বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ৬ বছর আগে 'অখণ্ড ভারত'-এর ‘বিকৃত’ মানচিত্র পোস্ট, বিতর্কে উত্তরাখণ্ডের নয়া মুখ্যমন্ত্রী
উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

৬ বছর আগে 'অখণ্ড ভারত'-এর ‘বিকৃত’ মানচিত্র পোস্ট, বিতর্কে উত্তরাখণ্ডের নয়া মুখ্যমন্ত্রী

  • বছরছয়েক আগের টুইটার পোস্ট গলায় কাঁটা হয়ে বিঁধল উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামির।

বছরছয়েক আগের টুইটার পোস্ট গলায় কাঁটা হয়ে বিঁধল উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামির। যে পোস্টে লাদাখ এবং পাকিস্তান-অধ্যুষিত কাশ্মীরকে বাদ দিয়ে 'অখণ্ড ভারতের' ছবি ছিল বলে অভিযোগ। তা নিয়ে নেটিজেন থেকে শুরু করে কংগ্রেস এবং আম আদমি পার্টির তোপের মুখে পড়লেন উত্তরাখণ্ডের ১১ তম মু্খ্যমন্ত্রী।

২০১৫ সালের ১৪ অগস্ট বিকেল ৫ টা ৩৫ মিনিটে টুইটারে একটি পোস্ট হয়েছিল পুষ্করের অ্যাকাউন্ট থেকে। 'অখণ্ড ভারত' হিসেবে দাবি করে যে মানচিত্র পোস্ট করা হয়েছিল, তাতে লাদাখ এবং পাকিস্তান-অধ্যুষিত কাশ্মীর নেই বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এতদিন সেই পোস্ট ঘিরে সেভাবে বিতর্ক দানা না বাঁধলেও গত ২৪ ঘণ্টায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন পুষ্কর। বিতর্ককে সঙ্গী করে মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতে বসতে হয়েছে তাঁকে।

এক নেটিজেন লিখেছেন, ‘কে ভারতের বিকৃত মানচিত্র পোস্ট করছেন? কাশ্মীরের একাংশ এবং লাদাখ নেই। ভারত সরকার, দয়া করে ব্যবস্থা নিন।’ এক নেটিজেন বলেন, ‘লাক্ষাদ্বীপ কোথায়? কেন ভারতের মূল ভূখণ্ড থেকে পাকিস্তান-অধ্যুষিত কাশ্মীর এবং আকসাই চিনকে বাদ দেওয়া হয়েছে..।’ অপর এক টুইটার ব্যবহারকারী বলেন, ‘সংঘের অখণ্ড ভারতের অলীকতা ছাড়ুন। ভারতের মানচিত্রই ভুল আছে। মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী কি ভারতের অংশ চিন বা পাকিস্তানকে দিয়ে এসেছেন? বিজেপি এটার অনুমোদন দিয়েছে নাকি রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস)?’

বিতর্কিত পোস্ট নিয়ে সরব হয়েছে কংগ্রেসও। কেন ‘বিকৃত’ মানচিত্র পোস্ট করার জন্য পুষ্করের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। প্রদেশ কংগ্রেসের সহ-সভাপতি সূর্যকান্ত ধাসমানা জানান, যে বিজেপি সরকার ‘বিকৃত’ ভারতীয় মানচিত্রের বিষয়ে এত সংবেদনশীল, তারা কেন কোনও ব্যবস্থা নেয়নি? তাঁর কথায়, ‘পরিবর্তে তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী বানিয়ে দিয়েছে বিজেপি। পূর্রবর্তী দুই মুখ্যমন্ত্রীও নিজেদের আমলে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। তার জেরে শুধু কংগ্রেস নয়, সাধারণ মানুষের সমালোচনার মুখেও পড়েছেন।’

পালটা বিজেপির মুখপাত্র দেবেন্দ্র ভাসিন কটাক্ষ করেন, যে দল দেশভাগের জন্য দায়ী, তারাই এই বিষয়গুলি উত্থাপন করছে - কী অসাধারণ বৈপরীত্য। বিজেপি প্রথম থেকেই ভারতের অখণ্ডতার পক্ষে সওয়াল করে এসেছে। বিজেপি সরকারই সংবিধানের ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে প্রকৃত অর্থ বাকি ভারতের সঙ্গে কাশ্মীরকে যুক্ত করেছে।

বন্ধ করুন