বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Vice Presidential Election: উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ধনখড়কেই সমর্থন করবেন উদ্ধব? ১৭ বছর পুরোনো কথা মনে করাল শিন্ডে শিবির
উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে উদ্ধব শিবিরের উপর চাপ সৃষ্টি করছে শিন্ডে শিবির

Vice Presidential Election: উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ধনখড়কেই সমর্থন করবেন উদ্ধব? ১৭ বছর পুরোনো কথা মনে করাল শিন্ডে শিবির

  • মহারাষ্ট্রে মহা বিকাশ আঘাড়ি সরকারের পতনের পর, একনাথ শিন্ডে শিবসেনার ১২ জন সাংসদকেও তাঁর শিবিরে অন্তর্ভুক্ত করেছেন। শিবসেনার এই ১২ জন সাংসদের সাথে শিন্ডে দিল্লিতে বৈঠকও করেছেন।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ। বৃহস্পতিবার এর ফলাফল প্রকাশিত হবে এবং দেশ পাবে পরবর্তী রাষ্ট্রপতি। এনডিএ প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মুর জয়ের সম্ভাবনা প্রবল। এখন চলছে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রচার। বিজেপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকলেও অন্যান্য অনেক দলও এই নির্বাচনে নিজেদের সমর্থন ঘোষণা করেছে। এই আবহে উদ্ধব ঠাকরের নেতৃত্বাধীন শিবসেনা জানিয়েছে যে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তারা বিরোধী পদপ্রার্থীকে সমর্থন জানাবেন। যদিও এর আগে রাষ্ট্রপতি পদে দ্রৌপদী মুর্মুকে সমর্থন জানিয়েছিল উদ্ধব শিবির। এখন এই নির্বাচনেও শিন্ডে গোষ্ঠী উদ্ধবের উপর চাপ দিচ্ছে এনডিএ প্রার্থী ধনখড়কে সমর্থন করতে। এ জন্য ১৭ বছরের পুরনো এক কথা তাদের মনে করিয়ে দিচ্ছে শিন্ডে শিবির।

মহারাষ্ট্রে মহা বিকাশ আঘাড়ি সরকারের পতনের পর, একনাথ শিন্ডে শিবসেনার ১২ জন সাংসদকেও তাঁর শিবিরে অন্তর্ভুক্ত করেছেন। এই ১২ জন সাংসদের সাথে শিন্ডে দিল্লিতে বৈঠকও করেছেন। লোকসভায় শিবসেনার দলনেতা করা হয়েছে শিন্ডেপন্থী রাহুল শেওয়ালেকে। এই আবহে রাহুল শেওয়ালে ঘোষণা করেছেন যে তিনি উপরাষ্ট্রপতি পদের জন্য এনডিএ প্রার্থী ধনখড়কে সমর্থন করবেন। শেওয়ালে ইউপিএ-র উপরাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী মার্গারেট আলভার বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলে বলেছেন, মার্গারেট আলভা যখন মহারাষ্ট্রে কংগ্রেসের দায়িত্বে ছিলেন তখন শিবসেনার প্রতি অবিচার করেছিলেন।

২০০৫ সালে, নারায়ণ রানে শিবসেনার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেন এবং কংগ্রেসে যোগ দেন। প্রভা রাও এবং মার্গারেট আলভা কংগ্রেসে যোগদানের পর থেকেই নারায়ণ রানেকে দৃঢ়ভাবে সমর্থন করেছিলেন। শুধু তাই নয়, রানেকে শিবসেনা থেকে কংগ্রেসে আনতে আলভা এবং প্রভা রাও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন বলে জানা যায়। রানে নিজেও একাধিকবার বলেছেন যে প্রভা রাও কংগ্রেসে যোগদানের সময় তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

নারায়ণ রানেকে বিলাসরাও দেশমুখের মন্ত্রিসভায় রাজস্ব মন্ত্রী করা হয়েছিল। কিন্তু কংগ্রেসে যোগদানের পরেই তাঁর এবং বিলাসরাও দেশমুখের মধ্যে লড়াই শুরু হয়। যে প্রভা রাও রানেকে সমর্থন করেছিলেন, তাঁকে হিমাচলপ্রদেশের রাজ্যপাল নিযুক্ত করা হয়েছিল। আর মার্গারেট আলভাকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছিল। এহেন আলভার বিরুদ্ধে এবার সুর চড়িয়েছে শিন্ডে শিবির। পুরোনো ইতিহাস মনে করিয়ে উদ্ধব শিবিরকে চাপে ফেলতে চাইছে শিন্ডে শিবির।

বন্ধ করুন