বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রতিদিন খেতে দিতেন দিদা, কয়েকদিন না দিতে দেখতে এল হনুমান: ভিডিয়ো

প্রতিদিন খেতে দিতেন দিদা, কয়েকদিন না দিতে দেখতে এল হনুমান: ভিডিয়ো

ফাইল ছবি: ইউটিউব (YouTube)

মহিলাটি প্রতিদিন এলাকার হনুমানদের খাওয়াতেন। তবে বার্ধক্যজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তিনি কিছুদিন ধরে বিছানা ছেড়ে উঠতে পারছেন না। কিন্তু হনুমানগুলি রোজই সময় মতো তাঁর বাড়ির সামনে বসে থাকে।

মানুষ এবং পশুর মধ্যে সম্পর্কের কোনও সংজ্ঞা হয় না। এ-এক এমন টান, যেখানে ভাষা বলতে শুধুই ভালোবাসা।

রোজ হনুমানকে খেতে দেন দিদা। কিন্তু কয়েকদিন ধরে তিনি বের হচ্ছেন না। তাই তাঁকে দেখতে ঘরে চলে এল এক হনুমান। ঘটনার ভিডিয়ো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। 
ভিডিয়োটি বেশ পুরনো। তবে নতুন করে তা ভাইরাল হয়েছে। 

পশুরা কখনও কখনও মানুষের থেকেও বেশি মানবিক হয়। সেই নজিরই মিলল এই ভিডিয়োয়। ওরা হয় তো মুখের ভাষা বোঝে না। কিন্তু একটি ভাষা ওরা বোঝে -ভালবাসা, স্নেহ-মায়ার ভাষা। তারই প্রমাণ এই ঘটনা। ভিডিয়োটি এতটাই হৃদয়স্পর্শী যে চোখে জল আসতে বাধ্য।

আসলে, মহিলাটি প্রতিদিন এলাকার হনুমানদের খাওয়াতেন। তবে বার্ধক্যজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তিনি কিছুদিন ধরে বিছানা ছেড়ে উঠতে পারছেন না। কিন্তু হনুমানগুলি রোজই সময় মতো তাঁর বাড়ির সামনে বসে থাকে।

একদিন এভাবেই একটি হনুমান কীভাবে বুঝতে পারে যে বৃদ্ধা ঘরের ভিতরেই আছেন। সোজা সে ঢুকে আসে সেই ঘরে। তারপর মাথার কাছে এসে বসে পড়ে। শুধু তাই নয়, মাথায় হাত বুলিয়ে দেয়, জড়িয়ে ধরে বৃদ্ধাকে। এ যেন মা-ছেলের দৃশ্য। গোটা ঘটনাটাই ভিডিয়োয় ধরা পড়েছে। দেখুন সেই ভিডিয়ো:

ভিডিয়োটা কেমন লাগল আপনার? আপনারও কি কোনও পশুর সঙ্গে সুন্দর সম্পর্ক আছে? কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না!

বন্ধ করুন