বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Gyanvapi Masjid Survey: বিতর্কের মাঝে বন্ধ ছিল সমীক্ষা, কাশীর জ্ঞানবাপী মসজিদ নিয়ে বড় নির্দেশ আদালতের
Security personnel outside the court during hearing of the Gyanvapi mosque survey case, in Varanasi on Tuesday. (PTI) (HT_PRINT)
Security personnel outside the court during hearing of the Gyanvapi mosque survey case, in Varanasi on Tuesday. (PTI) (HT_PRINT)

Gyanvapi Masjid Survey: বিতর্কের মাঝে বন্ধ ছিল সমীক্ষা, কাশীর জ্ঞানবাপী মসজিদ নিয়ে বড় নির্দেশ আদালতের

  • Gyanvapi Masjid Survey: দিল্লির বাসিন্দা রাখি সিং, লক্ষ্মী দেবী, সীতা সাহু এবং অন্যান্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বারাণসী জেলা আদালতের নির্দেশে এই সমীক্ষা চালানো হচ্ছে। তবে সমীক্ষার প্রথম দিনই উত্তেজনা ছড়ায়। পরে বিক্ষোভের মুখে সমীক্ষা স্থগিত রাখা হয়।

বৃহস্পতিবার বারাণসীর একটি আদালত জ্ঞানবাপি মসজিদ সমীক্ষা শেষ করে সেই রিপোর্ট ১৭ মে-এর মধ্যে উপস্থাপনের নির্দেশ দিয়েছে। সমীক্ষাটি সম্পন্ন করার জন্য আদালত-নিযুক্ত অ্যাডভোকেট কমিশনারকে অপসারণের আবেদনের শুনানির একদিন পরে এই আদেশ আসে। আবেদনকারীদের একজনের আইনজীবী সুভাষ নন্দন চতুর্বেদী বলেন, আদালত জেলা প্রশাসনকে অজুহাত দেখিয়ে সমীক্ষায় বিলম্ব না করার নির্দেশ দিয়েছে।

আগামী পরশু ফের এই সমীক্ষা শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছে আদালত। মামলাকারী আইনজীবী বলেন, ‘আদালত পুরো জ্ঞানভাপী কমপ্লেক্সের সমীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে। মসজিদ এবং এর বেসমেন্টেরও সমীক্ষা করা হবে।’ পাশাপাশি সুভাষ চতুর্বেদী জানান, অ্যাডভোকেট কমিশনার অজয় কুমারকে অপসারণের জন্য অঞ্জুমান ইন্তেজামিয়া মসজিদ কমিটির আবেদন খারিজ করে দিয়েছে আদালত। আদালত নির্দেশ দিয়েছে যে অ্যাডভোকেট কমিশনার অজয় কুমার মিশ্র এবং বিশেষ অ্যাডভোকেট কমিশনার বিশাল সিং যৌথভাবে এই সমীক্ষার কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

এর আগে সমীক্ষা ও ভিডিয়োগ্রাফির সময় বারাণসীর জ্ঞানবাপি-শ্রীঙ্গার গৌরী কমপ্লেক্সের খুব কাছেই দুটি স্বস্তিকের চিহ্ন দেখা গিয়েছিল বলে দাবি করেছিলেন সমীক্ষার ভিডিয়োগ্রাফার। কোর্ট কমিশনারের দলের ভিডিয়োগ্রাফাররা বলেন যে তাঁরা সমীক্ষা চালনোর সময় মসজিদের বাইরে দুটি অবছা কিন্তু সুস্পষ্ট স্বস্তিক চিহ্ন দেখতে পান। তিনি বলেন যে স্বস্তিকগুলি সম্ভবত প্রাচীনকালে তৈরি হয়েছিল। উল্লেখ্য, দিল্লির বাসিন্দা রাখি সিং, লক্ষ্মী দেবী, সীতা সাহু এবং অন্যান্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বারাণসী জেলা আদালতের নির্দেশে এই সমীক্ষা চালানো হচ্ছে। তবে সমীক্ষার প্রথম দিনই উত্তেজনা ছড়ায়। পরে বিক্ষোভের মুখে সমীক্ষা স্থগিত রাখা হয়। এরপরই মুসলিম পক্ষ কমিশনারের অপসারণের দাবি জানায়। তবে আদালত কমিশনা বদলের আর্জি তো খারিজ করেছে। উপরন্তু দ্রুত সমীক্ষা সম্পন্ন করে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

বন্ধ করুন