বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‌পাকিস্তান হানা দিলেও কি রাজ্যদের বন্দোবস্ত করতে হবে, কেন্দ্রকে কটাক্ষ কেজরির
 দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
 দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)

‌পাকিস্তান হানা দিলেও কি রাজ্যদের বন্দোবস্ত করতে হবে, কেন্দ্রকে কটাক্ষ কেজরির

  • বিশ্বে প্রথম ভ্যাকসিন ভারতের বিজ্ঞানীরাই আবিষ্কার করেছিলেন।গত ডিসেম্বরেই যদি আমরা দেশের মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু করে দিতাম, তাহলে এই দিন আমাদের দেখতে হত না।

দেশের মানুষকে ভ্যাকসিন দিতে ৬ মাস দেরি হয়ে গিয়েছে। এখন কেন্দ্র ও সব রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত সরকারের উচিত টিম ইন্ডিয়ার মতো কাজ করে করোনাকে হারানো। বুধবার এমনই বার্তা দিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

এদিন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী জানান, দিল্লিতে ভ্যাকসিন না থাকার কারণে বহু টিকাকরণ কেন্দ্র বন্ধ করে দিতে হয়েছে। যুবকদের ভ্যাকসিন দেওয়া যাচ্ছে না।এ টা শুধু দিল্লির সমস্যা নয়, সারা দেশের বিভিন্ন রাজ্যের সমস্যা। একইসঙ্গে তিনি জানান, ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ যদি আমরা ঠিক সময়ে শুরু করতাম, তাহলে এত মানুষের মৃত্যু হত না। আর করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এসে পড়ত না।

এদিন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী জানান, ৬ মাস আগে থেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু করে দিয়েছিল। কিন্তু ভারত সেইসময় একটা ভুল করেছিল। নিজের দেশের লোকেদের ভ্যাকসিন না দিয়ে ভ্যাকসিন বাইরের দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। বিশ্বে প্রথম ভ্যাকসিন ভারতের বিজ্ঞানীরাই আবিষ্কার করেছিলেন। গত ডিসেম্বরেই যদি আমরা দেশের মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু করে দিতাম, তাহলে এই দিন আমাদের দেখতে হত না।

একইসঙ্গে অভিযোগের সুরেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী জানান,‘‌এখনও আমরা দেশের মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যাপারে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করছি না। গত মার্চ মাস থেকে দেশ জুড়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়ে যায়। তখন সব রাজ্যকে ভ্যাকসিন বন্দোবস্ত করতে বলে দেওয়া হয়। সব রাজ্য গত দুই মাস ধরে আপ্রাণ চেষ্টা করেছে। অনেক রাজ্য ভ্যাকসিন কেনার জন্য গ্লোবাল টেন্ডার ডেকেছিল। সব টেন্ডার বাতিল হয়ে যায়। এখনও পর্যন্ত কোনও রাজ্যই নিজের প্রচেষ্টায় একটি ভ্যাকসিনের ডোজও কিনতে পারেনি।’‌

 একইসঙ্গে তিনি জানান, কেন কেন্দ্রীয় সরকার সব ভ্যাকসিন কিনে নিচ্ছে না?‌ কেন্দ্রের উচিত ভ্যাকসিন কিনে সব রাজ্যকে তাদের প্রয়োজন মতো ভ্যাকসিন বণ্টন করে দেওয়া ।রাজ্যের সব মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার দায়িত্ব রাজ্য সরকার নেবে। কিন্তু যে কাজ কেন্দ্রীয় সরকারের দায়িত্ব সেটা তো কেন্দ্রকে করতেই হবে। এখন যদি পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের যুদ্ধ লাগে, তাহলে কী আমরা বলব, সব রাজ্য নিজের নিজের মতো ব্যবস্থা করে নিক। ফলে সারা দেশ যখন করোনার বিরুদ্ধে লড়ছে, তখন তো কেন্দ্র ও সব রাজ্য, কেন্দ্রশাসিত এলাকাকে একসঙ্গে টিম ইন্ডিয়ার মতো লড়াই করতে হবে।

এদিন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রের দায়িত্বকে স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, করোনা বিরুদ্ধে যুদ্ধে ভারত যদি হেরে যায়, তাহলে কিন্তু বিজেপি হারবে না। ভারত হেরে যাবে।দিল্লি যদি হেরে যায়, তাহলে আম আদমি পার্টি হারবে না, ভারত হারবে। যদি মহারাষ্ট্র হেরে যায়, তাহলে শিবসেনা হারবে না, ভারত হেরে যাবে।

 

বন্ধ করুন