বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কোভিডের নয়া ‘সুনামি’, ভেঙে পড়তে পারে স্বাস্থ্য পরিষেবা! সতর্কবাণী WHO-এর
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান (রয়টার্স) (REUTERS)

কোভিডের নয়া ‘সুনামি’, ভেঙে পড়তে পারে স্বাস্থ্য পরিষেবা! সতর্কবাণী WHO-এর

  • ওমিক্রন সংক্রমণের নয়া ঢেউকে ‘সুনামি’ আখ্যা দিয়ে সতর্কবাণী দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। গত এক সপ্তাহে বিশ্বে রেকর্ড সংখ্যক ৯৫ লক্ষ মানুষ নতুন করে কোভিড আক্রান্ত হয়েছে।

বিশ্ব জুড়ে করোনার নয়া ঢেউ আছড়ে পড়েছে। সংক্রমণের এই নয়া ঢেউকে ‘সুনামি’ আখ্যা দিয়ে সতর্কবাণী দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ওনিক্রনের এই বাড়বাড়ন্তে ইতিমধ্যেই চাপের মুখে পড়েছে বিশ্বের স্বাস্থ্য পরিষেবা। এই আবহে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রস আধানম বলেন, ‘মহামারী চলাকালীন এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ সংখ্যক কোভিড কেস রিপোর্ট করা হয়েছে গত সপ্তাহে। এবং আমরা নিশ্চিতভাবে জানি যে এই কেসের সংখ্যার অবমূল্যায়ন হয়েছে। ছুটির দিনগুলিতে পরীক্ষা কম হওয়ায় আসল সংখ্যা প্রতিফলিত হচ্ছে না। তাছাড়াও বাড়িতে করা করোনা পরীক্ষার সংখ্যা নিবন্ধিত হয়নি। বিশ্বজুড়ে কেসের বাড়বাড়ন্তের জেরে নজরদারি ব্যবস্থার উপরও চাপ সৃষ্টি হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগের ভ্যারিয়েন্টের মতোই ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েও রোগীরা হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন এবং এতে মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। এই সংক্রমণের সুনামি এতটাই প্রবল ও দ্রুত যে এতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা চাপের মুখে পড়েছে।’ তিনি আরও জানান, করোনার টিকা এই ওমিক্রনকে ঠেকাতে সক্ষম না হলেও টিকার ফলে ওমিক্রনের প্রভাব কম হবে।

উল্লেখ্য, ২৭ ডিসেম্বর এবং ২ জানুয়ারির মাঝে বিশ্বব্যাপী রেকর্ড সংখ্যক ৯৫ লক্ষ মানুষ নতুন করে কোভিড আক্রান্ত হয়েছে বিশ্ব জুড়ে। আগের সপ্তাহের তুলনায় এই সময়কালে ১৭ শতাংশ সংক্রমণ বেড়েছে। আর এই সপ্তাহে গোটা বিশ্বে ৪১ হাজার মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ওমিক্রন নিয়ে বিশ্বের সব দেশকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

 

বন্ধ করুন