অশান্ত জাফরাবাদ। রবিবার দুপুরে। ছবি সৌজন্যে এএনআই।
অশান্ত জাফরাবাদ। রবিবার দুপুরে। ছবি সৌজন্যে এএনআই।

সিএএ বিরোধী অবস্থানে পাথর ছোড়া কেন্দ্র করে উত্তাল দিল্লির জাফরাবাদ

মৌজপুর চওকে সিএএ-বিরোধীদের সঙ্গে সিএএ-সমর্থকদের বিরোধের জেরে দুই পক্ষের মধ্যে পাথর ছোড়াছুড়ি শুরু হয়।কিছু ক্ষণের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

সিএএ বিরোধী বিক্ষোভ অবস্থানে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে পাথর ছোড়ার ঘটনা কেন্দ্র করে রবিবার দুপুরে উত্তপ্ত হয়ে উঠল উত্তর দিল্লির জাফরাবাদের কাছে মৌজপুর এলাকা।

দিল্লি পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (পূর্ব রেঞ্জ) অলোক কুমার জানিয়েছেন, সংঘর্ষ শুরু হওয়ার কিছু ক্ষণের মধ্যেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। হিংসা থামাতে ছোড়া হয় কয়েক রাউন্ড কাঁদানে গ্যাস।

পাথরের আঘাতে কয়েক জন জখম হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ঘটনার পরে গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে কড়া নজরদারি শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, এ দিন মৌজপুর চওকে সিএএ-বিরোধীদের সঙ্গে সিএএ-সমর্থকদের বিরোধের জেরে দুই পক্ষের মধ্যে পাথর ছোড়াছুড়ি শুরু হয়।

ঘটনার জেরে বিকেল ৫টা নাগাদ পিঙ্ক লাইনের মৌজপুর-বাবরপুর স্টেশনের প্রবেশ ও প্রস্থানের গেট বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় দিল্লি মেট্রো রেল নিগম (ডিএমআরসি)।

মেট্রো স্টেশনের কাছেই সিএএ ও এনআরসি বিরোধীরা শনিবার রাত থেকে বিক্ষোভ অবস্থান শুরু করেছেন আন্দোলনকারীরা। বিক্ষোভকারীরা অধিকাংশই মহিলা। তার জেরে সীলামপুর-মৌজপুর ও যমুনা বিহার সংযোগকারী ৬৬ নম্বর সড়ক অবরোধ করা হয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা কার্যকর করেছে প্রশাসন।

বিক্ষোভরত মহিলাদের জাতীয় পতাকা হাতে ‘আজাদি’ সংক্রান্ত স্লোগান দিতে দেখা গিয়েছে। তাঁদের দাবি, সরকার সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন রদ না করা পর্যন্ত তাঁরা অবস্থান চালিয়ে যাবেন। তাঁদের অনেকের হাতে নীল রঙের ব্যান্ড রয়েছে। ‘জয় ভীম’ স্লোগানও দেওয়া হচ্ছে।

গত দুই মাস যাবত্ সিএএ ও এনআরসি বিরোধীদের অবস্থানের জেরে সড়ক অবরোধ চলছে দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লির শাহিন বাগে। অবরোধ তোলার জন্য মধ্যস্থতাকারী দল গঠন করেছে সুপ্রিম কোর্ট।

বন্ধ করুন