বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ২ মোরগকে মেরে ফেলার 'অপরাধ', কুকুরকে ধারালো অস্ত্রে কুপিয়ে খুন, ভাইরাল ভিডিয়ো
২ মোরগকে মেরে ফেলার 'অপরাধ', কুকুরকে ধারালো অস্ত্রে কুপিয়ে খুন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
২ মোরগকে মেরে ফেলার 'অপরাধ', কুকুরকে ধারালো অস্ত্রে কুপিয়ে খুন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

২ মোরগকে মেরে ফেলার 'অপরাধ', কুকুরকে ধারালো অস্ত্রে কুপিয়ে খুন, ভাইরাল ভিডিয়ো

  • ভুবনেশ্বর থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দূরে পট্টমুন্ডাই শহরের প্রহরজপুর এলাকার বাসিন্দা এই ব্যক্তি। 

প্রকাশ্য রাস্তায় সারমেয়কে ধারালো অস্ত্রে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হল এক ব্যক্তিকে। এই বীভৎস দৃশ্যের একটি ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেখানে একটি পথ কুকুরকে নৃশংসভাবে ধারালো অস্ত্রে কুপিয়ে খুন করতে দেখা গিয়েছে ওই ব্যক্তিকে। ঘটনাটি ঘটেছে ওড়িশার কেন্দ্রপাড়া জেলায়।

শনিবার ওড়িশা পুলিশ জানিয়েছে, কেন্দ্রপাড়া জেলার বাসিন্দা ধৃত ওই ব্যক্তিকে একটি ভাইরাল ভিডিয়োয় পথ কুকুরকে ধারালো অস্ত্রে কুপিয়ে খুন করতে দেখা গিয়েছে। ওই ব্যক্তির নাম বাবুলা সিংহ (৫০)। ভুবনেশ্বর থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দূরে পট্টমুন্ডাই শহরের প্রহরজপুর এলাকার বাসিন্দা এই ব্যক্তি। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে আদালতে তোলা হলে, জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

পুলিশ জানিয়েছে, ১৫ সেকেন্ডের এই ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, ধারালো অস্ত্রটি হাতের পিছনে লুকিয়ে বাবুলা ওই কুকুরটির কাছে যায়। সেই সময় মাটিতে শুয়ে ছিল সে। পায়ের আওয়াজ শুনে কুকুরটি মুখ তুলে তাকাতেই অতর্কিতে তার উপর হামলা চালায় অভিযুক্ত। কুকুরটির পেট লক্ষ্য করে একের পর এক এলাপাথাড়ি কোপ মারতে থাকে। সারমেয়র পেট ফালা ফালা করে দেয় ওই ব্যক্তি। যন্ত্রণায় ছটফট করতে করতে মারা যায় কুকুরটি।

এই হৃদয়বিদারক দৃশ্য দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়েন নেটিজেনরা। কেউ কেউ জেলার পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ হন। পুলিশ জানিয়েছে, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২৯ ধারা ও প্রাণীর প্রতি নিষ্ঠুরতা প্রতিরোধ আইন ১৯৬০’‌র ১১(১) নম্বর ধারা-‌সহ বিভিন্ন নিষ্ঠুরতার ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এফআইআরে একাধিক ধারা থাকায়, বিচারক বাবুলা সিংকে জেল হেফাজতে পাঠান। পট্টমুন্ডাই থানায় তদন্তকারী আধিকারিক রকেশ ত্রিপাঠি জানিয়েছেন, জেরায় বাবুলা তাঁদের জানিয়েছে যে, তাঁর দু‘টো মোরগকে মেরে ফেলায় ওই কুকুরটির ওপর ক্ষুব্ধ হয়েই এই কাণ্ড ঘটিয়েছে সে।

চলতি মাসের শুরুতে ভুবনেশ্বরের প্রহলাদ বেহেরা নামের এক অবসরপ্রাপ্ত ব্যাঙ্ক কর্তাকে পশুর ওপর অত্যাচার চালানোর অভিযোগে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। সেখানেও একটি ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছিল। তাতে দেখা গিয়েছিল, ওই ব্যাঙ্ক আধিকারিকের বাড়িতে ঢুকে পড়া ৩টি বিড়ালছানাকে তুলে রাস্তার কুকুরদের গায়ের উপর ছুঁড়ে মারা হয়। তার পর ওই কুকুরের কামড়ে মৃত্যু হয় ওই তিন ছানার।

আবার ২০২০ সালের মে মাসে ভুবনেশ্বরে এক মহিলা গর্ভবতী কুকুরকে নির্মমভাবে পিটিয়ে খুন করেছিলেন। সমস্ত চেষ্টার সত্ত্বেও ওই গর্ভবতী কুকুরটিকে বাঁচানো যায়নি। তার দু’‌টি অকালে জন্মানো কুকুরছানাগুলোকে অস্ত্রোপচারের জন্য পাঠানো হলেও তাদের মৃত্যু হয়।

 

বন্ধ করুন