বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দুর্নীতির অভিযোগ এনে মুখ্যমন্ত্রীকে পদচ্যুত করতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি বিজেপি নেতার
মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতকে পদচ্যূত করার আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখলেন দলীয় বিধায়ক লাখি রাম জোশি।
মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতকে পদচ্যূত করার আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখলেন দলীয় বিধায়ক লাখি রাম জোশি।

দুর্নীতির অভিযোগ এনে মুখ্যমন্ত্রীকে পদচ্যুত করতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি বিজেপি নেতার

  • উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতকে পদচ্যূত করার আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখলেন রাজ্যের বিজেপি বিধায়ক তথা মন্ত্রী লাখি রাম জোশি।

দুর্নীতির অভিযোগ তুলে মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতকে পদচ্যূত করার আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখলেন রাজ্যের বিজেপি বিধায়ক তথা মন্ত্রী লাখি রাম জোশি।

গত ১১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লেখেন তেহরি গঢ়বালের প্রাক্তন বিধায়ক জোশি। তবে সেই চিঠি কংগ্রেস সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস করার পরেই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। চিঠির একটি কপি হিন্দুস্তান টাইমস-এর হাতে এসেছে। 
সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী রাওয়াতের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে নৈনিতাল হাই কোর্ট। চিঠিতে বিহার বিধানসভা নির্বাচনের সাফল্যের জন্য মোদীকে অভিনন্দন জানানোর পরে রাওয়াতের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন জোশি। 

চিঠিতে লেখা হয়েছে, ‘প্রায় তিন বছর হল রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় রয়েছে। এই সময় মুখ্যমন্ত্রীর বেশ কিছু সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপ দলকে চরম অস্বস্তিতে ফেলেছে। হাই কোর্টের সাম্প্রতিক নির্দেশে তাঁর বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের কারণে দলের ভাবমূর্তি বেশ কিছুটা কলঙ্কিত হয়েছে।’

রাওয়াতের দুর্নীতির উদাহরণ দিতে গিয়ে নোটবন্দি প্রসঙ্গ উল্লেখ করেছেন জোশি। তিনি লিখেছেন, ‘নোটবন্দির সময় সবাই এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করি। কিন্তু সেই সময় দলের ঝাড়খণ্ড শাখার দায়িত্বে থাকা রাওয়াত ঘনিষ্ঠদের কালোটাকা লুকিয়ে রাখতেসাহায্য করেন। এতে বিস্মিত হয় রাজ্যবাসী।’

দুর্নীতি দায়গ্রস্ত রাওয়াতকে তাই মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দিতে প্রধানমন্ত্রীরল কাছে আবেদনজানিয়েছেন বিজেপি নেতা। এতে তাঁর বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্ত প্রভাবিত হবে না বলেও জানিয়েছেন জোশি।

বিধায়কের প্রধানমন্ত্রীকে নালিশ জানানোর বিষয়টি অবশ্য সুনজরে দেখছে না উত্তরাখণ্ড বিজেপি। দলের রাজ্য সভাপতি বংশীধর ভগত জোশির এই পদক্ষেপ শৃঙ্খলাভঙ্গকারী বলে মন্তব্য করেছেন। দলের লতরফে জোসিকে শোকজ নোটিশও পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান, যার জবাব সাতদিনের মধ্যে বিধায়ককে দিতে হবে।

ভগতের মতে, ‘কারও কোনও সমস্যা থাকলে আমাকে জানাতে হবে। আমি মনে করলে তা যথাযথ মঞ্চে পেশ করব। দলের কোনও সদস্যের তরফে এমন শৃঙ্খলাভঙ্গকারী আচরণ বরদাস্ত করা হবে না, কারণ আমাদের দলের মূল নীতি শৃঙ্খলাভিত্তিক।’

মুখ্যমন্ত্রী রাওয়াতের বিরুদ্ধে তোলা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তাঁর পরামর্শদাতা রমেশ ভাট। তাঁর মতে, কেউ ইচ্ছে করলে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুললেও তাতে তিনি দুর্নীতিগ্রস্ত প্রমাণ করা যায় না।

বন্ধ করুন