উহানের একটি ল্যাবরেটরি থেকে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার যথেষ্ট প্রমাণ আমাদের হাতে আছে। দাবি মার্কিন স্বরাষ্ট্র সচিব মাইক পম্পিওর।
উহানের একটি ল্যাবরেটরি থেকে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার যথেষ্ট প্রমাণ আমাদের হাতে আছে। দাবি মার্কিন স্বরাষ্ট্র সচিব মাইক পম্পিওর।

উহানের ল্যাবরেটরি থেকেই ছড়িয়েছে করোনা, এবার দাবি পম্পিওর

  • উহানের একটি ল্যাবরেটরি থেকে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার যথেষ্ট প্রমাণ আমাদের হাতে আছে।

সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট উদ্ধৃত করে আগে সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এবার তাঁর স্বরাষ্ট্র সচিব মাইক পম্পিও জানালেন, উহানের গবেষণাগার থেকেই ছড়িয়েছিল করোনাভাইরাস সংক্রমণ।

প্রমাণ বা তথ্য দাখিল করার তোয়াক্কা কোনওদিনই নিজের দাবির সপক্ষে রাখার প্রয়োজন মনে করেনি আমেরিকা। সেই পরম্পরা মেনেই পম্পিও দাবি করেছেন, ‘আমি আপনাদের বলে দিচ্ছি, উহানের একটি ল্যাবরেটরি থেকে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার যথেষ্ট প্রমাণ আমাদের হাতে আছে। চিনের গবেষণাগারের ব্যর্থতার ফলে বিশ্বে মারাত্মক ভাইরাস সংক্রমণের নজির এর আগেও আমরা দেখেছি।’

তবে করোনাভাইরাস মানুষের তৈরি করা কি না, সেই বিষয়ে মন্তব্। করেননি মার্কিন স্বরাষ্ট্র সচিব। বরং ঘুরিয়ে বলেছেন, ‘আমি শুনেছি গোয়েন্দা দফতর কী বলেছে। তারা যে ভুল কিছু বলেছে, এমন মনে করার কোনও কারণ দেখছি না।’

ইতিমধ্যে বিশ্বেরল সর্বোচ্চ সংখ্যক বন্দির বাসস্থান আমেরিকার জেলগুলিতে করোনা সংক্রমণের দাপট অব্যাহত রয়েছে। প্রতিদিন সেখানে বেড়ে চলেছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।

এ পর্যন্ত ১৪,৪০০-রও বেশি বন্দি করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। মারা গিয়েছেন ২১৫ জন। তবে এই হিসেব বেসরকারি। মার্কিন প্রশাসনের তরফে দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত করোনার প্রকোপে অসুস্থ হয়েছেন ১,৯১৯ জন কয়েদি, আর মারা গিয়েছেন মাত্র ৩৭ জন। 

বন্ধ করুন