বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'আমার স্বামীকে নিজের স্বামীর অন্তর্বাস দেখান প্রতিবেশী', পুলিশে অভিযোগ মহিলার
'আমার স্বামীকে নিজের স্বামীর অন্তর্বাস দেখান প্রতিবেশী', পুলিশে অভিযোগ মহিলার (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
'আমার স্বামীকে নিজের স্বামীর অন্তর্বাস দেখান প্রতিবেশী', পুলিশে অভিযোগ মহিলার (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)

'আমার স্বামীকে নিজের স্বামীর অন্তর্বাস দেখান প্রতিবেশী', পুলিশে অভিযোগ মহিলার

  • কাপড় শুকোতে দেওয়ার সময় নিজের স্বামীর অন্তর্বাস দেন প্রতিবেশী।

কাপড় শুকোতে দেওয়ার সময় নিজের স্বামীর অন্তর্বাস দেন প্রতিবেশী। তাই তাঁকে গ্রেফতার করতে হবে। থানায় এমনই উদ্ভট দাবি তুললেন মেক্সিকোর এক মহিলা। তাঁর বক্তব্য, তাঁর স্বামীকে অন্তর্বাস দেখানোর জন্য সেই কাজ করেন প্রতিবেশী। একটি প্রতিবেদনে তা জানানো হয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে দ্য সানের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই মহিলার নাম যুবিজা। দক্ষিণ-পূর্ব মেক্সিকোর বাসিন্দা ওই মহিলার দাবি, প্রতিবেশী মহিলা যখন কাপড় শুকোতে দেন, তখন তাঁর স্বামীর অন্তর্বাসও দেখতে হয়। তা নিয়ে প্রতিবেশীকে একাধিবার জানিয়েছেন। কিন্তু কোন লাভ হয়নি। উলটে নাকি ইচ্ছাকৃতভাবে স্বামীর অন্তর্বাস শুকোতে দিতে থাকেন ওই প্রতিবেশী। যখন যুবিজার স্বামীর ছুটি থাকে, তখনই সেই কাজ করেন প্রতিবেশী। যাতে যুবিজার স্বামী ওই প্রতিবেশীর প্রতি আকর্ষিত হন। শুধু তাই নয়, যুবিজার দাবি, কয়েকবার তো তাঁর স্বামীকেও সেইসব অন্তর্বাস দেখিয়েছেন প্রতিবেশী। ছুটির দিন যুবিকার স্বামীও রাস্তায় ঘোরাফেরা করেন বলে দাবি করেছেন অভিযোগকারী। ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, পুলিশের কাছে মহিলা আর্জি জানিয়েছেন যে অবিলম্বে প্রতিবেশীকে গ্রেফতার করা হোক। নাহলে শীঘ্রই তাঁর সংসার ভেঙে যাবে।

কিন্তু সেই অভিযোগ পেয়ে ফ্যাসাদে পড়েছে পুলিশ। ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, কীভাবে সেই বিষয়টি মিটমাট করা হবে, তা নিয়ে মাথার চুল ছেঁড়ার জোগাড় হয়েছে। পুলিশের একদল আধিকারিক যুবিজাকে বোঝানোর চেষ্টা করেন যে প্রতিবেশী কাপড় শুকোতে দেওয়ার বিষয়টি কোনও অপরাধের মধ্যে পড়ে না। দুই মহিলার সঙ্গে বসতেও রাজি হয়েছে। কিন্তু অনড় যুবিজা। তাঁর বক্তব্য, দুনিয়া উথাল-পাতাল হয়ে যাক। কিন্তু প্রতিবেশীকে গ্রেফতার করতেই হবে।

বন্ধ করুন