বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ত্রিপুরায় মসজিদ ভাঙার কোনও রিপোর্ট নেই, পুরোটাই ভুয়ো খবর, বিবৃতি জারি মন্ত্রকের
সম্প্রীতি বজায় রাখার আবেদন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের। (প্রতীকী ছবি) (PTI Photo)  (PTI)
সম্প্রীতি বজায় রাখার আবেদন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের। (প্রতীকী ছবি) (PTI Photo)  (PTI)

ত্রিপুরায় মসজিদ ভাঙার কোনও রিপোর্ট নেই, পুরোটাই ভুয়ো খবর, বিবৃতি জারি মন্ত্রকের

  • এর সঙ্গে মহারাষ্ট্রের প্রসঙ্গও উল্লেখ করা হয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের তরফে।

ত্রিপুরার গোমতী জেলায় মসজিদ ভাঙচুর করা হয়েছে। একেবারে তাণ্ডব চালানো হয়েছে। এমন নানা কথা ঘুরছিল সোশ্য়াল মিডিয়ায়। এনিয়ে উত্তেজনার পারদও চড়ছিল এলাকায়। কারা ভাঙল মসজিদ, কারা রয়েছে এসবের পেছনে এনিয়ে একেবারে তপ্ত হচ্ছিল নেটপাড়া। তবে এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ত্রিপুরার গোমতী জেলায় মসজিদ ভাঙচুর নিয়ে যে খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ানো হয়েছিল তা ভুয়ো ও পুরোপুরি বাস্তব ঘটনাকে বিকৃত করে পেশ করা হয়েছে। মানুষের এনিয়ে শান্ত থাকা উচিত। এই ধরনের রিপোর্টে কোনওভাবেই বিপথে চালিত হওয়া উচিত নয়। সাফ জানিয়ে দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।

পাশাপাশি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে সাম্প্রতিক অতীতে ত্রিপুরায় মসজিদ ভাঙচুরের কোনও রিপোর্ট আসেনি। কিছু সোশ্য়াল মিডিয়ায় পোস্ট করে যে ধরণের অভিযোগ করা হচ্ছিল সেই সম্পর্কিত তেমন কোনও সাধারণ অথবা ভয়াবহ আঘাতের ঘটনা নেই। সেই সম্পর্কিত কোনও ধর্ষণ, মৃত্য়ুর কোনও রিপোর্ট নেই। 

এর সঙ্গে মহারাষ্ট্রের প্রসঙ্গও উল্লেখ করা হয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের তরফে। জারি করা বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে, উদাহরণ হিসাবে মহারাষ্ট্রের ঘটনার কথা বলা যেতে পারে। সেখানেও হিংসার রিপোর্ট, নানা ধরনের বক্তব্য ছড়ানো হচ্ছিল। এলাকার শান্তি ও মৈত্রীকে ভেঙে দেওয়ার জন্য এসব করা হচ্ছিল। ত্রিপুরার ক্ষেত্রেও ফেক নিউজের উপর ভিত্তি করে এসব করা হচ্ছিল। তবে এটা খুবই উদ্বেগের। তবে সকলের কাছে আবেদন যেকোনও মূল্যে শান্তি বজায় রাখতেই হবে। জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এখানেই প্রশ্ন উঠছে কী জন্য় এই ধরনের তথ্যকে সোশ্য়াল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল? 

 

বন্ধ করুন