বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'কেউ মারা যান, ভগবান চান না', করোনার মধ্যেই কানওয়ার আয়োজনের পথে উত্তরাখণ্ড
'কেউ মারা যান, ভগবান চান না', করোনার মধ্যেই কানওয়ার আয়োজনের পথে উত্তরাখণ্ড। (ছবিটি প্রতীকী)
'কেউ মারা যান, ভগবান চান না', করোনার মধ্যেই কানওয়ার আয়োজনের পথে উত্তরাখণ্ড। (ছবিটি প্রতীকী)

'কেউ মারা যান, ভগবান চান না', করোনার মধ্যেই কানওয়ার আয়োজনের পথে উত্তরাখণ্ড

ভগবান শিবকে দর্শনের জন্য এই পূর্ণযাত্রা আগামী ২৫ জুলাই থেকে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

‌কুম্ভ মেলার থেকেও শিক্ষা নিল না উত্তরাখণ্ড সরকার। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও এবার কানওয়ার যাত্রা আয়োজন করার ব্যাপারে তোড়জোড় করতে শুরু করেছেন উত্তরাখণ্ডের নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামী। পুণ্যার্থীদের জন্য যাত্রা আয়োজন করার পিছনে তাঁর যুক্তি, কেউ মারা যান, ভগবান সেটা কখনওই চান না।

ইতিমধ্যে উত্তর প্রদেশ সরকার এই যাত্রা আয়োজনের ব্যাপারে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। এবার উত্তরাখণ্ড সরকারও পার্শ্ববর্তী দিল্লি, হরিয়ানা ও উত্তরপ্রদেশ সরকারের সঙ্গে এই বিষয়ে আলোচনা করা শুরু করেছে। ভগবান শিবকে দর্শনের জন্য এই পূর্ণযাত্রা আগামী ২৫ জুলাই থেকে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। এই যাত্রা আয়োজন প্রসঙ্গে উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘‌আমি মনে করি, এটা শ্রদ্ধা ও বিশ্বাসের বিষয়। শ্রদ্ধা ও বিশ্বাসের সঙ্গে ভগবান অতোপ্রতোভাবে জড়িত। কেউ মারা যাক, এটা ভগবান কোনওভাবেই চান না।’‌ একইসঙ্গে তিনি জানান, প্রত্যেক পুণ্যার্থীকে সুরক্ষিত রাখার ব্যাপারে সরকারের জোর দেওয়া উচিত। কেউ যাতে বিপদের মধ্যে না পড়ে সেটা দেখা উচিত। এর মানে একটাই কেউ যাতে মারা না যান। এই প্রসঙ্গে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানিয়েছিলেন, পুরোপুরি কোভিডবিধি মেনেই পুণ্যার্থীদের জন্য এই যাত্রার আয়োজন করা হবে।|

গত শনিবার এই যাত্রা প্রসঙ্গে খোঁজখবর নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। করোনা পরিস্থিতিতেও যাতে এই যাত্রা করা যায়, সেই বিষয়ে আলোচনা করেন তাঁরা। এর আগে যখন তিরথ সিং রাওয়াতের সরকার ছিল, তখন করোনা পরিস্থিতির কারণে এই যাত্রা বন্ধ রাখার কথা বলা হয়েছিল। তবে নতুন মুখ্যমন্ত্রী দায়িত্বে আসার পর থেকেই উত্তরাখণ্ড সরকারের অবস্থান পাল্টাতে শুরু করে। উত্তরাখণ্ডের হরিদ্বারে যখন কুম্ভ মেলা হয়েছিল, তখন করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির হার ১৮০০ শতাংশ হয়েছিল। ৩১ মার্চ থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত এই সংক্রমণের হার বেড়ে গিয়েছিল। ওয়াকিবহল মহলের মতে, ফের যদি এই কানওয়ার যাত্রার অনুমতি দেওয়া হয়, তাহলে সংক্রমণের হার ফের বেড়ে যেতে পারে।

বন্ধ করুন