বেজিংয়ের সেন্ট্রাল বিজনেস ডিস্ট্রিক্টে লাঞ্চ আওয়ারের সময় পথচারীকে নির্দেশ দিচ্ছেন পিপিই পরা নিরাপত্তাকর্মী। শুক্রবার রয়টার্স-এর ছবি। (REUTERS)
বেজিংয়ের সেন্ট্রাল বিজনেস ডিস্ট্রিক্টে লাঞ্চ আওয়ারের সময় পথচারীকে নির্দেশ দিচ্ছেন পিপিই পরা নিরাপত্তাকর্মী। শুক্রবার রয়টার্স-এর ছবি। (REUTERS)

উহানে হঠাৎ ৫০% বাড়ল মৃতের সংখ্যা, ফের সন্দেহ ঘনাল চিনের তথ্য নিয়ে

উহান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বেশ কিছু ভুল এবং হারিয়ে যাওয়া তথ্যের জেরে করোনায় মৃতের সংখ্যা প্রকাশে প্রভাব পড়েছে।

করোনা সংক্রমণের আতুরঘর হিসেবে পরিচিত চিনের উহান শহরে শুক্রবার মৃতের সংখ্যা ৫০% বেড়ে দাঁড়াল ৩,৮৬৯।

Covid-19 সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশে চিনের স্বচ্ছতা নিয়ে আগেও প্রশ্ন উঠেছে। এ দিন উহান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বেশ কিছু ভুল এবং হারিয়ে যাওয়া তথ্যের জেরে করোনায় মৃতের সংখ্যা প্রকাশে প্রভাব পড়েছে। যার ফলে, একধাক্কায় পঞ্চাশ শতাংশ বেড়ে গিয়ে শহরে আরও ১,২৯০টি নতুন মৃত্যুর খবর জানা গেল।

এই নিয়ে উহানে মোট মৃ্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩,৮৬৯। শুধু তাই নয়, এর জেরে বিশ্বের Covid-19 মৃতের তালিকা ৩৯% বাড়ল, অর্থাৎ যুক্ত হল আরও ৪,৬৩২টি মৃত্যু।

করোনা সংক্রান্ত সঠিক তথ্য প্রকাশের জন্য ইতিমধ্যে আমেরিকার নেতৃত্বে চিনের উপরে চাপ তৈরি করেছে পশ্চিমী দেশগুলি। বেজিংয়ের দেওয়া তথ্য নিয়ে সন্দেহপ্রকাশ করেছেন আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা।

এর আগে চিন জানিয়েছিল, উহানের খাদ্যপণ্য বিক্রির বাজার থেকেই প্রথমে করোনা সংক্রমণ শুরু হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে উহানের সমস্ত বাজার মাসাধিককাল বন্ধ রাখার পরে সম্প্রতি ফের চালু করার অনুমোদন দেয় প্রশাসন।

সম্প্রতি উহানের মহামারী রোধ ও নিয়ন্ত্রণ বিভাগের প্রধান দফতর থেকে সংক্রমণ সংক্রান্ত তথ্য খোয়া যাওয়ার পিছনে একাধিক কারণ দর্শিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বলা হয়েছে, প্রথম দফায় সংক্রমণের লাগামছাড়া বৃদ্ধিতে বিভ্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীরা অনেক সময়েই ঘটনার বেশ কিছু পরে খবর পেয়েছেন অথবা বেশ কিছু তথ্য হারিয়ে ফেলেছেন।

সেই সঙ্গে রোগ নির্ণয়ে অপ্রতুল পরীক্ষা ও চিকিৎসা ব্যবস্থার পাশাপাশি, বহু রোগী নিজের বাড়িতে মারা গিয়েছেন বলে সেই তথ্য পেতে দেরি হয়েছে বলে জানিয়েছে উহান স্বাস্থ্য বিভাগ।

বন্ধ করুন