বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সুপ্রিম 'ধমকের' পর CAA বিরোধীদের বিরুদ্ধে রিকভারি নোটিশ প্রত্যাহার যোগী সরকারের

সুপ্রিম 'ধমকের' পর CAA বিরোধীদের বিরুদ্ধে রিকভারি নোটিশ প্রত্যাহার যোগী সরকারের

সিএএ বিরোধীদের বিরুদ্ধে রিকভারি নোটিশ প্রত্যাহার যোগী সরকারের

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের পর থেকে উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন জায়গা উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল সিএএ বিরোধী আন্দোলনে। এরপরই এই বিক্ষোভ দমন করতে কঠোর পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করেছিল যোগী সরকার।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে জড়িত ব্যক্তিদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার কথা ঘোষণা করে আদালতের ‘ধমক’ খেতে হয়েছিল যোগী আদিত্যনাথের সরকারকে। এই আবহে সিএএ বিরোধী বিক্ষোভকারীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার পরিকল্পনা ত্যাগ করল যোগী সরকার। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের পর থেকে উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন জায়গা উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল সিএএ বিরোধী আন্দোলনে। এরপরই এই বিক্ষোভ দমন করতে কঠোর পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করেছিল যোগী সরকার। তবে সুপ্রিম কোর্ট এর প্রেক্ষিতে বলে যে রাজ্য সরকার নিজেদের ক্ষমতা লঙ্ঘন করছে। এরপরই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার পরিকল্পনা থেকে পিছু হটতে চলেছে যোগী সরকার।

বিক্ষোভকারীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে ইতিমধ্যেই নোটিশও পাঠিয়েছিল যোগী সরকার। জানা গিয়েছে, সেই সব নোটিশ প্রত্যাহার করছে যোগী সরকার। কর্মকর্তাদের মতে, ট্রাইব্যুনালের প্রধান পদে থাকা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বিভিন্ন জেলায় সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে ক্ষতি পুনরুদ্ধারের জন্য ২৭৪টি নোটিশ জারি করেছিলেন। লখনউতে বিক্ষোভকারীদের জন্য জারি করা হয়েছিল ৯৫টি নোটিশ।

এর আগে এই সংক্রান্ত শুনানি চলাকালীন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় উত্তরপ্রদেশের অ্যাডিশনাল অ্যাডভোকেট জেনারেলকে বলেন, ‘আপনারাই অভিযোগকারী, আপনারাই সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন, আপনারাই আবার অভিযুক্তদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করছেন। আমরা তো বলেছিলাম এটা বিচারবিভাগীয় আধিকারিককে দিয়ে করাতে হবে। এডিএম কীভাবে এটা করলেন? হয় নোটিশ প্রত্যাহার করুন নয়তো তা বাতিল করবে আদালত।’

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের শেষ ও ২০২০ সালের শুরুর দিকে সিএএ বিরোধী বিক্ষোভ বহু জায়গায় হিংসাত্মক রূপ ধারণ করেছিল। তাতে সরকারে সম্পত্তি নষ্ট করা হয়েছিল প্রচুর পরিমাণে। এই আবহে ২০১১ সালে এলাহাবাদ হাইকোর্টের একটি রায়ের উপর ভিত্তি করে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ পুনরুদ্ধার করতে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নোটিশ পাঠিয়েছিল উত্তরপ্রদেশ সরকার। এদিকে ২০০৯ সালেই এই বিষয়ে শীর্ষ আদালতের নির্দেশ রয়েছে যে একজন বিচারপতিই এই ক্ষতির পরিমাণ সহ অন্যান্য বিষয় খতিয়ে দেখবেন। এদিকে উত্তরপ্রদেশের ক্ষেত্রে তেমন কিছু হয়নি। কার্যত সেই নিয়ম ভাঙা হয়েছে। আর তা নিয়েই উষ্মা প্রকাশ আদালতের। এই আবহে চাপের মুখে নোটিশ প্রত্যাহার সরকারের।

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

রবি-সোমে ঝড়বৃষ্টি বাংলায়, সতর্কতা জারি শনিতেও, কোন জেলায় কত বেগে ঝোড়ো হাওয়া? সন্দেশখালির বোনেদের সঙ্গে যা করেছে TMC, তা দেখে কাঁদছে রামমোহন রায়ের আত্মা: মোদী IPL 2024: লান্স ক্লুজনারকে সহকারী কোচ হিসেবে নিযুক্ত করল LSG AI নিয়ে রাহুলকে প্রশ্ন তরুণের, উত্তর শুনে ট্রোল নেটপাড়ার, ‘না জেনেই রচনা লিখল’ পিরিতির ফুল ফুটে… পায়ে হাওয়াই চটি, পাশে ডোনা-রচনা, ঝুমুরের তালে জমিয়ে নাচ মমতার ‘গণধর্ষণ’ করে ব্ল্যাকমেলিং! যোগীরাজ্যে গাছ থেকে উদ্ধার দুই কিশোরীর ঝুলন্ত দেহ পুলিশের সামনে দাপট! ইডির হাত থেকে রেহাই পেতে মরিয়া শাহজাহান, আগাম জামিনের আবেদন জমাট জুটি ধাওয়ান-কার্তিকের, শাহবাজদের বিরুদ্ধে '১০ ওভারেই' জয় ডিওয়াই পাতিল ব্লুর চুপিসাড়ে বিয়ের পর রায় পরিবারে বধূবরণ! সত্যজিতের নাতির রিসেপশনের প্রথম ছবি শ্রেয়স এবং ইশান কেন্দ্রীয় চুক্তি ফিরে পেতে পারেন, কী ভাবে? জানালেন BCCI-এর কর্তা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.