বাড়ি > ঘরে বাইরে > কেরালায় পাঁচ বছরের সন্তানের সামনেই মহিলাকে গণধর্ষণ, দেওয়া হল সিগারেটের ছ্যাঁকা
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

কেরালায় পাঁচ বছরের সন্তানের সামনেই মহিলাকে গণধর্ষণ, দেওয়া হল সিগারেটের ছ্যাঁকা

পুরো ঘটনায় মহিলার স্বামীর মদত ছিল বলে তদন্তে উঠে এসেছে

কেরালায় ছোটো শিশুর সামনে গণধর্ষণ করা হল এক মহিলাকে। শুধু তাই নয়, সিগারেটের ছ্যাঁকা দিয়ে রীতিমত চলল অত্যাচার। তিরুবনন্তপুরমের এই ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে আছে ধর্ষিতার স্বামীও। 

অভিযোগকারিনী পুলিশকে জানিয়েছেন যে বিচে যাওয়ার নাম করে তাঁর স্বামী ছেলে সহ এক বন্ধুর বাড়িতে নিয়ে যায় তাঁকে। সেখানে মহিলাকে জোর করে মদ খাওয়ানো হয়। এরপর একটা খালি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ মহিলার। তাঁকে সিগারেটের ছ্যাঁকাও দেওয়া হয়। বারবার চড়ও মারা হয় বলে জানিয়েছেন মহিলা। 

পুরো ঘটনায় স্তম্ভিত পাঁচ বছরের শিশু যখন কান্নায় ভেঙে পড়ে তখন তাকেও আক্রমণ করে ধর্ষণকারীরা। মহিলা বলেন যে তাঁকে ওখান থেকে যেতে দেওয়া হয় এই শর্তে যে বাচ্চাকে বাড়িতে রেখে এসে ফের তিনি ফিরে আসবেন। 

ফেরার পথে মহিলা রাস্তায় একটা গাড়ি থামান। তারপর পুরো ঘটনাটি খুলে বলেন তাদের। সেই ব্যক্তিরা তখন পুলিশে খবর দেয় ও মহিলাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।  তিরুবন্তপুরম গ্রামীনের পুলিশ সুপার অশোক কুমার জানিয়েছেন যে প্রাথমিক তদন্তে মনে করা হচ্ছে, ধর্ষিতার স্বামীও এই ঘটনায় জড়িত ছিলেন। তিনি মহিলার ওপর জোর দেন পুলিশে অভিযোগ না করার জন্য। যাদের ধরা হয়েছে, কিছুজনের আগেই পুলিশের খাতায় নাম ছিল বলে জানান তিনি। 

ধর্ষণ ছাড়া পস্কো আইনে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা আনবে পুলিশ। এরা ড্রাগ গ্যাংয়ের সঙ্গে যুক্ত কিনা, সেটা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। 

 

বন্ধ করুন