বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মানুষ চাইলে চেয়ার ছাড়বেন, বললেন গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জর্জরিত ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী
বিপ্লব দেব (PTI)
বিপ্লব দেব (PTI)

মানুষ চাইলে চেয়ার ছাড়বেন, বললেন গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জর্জরিত ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী

  • বিপ্লব হটাও, বিজেপি বাঁচাও স্লোগান উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। 

মানুষ যদি চায় তাহলে কুরসি ছেড়ে যাবেন। এভাবেই কার্যত রাজ্য রাজ্যনীতিতে তাঁর বিরোধীদের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। দুই দিন আগেই বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক বিনোদ সোনকারের সামনে বিজেপি বিক্ষুব্ধরা স্লোগান তুলেছিল, বিপ্লব হটাও, বিজেপি বাঁচাও। তারপরেই এই কথা বললেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী। 

প্রায় বছর খানেক যাবৎ বিজেপিতে সুদীপ রায়বর্মন গোষ্ঠীর সঙ্গে বিবাদ চলছে বিপ্লব দেবের। সুদীপবাবুকে মন্ত্রিসভা থেকে তিনি সরানোর পরই প্রকাশ্যে আসে দ্বন্দ্ব। নভেম্বরে সুদীপের নেতৃত্বে একদল বিজেপি নেতা গিয়ে বিপ্লবের বিরুদ্ধে জেপি নাড্ডার কাছে নালিশ ঠুকে আসেন। যদিও খাতায় কলমে সংগঠন নিয়ে আলোচনা বলেই তাঁরা দাবি করেছিলেন। 

কিন্তু তারপর থেকেই আরো বেড়েছে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। দুইদিন আগে কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক যে গেস্টহাউসে ছিলেন তার বাইরে বিপ্লব বিরোধীরা তাঁকে সরানোর জন্য স্লোগান দেন। এরপরেই বিপ্লব বললেন যে মানুষ চাইলে তিনি সরে যেতে রাজি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে তিনি ১৩ ডিসেম্বর দুপুর দুটোর সময় আস্তাবল ময়দানে যাবেন। সবাইকে সেখানে যেতে তিনি আমন্ত্রণ জানান ও তাঁকে মুখের ওপর নিজেদের মনের ভাব বলতে বলেন। সেই অনুযায়ী তিনি হাইকম্যান্ডকে জানিয়ে দেবেন বলে দাবি করেন বিপ্লব দেব। 

এরপর ত্রিপুরার জন্য তিনি মোদী মন্ত্রে উদ্বুদ্ধ হয়ে কী কী করেছেন, তার বিস্তারিত ফিরিস্তি দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি যে বিক্ষুব্ধদের দেওয়া স্লোগানে ব্যথিত, সে কথাও লুকাননি বিপ্লব। তবে তিনি যদি ক্ষমতায় থাকেন তাহলে যে বেআইনি কার্যকলাপ সহ্য করবেন না, সেটাও বলেন তিনি। যারা তাঁর বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়েছে, তাদের সঙ্গে কী হওয়া উচিত, সেটাও সাধারণ মানুষকে ঠিক করতে বলেছেন বিপ্লব দেব। 

বন্ধ করুন