বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মাত্র ৩০ সেকেন্ডে করোনাভাইরাস খতম করে নিরাপদ অতিবেগুনি রশ্মি, সফল গবেষণা
মাত্র ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে ৯৯.৭%  নভেল করোনাভাইরাস খতম করতে সক্ষম ২২২ ন্যানোমিটার যুক্ত ইউভিসি।
মাত্র ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে ৯৯.৭%  নভেল করোনাভাইরাস খতম করতে সক্ষম ২২২ ন্যানোমিটার যুক্ত ইউভিসি।

মাত্র ৩০ সেকেন্ডে করোনাভাইরাস খতম করে নিরাপদ অতিবেগুনি রশ্মি, সফল গবেষণা

  • ২২২ ন্যানোমিটার ওয়েভলেংথ যুক্ত আলট্রাভায়োলেট-সি (ইউভিসি) রশ্মি করোনাভাইরাস নিকেশ করতে সক্ষম এবং তা মানুষের ত্বক ভেদ করে না।

বিশেষ এক ধরনের অতিবেগুনি রশ্মির দ্বারা পুরোপুরি ধ্বংস করা যায় Covid-19 সৃষ্টিকারী নভেল করোনাভাইরাস। আমেরিকার একটি গবেষণাপত্রে সম্প্রতি এমনই দাবি করা হয়েছে।

বিজ্ঞানীদের মতে, এই বিশেষ রকম অতিবেগুনি রশ্মি বা আলট্রাভায়োলেট রে বিকিরণের ফলে মানবশরীরে কোনও ক্ষতিকর প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় না এবং এর সাহায্যে ভিড়াক্রান্ত জায়গা সহজেই জীবাণুমুক্ত করা যাবে।

সম্প্রতি আমেরিকান জার্নাল অফ ইনফেকশন কন্ট্রোল-এ প্রকাশিত হয়েছে এই সংক্রান্ত গবেষণাপত্র। তাতে বলা হয়েছে, ২২২ ন্যানোমিটার ওয়েভলেংথ যুক্ত আলট্রাভায়োলেট-সি (ইউভিসি) রশ্মি করোনাভাইরাস নিকেশ করতে সক্ষম এবং তা মানুষের ত্বক ভেদ করে না। 

জাপানের হিরোশিমা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের নিয়ে গঠিত গবেষকদল ২২২ ন্যানোমিটার যুক্ত ইউভিসি বা ফার-ইউভিসি সংক্রান্ত আগের এক পরীক্ষায় জানতে পারে, মরশুমি করোনাভাইরাস খতম করতে এই আলোকরশ্মি অব্যর্থ। এই ভাইরাসের সঙ্গে কাঠামোগত সাদৃশ্য রয়েছে নভেল করোনাভাইরাসের। 

সাম্প্রতিক গবেষণাপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘২২২ ন্যানোমিটার ওয়েভ লেংথ যুক্ত ইউভিসি ২৫৪ ন্যানোমিটার যুক্ত ইউভিসি-র চেয়ে কম ক্ষতিকর, কারণ এই রশ্মি মানুষের ত্বক ও চোখ ভেদ করার ক্ষমতা রাখে না। সেই সঙ্গে, তা জীবাণু দমনের জন্য এক কার্যকর প্রযুক্তি।’

গবেষণায় দেখা গিয়েছে, মাত্র ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে ৯৯.৭%  নভেল করোনাভাইরাস খতম করতে সক্ষম এই রশ্মি। পাশাপাশি, ২৫৪ ন্যানোমিটার ওয়েভ লেংথ যুক্ত অতিবেগুনি রশ্মির সাহায্যে ফাঁকা ঘর জীবাণুমুক্ত করা নিরাপদ বলেও জানিয়েছেন গবেষকরা।

 

বন্ধ করুন