বাড়ি > ঘরে বাইরে > কোয়ারেন্টাইনে সদলবলে মুখ্যমন্ত্রী, সংকটে উত্তরাখণ্ড
হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতকে।
হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতকে।

কোয়ারেন্টাইনে সদলবলে মুখ্যমন্ত্রী, সংকটে উত্তরাখণ্ড

  • পর্যটনমন্ত্রী সতপাল মহারাজকে সপরিবারে হাসপাতালে ভরতি করার পরে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত, বনমন্ত্রী হরক সিং রাওয়াত এবং আর এক মন্ত্রী মদন কৌশিককে।

করোনার গ্রাসে হাঁসফাঁস উত্তরাখণ্ড সরকার। মুখ্যমন্ত্রী-সহ সপার্ষদ হোম কোয়ারেন্টাইনে মন্ত্রিসভার সাত সদস্যের মধ্যে তিন জনই।

শুরু করেছিলেন রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী সতপাল মহারাজ। শনিবার তাঁর স্ত্রীর নমুনায় প্রথম করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। রবিবার সকালে মন্ত্রী, তাঁর দুই ছেলে ও তাঁদের স্ত্রীদের নমুনাও কোভিড পজিটিভ প্রমাণিত হলে গোটা পরিবারকে হৃষিকেশের এইমস হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে পাঠান চিকিৎসকরা।

তার জেরে উত্তরাখণ্ড মন্ত্রিসভায় হুলুস্থূল পড়ে যায়। করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত, বনমন্ত্রী হরক সিং রাওয়াত এবং রাজ্যের আর এক মন্ত্রী তথা সরকারি মুখপাত্র মদন কৌশিককে। কোয়ারেন্টাইনের কোপ থেকে বাদ পড়েননি রাজ্যের মুখ্য সচিব ও স্বাস্থ্য সচিব-সহ শীর্ষ স্তরের আমলারাও।

উত্তরাখণ্ড প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, গত শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী রাওয়াতের নেতৃত্বে মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সতপাল মহারাজ। ওই আলোচনাসভায় হাজির ছিলেন মুখ্য সচিব, স্বাস্থ্য সচিব এবং বেশ কয়েক জন উচ্চ পর্যায়ের কূটনীতিক। 

পর্যটনমন্ত্রীর করোনা রিপোর্টের কথা স্বীকার করে তাঁর অফিসার অন স্পেশ্যাল ডিউটি অভিষেক শর্মা জানিয়েছেন, মন্ত্রীর পরিবারের সদস্য ছাড়াও হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে তাঁর দফতরের ১৭ জন কর্মীকে। তাঁদের দেরাদুনের এক বেসরকারি হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভরতি করা হয়েছে। 

শাসকদলের এই হাল দেখে তোপ দাগতে ছাড়েনি বিরোধী কংগ্রেস। দলের রাজ্য উপ-সভাপতি সূর্যকান্ত ধশমনা টিপ্পনি কেটেছেন, ‘এই সমস্ত লোকের উপর সাধারণের দেখভালের দায়িত্ব রয়েছে। কিন্তু তাঁরাই যদি কোয়ারেন্টাইনে থাকেন তা হলে রাজ্যবাসীকে অতিমারির হাত থেকে কে রক্ষা করবে!’ 

বন্ধ করুন