারকে প্রশ্ন CJI-র

  • দূষণের জন্য পাকিস্তানকে দোষারোপ করে উত্তরপ্রদেশ সরকার। যোগী সরকারকে এই দাবির প্রেক্ষিতে শীর্ষ আদালত পাল্টা প্রশ্ন করে, ‘এখন কি তবে পাকিস্তানি কারখানা বন্ধ করতে চান আপনারা?’ 

দূষণের জন্য পাকিস্তানকে দোষারোপ করে উত্তরপ্রদেশ সরকার। যোগী সরকারকে এই দাবির প্রেক্ষিতে শীর্ষ আদালত পাল্টা প্রশ্ন করে, ‘এখন কি তবে পাকিস্তানি কারখানা বন্ধ করতে চান আপনারা?’  উত্তরপ্রদেশ সরকার শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টকে বলে যে এনসিআরের ক্রমবর্ধমান দূষণে উত্তরপ্রদেশের শিল্পগুলির কোনও ভূমিকা নেই। যোগী সরকারের যুক্তি, পাকিস্তানের দূষিত বায়ু রাজধানীর বাতাসের গুণমানকে খারাপ করছে। যোগী সরকারের এহেন যুক্তির পর ভারতের প্রধান বিচারপতি এনভি রামানা পালটা প্রশ্ন করেন, 'তাহলে আপনি পাকিস্তানের কারখানা নিষিদ্ধ করতে চান?'

এদিকে দিল্লিতে বায়ুদূষণের মাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়াতে শুক্রবার থেকে আবারও অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে যায় দিল্লির সমস্ত স্কুল। উল্লেখ্য, সরকারের এই পদক্ষেপের আগেই স্কুল খোলা নিয়ে দিল্লি সরকারকে তিরস্কার করে সুপ্রিম কোর্ট। যদিও আজকে শীর্ষ আদালত স্পষ্ট করে দেয় যে তারা দিল্লি সরকারকে স্কুল বন্ধের কোনও ‘নির্দেশ’ দেয়নি।

 

প্রসঙ্গত, দিল্লি-সহ আশপাশের এলাকায় যে হারে বায়ুদূষণ বাড়ছে, তাতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সুপ্রিম কোর্ট৷ কেন্দ্রীয় সরকার, দিল্লি সরকার এবং লাগোয়া রাজ্যগুলিকে মাত্র ২৪ ঘণ্টা সময় দিয়েছে শীর্ষ আদালত৷ বিশেষজ্ঞদের দাবি, মূলত শিল্পাঞ্চল থেকে এবং অত্যাধিক গাড়ির ব্যবহারই দিল্লিতে দূষণ বৃদ্ধির প্রধান কারণ৷ আদালতের নির্দেশ, সমস্যা সমাধানে কঠোর পদক্ষেপ করতে হবে সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে৷ 

 

 

বন্ধ করুন