বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চাকরি ছেড়ে ‘পেশা’ ছিনতাই! অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ল ইঞ্জিনিয়ার
চাকরি ছেড়ে ‘পেশাদার’ ছিনতাই! অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ল ইঞ্জিনিয়ার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)
চাকরি ছেড়ে ‘পেশাদার’ ছিনতাই! অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ল ইঞ্জিনিয়ার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)

চাকরি ছেড়ে ‘পেশা’ ছিনতাই! অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ল ইঞ্জিনিয়ার

  • ইঞ্জিনিয়ার হয়ে উঠেছিল ছিনতাইবাজ। পুলিশি জেরায় ধৃত ব্য়ক্তি জানিয়েছে, চাকরি ছাড়ার পর এমন একটা দিনও যায়নি, যেদিন কোনও ছিনতাই করেনি। দ্রুতগতির বাইকে চেপে বিভিন্ন জায়গা থেকে চলত ছিনতাই। কখনও নিশানা করা হত রিকশায় বসে থাকা আরোহীকে। কখনও আবার পথচলতি মানুষের থেকে জিনিসপত্র লুঠ করে নিয়ে পালাত আশরাফুলরা।

ছিল টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার। ঠিকঠাক বেতনের চাকরিও করত। কিন্তু সেইসব ছেড়ে ছিনতাইবাজ হয়ে ওঠে বাংলাদেশের এক যুবক। অবশেষে সেই ইঞ্জিনিয়ার ছিনতাইবাজকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের দাবি, জেরায় ওই যুবক জানিয়েছে যে চাকরি ছাড়ার পর ছিনতাই না করে কোনও দিন কাটত না।

বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত রবিবার পুলিশের জালে চার ছিনতাইবাজ ধরা পড়েছে। সেই চক্রের অন্যতম পান্ডা ছিল আশরাফুল ইসলাম নামে ওই টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার। গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার জানিয়েছেন, ঢাকায় একটি সংস্থায় কাজ করত আশরাফুল। মাসে বেতন ছিল ৩৫,০০০ টাকা। বছরতিনেক আগে চাকরি ছেড়ে দেয়। তারপরই ছিনতাইবাজদের দলে নাম লিখিয়ে ফেলে। আশরাফুল যে সংস্থায় কাজ করত, সেই সংস্থার গাড়ির চালকের হাত ধরেই ছিনতাইয়ের জগতে প্রবেশ ঘটে।

আরও পড়ুন: ঘুমোচ্ছিলেন স্বামী, পুরুষাঙ্গ কেটে গভীর রাতে সটান থানায় হাজির দ্বিতীয় স্ত্রী

পুলিশি জেরায় আশরাফুল জানিয়েছে, চাকরি ছাড়ার পর এমন একটা দিনও যায়নি, যেদিন কোনও ছিনতাই করেনি। দ্রুতগতির বাইকে চেপে মীরপুর, গুলশন, বনানী-সহ ঢাকার বিভিন্ন জায়গা থেকে চলত ছিনতাই। কখনও নিশানা করা হত রিকশায় বসে থাকা আরোহীকে। কখনও আবার পথচলতি মানুষের থেকে জিনিসপত্র লুঠ করে নিয়ে পালাত আশরাফুলরা। সেভাবেই দীর্ঘদিন ধরে দৌরাত্ম্য চালাচ্ছিল আশরাফুলরা। অবশেষে রবিবার চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বন্ধ করুন