বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আপনার প্রপিতামহর আমলে বিপুল জমি হারিয়েছি, রাহুলকে পালটা অমিতের
১৯৬২ সালে চিনের সঙ্গে যুদ্ধে বিপুল পরিমাণে জমি হারিয়েছিল ভারত। রাহুল গান্ধীর কটাক্ষের জবাবে মন্তব্য করলেন অমিত শাহ।
১৯৬২ সালে চিনের সঙ্গে যুদ্ধে বিপুল পরিমাণে জমি হারিয়েছিল ভারত। রাহুল গান্ধীর কটাক্ষের জবাবে মন্তব্য করলেন অমিত শাহ।

আপনার প্রপিতামহর আমলে বিপুল জমি হারিয়েছি, রাহুলকে পালটা অমিতের

  • ১৯৬২ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু আকাশবাণীর ভাষণে বলেছিলেন, বাই বাই অসম। তাহলে এই বিষয়ে কংগ্রেস কী ভাবে আমাদের শিক্ষা দেওয়ার যোগ্যতা অর্জন করল?

১৯৬২ সালে চিনের সঙ্গে যুদ্ধে বিপুল পরিমাণে জমি হারিয়েছিল ভারত। কংগ্রেস ও রাহুল গান্ধীর উচিত সেই স্মৃতি রোমন্থন করা। সোমবার এই মন্তব্য করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

পূর্ব লাদাখে চিনা সেনার ভারতীয় ভূখণ্ড দখল করা নিয়ে রাহুলের সাম্প্রতিক বিবৃতিরই এ দিন পালটা দিলেন শাহ। গত ৭ অক্টোবর হরিয়ানার জনসভায় কংগ্রেস নেতা বলেছিলেন, চিনা সেনাকে ভারত থেকে তাড়াতে ১৫ মিনিট সময় লাগে। 

জি নিউজ-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অমিত শাহ বলেন, ‘সেই সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু আকাশবাণীর ভাষণে বলেছিলেন, বাই বাই অসম। তাহলে এই বিষয়ে কংগ্রেস কী ভাবে আমাদের শিক্ষা দেওয়ার যোগ্যতা অর্জন করল? আপনার পূর্বপুরুষ ক্ষমতাসীন থাকাকালীন আমরা হেক্টেয়ারের পরে হেক্টেয়ার জ হারিয়েছি।’

একই সঙ্গে গত ১৫ জুন ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিহার রেজিমেন্টের প্রশংসা করে অমিত বলেন, ’১৬ বিহার রেজিমেন্টের সেনাদের জন্য আমি অসীম গর্ববোধ করি। আমাদের শাসনকালে অন্তত রুখে দাঁড়িয়ে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখতে পেরেছি। এই সেনারা কঠিন আবহাওয়ার সঙ্গে যুঝে দেশকে রক্ষা করেছেন।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অবশ্য আশা পোষণ করেছেন যে, কূটনৈতিক আলোচনার মাধ্যমে চিনের সঙ্গে সীমান্ত বিরোধের মীমাংসা সম্ভব।

 

বন্ধ করুন