বাড়ি > ঘরে বাইরে > প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত ওয়েবসাইটে হ্যাকার হানা, স্বীকার করল টুইটার
একাধিক ভুয়ো বার্তা পাঠিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ওয়েবসাইট ও অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছে।
একাধিক ভুয়ো বার্তা পাঠিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ওয়েবসাইট ও অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত ওয়েবসাইটে হ্যাকার হানা, স্বীকার করল টুইটার

  • প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট এবং টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাকারের কবলে পড়ল।

হ্যাকারের খপ্পরে পড়ল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট এবং টুইটার অ্যাকাউন্ট। ত্রাণ তহবিলে ক্রিপ্টোকারেন্সির মাধ্যমে সাহায্যের আবেদন-সহ একাধিক ভুয়ো বার্তা পাঠিয়ে ওয়েবসাইট ও অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার সকালে জানিয়েছে সংবাদসংস্থা রয়টার্স।

প্রসঙ্গত, গত জুলাই মাসে বিশ্বের একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তির টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়। 

হিন্দুস্তান টাইমস-এর তরফে যোগাযোগ করা হলে টুইটার-এর মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘আমরা পরিস্থিতির প্রত্যক্ষ অনুসন্ধান শুরু করেছি। সংশ্লিষ্ট অ্যাকাউন্টটি সংশোধন করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। অতিরিক্ত অ্যাকাউন্টগুলিও নিশানা করা হয়েছে কি না, সে সম্পর্কে আমাদের কাছে খবর নেই।’

প্রধানমন্ত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করার দাবি সাইবার দস্যুদের।
প্রধানমন্ত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করার দাবি সাইবার দস্যুদের।

নমোর ব্যক্তিগত টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও বিবৃতি দেয়নি প্রধানমন্ত্রীর দফতর। 

টুইটারে ঘুরে বেড়ানো হ্যাক হওয়া অ্যাকাউন্টের স্ক্রিন শটের সঙ্গে দাবি করা হয়েছে, দুষ্কর্মের পিছনে রয়েছে জন উইক নামে এক হ্যাকার। 

উল্লিখিত @narendramodi পেজটি বর্তমানে ২৫ লাখ ইউজার ফলো করেন। পেজটিতে মূলত প্রধানমন্ত্রীর বিভিন্ন কাজকর্মের খতিয়ান, তাঁর উক্তি এবং ভাষণ সম্পর্কে তথ্য প্রকাশ করা হয়।

এ দিকে, প্রধানমন্ত্রীর ওয়েবসাইট ও টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার খবরে তোলপাড় হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া। বহু ইউজারই বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া সাইটের নিরাপত্তা নিয়ে গুরুতর প্রশ্ন তুলেছেন।

বন্ধ করুন