বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ ঠিক কখন নেবেন? জেনে নিন…
কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন। ছবি : টুইটার (Twitter)
কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন। ছবি : টুইটার (Twitter)

করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ ঠিক কখন নেবেন? জেনে নিন…

দুটি টিকার ক্ষেত্রেই দুটি ডোজের মধ্যে ব্যবধান বেশ গুরুত্বপূর্ণ। এমনকি এর উপরে টিকার কার্যকারিতাও নির্ভরশীল। 

বর্তমানে ভারতে দুটি Covid-19 টিকার প্রয়োগ চলছে। একটি হল ভারত বায়োটেকের Covaxin । অপরটি সিরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার Covishield ।

কোভ্যাক্সিন ও কোভিশিল্ডের সংরক্ষণ :

দুটি টিকাই সাধারণ ফ্রিজার-এ রাখা সম্ভব। ২-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সংরক্ষিত করা যায় কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন। অন্যান্য কিছু টিকার মতো অনেক বেশি ঠান্ডায় রাখার প্রয়োজন নেই।

ঠিক কতদিনের ব্যবধানে দুটি ডোজ নেওয়া প্রয়োজন?

কোভিশিল্ডের দুটি ডোজের মধ্যে সময়ের ব্যবধান প্রাথমিক পর্যায়ে ৪ থেকে ৬ সপ্তাহ রাখা হয়েছিল। পরবর্তী পর্যায়ে তা বাড়িয়ে ৪ থেকে ৮ সপ্তাহ করা হয়।

অন্যদিকে কোভ্যাক্সিনের দ্বিতীয় ডোজ, প্রথম ডোজ গ্রহণের ৪ থেকে ৬ সপ্তাহের মাথায় নিতে হয়।

কেন্দ্রের বিশেষজ্ঞদের নির্দেশিকা অনুযায়ী কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজ গ্রহণের ৬ থেকে ৮ সপ্তাহের মাথায় দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারলে সবচেয়ে ভাল। কিন্তু ৮ সপ্তাহের বেশি হয়ে গেলে সেক্ষেত্রে টিকার কার্যকারিতা হ্রাস পেতে পারে।

দাম

কোভিশিল্ড : রাজ্যগুলিকে ডোজপিছু ৩০০ টাকায় কোভিশিল্ড বিক্রি করা হবে। বেসরকারি হাসপাতালগুলি কিনবে ডোজপিছু ৬০০ টাকা।

কোভ্যাক্সিন : ডোজপিছু রাজ্যগুলি ৬০০ টাকা কিনবে কোভ্যাক্সিন। অন্যদিকে বেসরকারি হাসপাতালগুলি ডোজপিছু ১,২০০ টাকায় কিনবে।

যে দাম ঘোষণা হয়েছে, সেটা রাজ্য সরকার ও বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে টিকা বিক্রির জন্য। সাধারণ টিকা গ্রহণকারী ব্যক্তির জন্য নয়।

রাজ্য সরকারি হাসপাতাল থেকে টিকা নিলে ভর্তুকির ফলে কম দামেই পাওয়া উচিত্ টিকা। আবার পশ্চিমবঙ্গ-সহ বেশ কিছু রাজ্যে টিকা সম্পূর্ণ বিনামূল্যেই দেওয়া হবে। অর্থাত্ রাজ্য সরকার টাকা দিয়ে টিকা কিনলেও প্রয়োগ করতে সাধারণ মানুষের থেকে দাম নেবে না।

বন্ধ করুন