বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভবিষ্যতের দ্বন্দ্বের ‘ট্রেলারের’ সাক্ষী থাকছে ভারত, মত জেনারেল নারাভানের

ভবিষ্যতের দ্বন্দ্বের ‘ট্রেলারের’ সাক্ষী থাকছে ভারত, মত জেনারেল নারাভানের

ভারতীয় সেনার প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে এএনআই)

ভবিষ্যতের দ্বন্দ্বের ‘ট্রেলারের’ সাক্ষী থাকছে ভারত। যারা সেই দ্বন্দ্ব তৈরি চেষ্টা করছে, তারা নিজেদের কৌশলগত লক্ষ্যপূরণের জন্য সেই কাজটা চালিয়ে যাবে। চিন এবং পাকিস্তানের নাম না করে এমনই মন্তব্য করেন ভারতীয় সেনার প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে।

সেন্টার ফর ল্যান্ড ওয়ারফেয়ার স্টাডিসের (ক্লজ) আয়োজিত সেমিনারে জেনারেল নারাভানে জানান, সুরক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছে ভারত। ভারতের উত্তর দিকের সীমান্তে যে সব ঘটনা ঘটছে, তা ভালোমতোই বুঝিয়ে দিয়েছে যে দেশের সার্বভৌমত্ব এবং অখণ্ডতাকে রক্ষা করতে বাহিনীকে সর্বদা তৈরি থাকতে হবে। সেইসঙ্গে উপযুক্ত উপকরণ-সহ আধুনিক প্রযুক্তির সহায়তা লাগবে। চিন এবং পাকিস্তানের নাম না করে ভারতীয় সেনার প্রধান জানান, পরমাণু-শক্তিধর প্রতিবেশীদের সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে যে সংঘাত আছে এবং রাষ্ট্রের মদতপুষ্ট যে 'প্রক্সি' যুদ্ধ চলছে (জঙ্গিদের মদত জোগানো), তাতে দেশের সুরক্ষা সংক্রান্ত উপকরণের আরও প্রয়োজন হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত মাসে ভারতীয় সেনাপ্রধান জানিয়েছিলেন, চিন সীমান্তে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠবে কিনা, তা বলা দুষ্কর। তবে ভারতীয় সেনা যে কোনও পরিস্থিতির জন্য তৈরি আছে। তাতে শেষপর্যন্ত জয়ী হবে ভারতীয় সেনাই। সেইসঙ্গে তিনি জানান, বর্তমানে লাদাখ সেক্টরে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর যে পরিস্থিতি আছে, সেজন্য পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) দায়ী। চিনই সীমান্তে বিশাল সংখ্যক ফৌজি মোতায়েন করেছে। সীমান্ত বরাবর বিভিন্ন পরিকাঠামো তৈরি করেছে চিন। আপাতত সেখানেই আছে লাল ফৌজ। তারা সেখানেই থাকবে নাকি পিছিয়ে যাবে, তার উপর নজর রাখতে হবে বলে জানিয়েছন সেনাপ্রধান। চিনের পদক্ষেপের উপর ভিত্তি করেই ভারত কৌশল ঠিক করবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

কিন্তু কীভাবে দু'দেশের সেনা পিছিয়ে যাওয়ার প্রশস্ত হবে? সেই সময় ভারতীয় সেনাপ্রধান জানিয়েছিলেন, দু'দেশের বাহিনীর মধ্যে যখন ভরসা গড়ে উঠবে এবং উত্তেজনা কমবে, তখনই শুধুমাত্র লাদাখের বিভিন্ন সংঘাতপূর্ণ এলাকা থেকে সেনা প্রত্যাহারের পথ প্রশস্ত হতে পারে। যে কাজটা গত এক বছরে আংশিকভাবে হয়েছে বলে জানিয়েছেন সেনাপ্রধান। তাতে কিছুটা আশার আলো দেখা গেলেও বিপদ যে পুরো কেটে গিয়েছে, তা ভারতীয় সেনাপ্রধান মানতে চাননি। তিনি জানিয়েছিলেন, এখনও বিপদ কিছু কমেনি। যতদিন না পুরোপুরিভাবে সেনা সরানো হচ্ছে, ততদিন বাহিনী মোতায়েন রাখতে প্রস্তুত আছে ভারতীয় সেনা। যে কোনও কিছুর জন্য তাঁর বাহিনী প্রস্তুত আছে বলে আশ্বাস দিয়েছেন ভারতীয় সেনাপ্রধান। তাঁর কথায়, ‘গত এক বছরে পিছু হটে যাওয়া নিয়ে ইতিবাচক পদক্ষেপ করা হয়েছে। আংশিকভাবে সেনা পিছু হটেছে। কিন্তু কোনওদিক থেকেই বিপদের আশঙ্কা কমেনি।’ তাও আলোচনার মাধ্যমে আগামিদিনে পূর্ব লাদাখে উত্তেজনা প্রশমিত করা যাবে বলে আশাপ্রকাশ করেছেন সেনাপ্রধান।

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

ছেলেকে ‘লুকিয়ে’ই রাখেন নুসরত, প্রথমবার সামনে আনলেন ঈশানের এই বিশেষ কীর্তি রাতে হয়েছিলেন আটক, সকাল হতেই গ্রেফতার বেড়মজুরের তৃণমূল নেতা অজিত মাইতি IND vs ENG 4th Test LIVE: রাঁচিতে আজই সিরিজ পকেটে পুরতে মরিয়া রোহিতরা ভোডাফোন-আইডিয়ার ৩৩% শেয়ার কি ছেড়ে দেবে সরকার? সামনে এল সাফ বার্তা ঘরের মাঠে সব থেকে বেশি টেস্ট উইকেট নেওয়া ৬ স্পিনার, কুম্বলেকে টপকে দুইয়ে উঠলেন অশ্বিন খাবারে খরচ কমছে ভারতীয়দের, ব্যয় বাড়ছে পরিষেবা ও অন্যান্য সামগ্রী কিনতে: রিপোর্ট জোড়া জয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স, দেখে নিন WPL-এর পয়েন্ট তালিকা দমবন্ধ করবে শার্টলেস শাহরুখ! কিং খানের নতুন ছবি নিয়ে পড়ল হইচই, আপনি দেখেছেন সিংহের নাম নিয়ে HC-র বকুনি, বাংলার 'সীতা-আকবর' বিতর্কে সাসপেন্ড ত্রিপুরার অফিসার চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ৩ পয়েন্ট ‘মাস্ট’ ইস্টবেঙ্গলের, কোথায় ফ্রি'তে ম্যাচ দেখবেন?

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.