বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > উত্তরপ্রদেশে রেল অবরোধ, দিল্লি-হাওড়া রুটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে একাধিক ট্রেন

উত্তরপ্রদেশে রেল অবরোধ, দিল্লি-হাওড়া রুটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে একাধিক ট্রেন

ট্রেন পরিষেবা ব্যাহত হলেও কোনও ট্রেন বাতিল করতে হয়নি (ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)

সন্ধ্যা প্রায় ৭টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত অবরোধ অব্যাহত থাকে। এই আন্দোলনের কারণে ১৪টি ট্রেন আটকে গিয়েছিল।

উত্তরপ্রদেশে ট্রেন অবরোধ আহেরিয়া সম্প্রদায়ের। আর এই আবরোধের জেরেই দিল্লি-হাওড়া রুটের ট্রেন চলাচল ব্যাহত হল বৃহস্পতিবার। রেলওয়ের সিনিয়র আধিকারিকরা জানান, গতকাল দুপুর দেড়টায় শুরু হওয়া রেল অবরোধ। সন্ধ্যা প্রায় ৭টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত অবরোধ অব্যাহত থাকে। এই আন্দোলনের কারণে ১৪টি ট্রেন আটকে গিয়েছিল। যদিও আহেরিয়া সম্প্রদায়ের তরফে হিন্দুস্তান টাইমসকে জানানো হয় যে এই অবরোধ সকাল ১১টা থেকে শুরু হয়েছিল।

অবরোধ প্রসঙ্গে আহেরিয়া সম্প্রদায়ের বক্তব্য, ‘আমাদের সম্প্রদায়ের সদস্যরা এক মাসেরও বেশি সময় ধরে লখনউতে ‘ধর্না’ করছেন এবং আমাদের একমাত্র লক্ষ্য উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করা। তবে আমাদের তা করতে দেওয়া হয়নি। তাই আমরা রেলওয়ের ব্যস্ততম রুটে ট্রেন অবরোধের মাধ্যমে প্রতিবাদ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

উত্তর মধ্য রেলওয়ের তরফে একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘এটি জানানো হচ্ছে যে হাথরাস এবং পোরা স্টেশনের মধ্যে চলমান আন্দোলনের কারণে দিল্লি-হাওড়া রুটে ট্রেন চলাচল প্রভাবিত হয়েছে। বিভিন্ন স্টেশনে ট্রেন আটকে রাখা হয়। স্থানীয় প্রশাসন আন্দোলনকারীদের অবরোধ তুলে নেওয়ার জন্য রাজি করাতে যথাসাধ্য চেষ্টা করছে। এই আবহে যাত্রীদের যে অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়েছে, তার জন্য রেল গভীরভাবে দুঃখিত।’

এদিকে এই আন্দোলন প্রসঙ্গে আন্দোলনকারীদের একজন বলেন, ‘সকাল থেকে আমাদের প্রায় পাঁচ হাজার সদস্য রেলপথ অবরোধ করে রেখেছে কিন্তু আমাদের সঙ্গে কথা বলার জন্য কোনও সরকারী বা রেল কর্তা ঘটনাস্থলে পৌঁছায়নি। আমাদের একমাত্র লক্ষ্য হল মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের অ্যাপয়েন্টমেন্ট পাওয়া যাতে আমরা আমাদের উদ্বেগের কথা প্রকাশ করতে পারি।’ পরে যদিও যাত্রী অসুবিধার কথা মাথায় রেখে আবরোধ তুলে নেওয়া হয়। ট্রেন পরিষেবা ব্যাহত হলেও কোনও ট্রেন বাতিল করতে হয়নি বলে জানায় রেল কর্তৃপক্ষ।

 

বন্ধ করুন