বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Vladimir Putin: নিজ বাসভবনে সিঁড়ি থেকে পড়ে গেলেন! প্যান্টেই মলত্যাগ ‘অসুস্থ’ ভ্লাদিমির পুতিনের

Vladimir Putin: নিজ বাসভবনে সিঁড়ি থেকে পড়ে গেলেন! প্যান্টেই মলত্যাগ ‘অসুস্থ’ ভ্লাদিমির পুতিনের

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন  (AP)

রিপোর্টে দাবি করা হয়, পুতিন পড়ে গেলে তিনজন নিরাপত্তারক্ষী তাঁকে তুলে ধরে পাশের একটি সোফাতে নিয়ে বসান। তবে পুতিনের গুরুতর চোট লাগেনি বলে জানানো হয়। যদিও কোমরে ব্যথা রয়েছে রুশ প্রেসিডেন্টের।

ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে জল্পনা চলছে। রিপোর্টে দাবি করা হয়, তিনি ক্যানসার আক্রান্ত। অস্ত্রপচারের জন্য অস্থায়ী ভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করারও কথাও উঠেছিল। এই আবহে এবার নিউইয়র্ক টাইমসের এক রিপোর্টে দাবি করা হল, নিজের বাসভবনে সিঁড়ি থেকে পড়ে যান রুশ প্রেসিডেন্ট। প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, পুতিন পড়ে যাওয়ার পরই তাঁকে তুলে ধরেন নিরাপত্তারক্ষীরা। সরকারি চিকিৎসকের দল এসে পুতিনের শারীরিক অবস্থা খতিয়ে দেখে। বর্তমানে ৭০ বছর বয়সি পুতিন সুস্থ রয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে।

ক্যানসারের কারণে ভ্লাদিমির পুতিনের পেটের অবস্থা নাকি ভালো নেই। তাই সিঁড়ি দিয়ে গড়িয়ে পড়তেই ‘অনিচ্ছাকৃতভাবে মলত্যাগ’ করে ফেলেন রুশ প্রেসিডেন্ট। রিপোর্টে দাবি করা হয়, পুতিন পড়ে গেলে তিনজন নিরাপত্তারক্ষী তাঁকে তুলে ধরে পাশের একটি সোফাতে নিয়ে বসান। তবে পুতিনের গুরুতর চোট লাগেনি বলে জানানো হয়। যদিও কোমরে ব্যথা রয়েছে রুশ প্রেসিডেন্টের। তবে ঘটনার কিছুক্ষণ পরই নিজে থেকে হাঁটা চলা করতে পারছিলেন পুতিন। অবশ্য বসতে গেলে কিছুটা লাগছে পুতিনের কোমরে।

রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের মাঝেই জানা গিয়েছিল, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। কোলন ক্যানসারে আক্রান্ত হন রুশ প্রেসিডেন্ট। পাশাপাশি স্নায়ুর জটিল সমস্যাও রয়েছে। বেশ কিছু রিপোর্টে দাবি করা হয়েছিল, রুশ প্রেসিডেন্টের হাত কালো হয়ে গিয়েছে ক্যানসারের চিকিৎসার কারণে। এরই মাঝে পুতিনের ‘বডি ডাবল’ ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছিল রাশিয়ার বিরুদ্ধে। এই সব জল্পনা কল্পনার মাঝেই জনসমক্ষে ততটা দেখা যাচ্ছে না পুতিনকে। সরকারি অনেক কর্মসূচিতেও অনুপস্থিত থাকছেন পুতিন। খালি গায়ে ঘোড়ায় চড়া প্রেসিডেন্ট, জুডো ব্ল্যাট বেল্ট রাষ্ট্রনেতার শরীর খারাপের বিষয়টি রাশিয়া অবশ্য দীর্ঘদিন ধরে ধামাচামা দেওয়ার চেষ্টা করছে। তবে সিঁড়ি থেকে পুতিনের পতনের ঘটনা অস্বীকার করেনি ক্রেমলিন।

বন্ধ করুন