বাড়ি > ঘরে বাইরে > YES Bank প্রতিষ্ঠাতার বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ ইডি-র, চলছে জেরা
মুম্বইয়ে YES Bank-এর প্রধান দফতর। ছবি সৌজন্যে রয়টার্স।  (REUTERS)
মুম্বইয়ে YES Bank-এর প্রধান দফতর। ছবি সৌজন্যে রয়টার্স। (REUTERS)

YES Bank প্রতিষ্ঠাতার বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ ইডি-র, চলছে জেরা

YES Bank প্রতিষ্ঠাতা রানা কাপুরের বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতি দমন আইনে (PMLA) অভিযোগ দায়ের করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট। জেরার জন্য নিয়ে যাওয়া হল সংস্থার প্রধান দফতরে।

YES Bank সংকটের জেরে সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা রানা কাপুরের বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতি দমন আইনে (PMLA) অভিযোগ দায়ের করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট। তাঁকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জেরা করছে ইডি। শুক্রবার মুম্বইয়ের ওরলিতে কাপুরের বাসভবনে তল্লাশি অভিযানও চালিয়েছে ইডি।

শনিবার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ইডি আধিকারিক জানান, ব্যাঙ্ক ঋণ মঞ্জুরের ক্ষেত্রে হিসাব বহির্ভূত অর্থ লেনদেনে জড়িত সন্দেহে কাপুরের বাড়িতে শুক্রবার রাত ১০.৩০ নাগাদ হানা দেন ইডি আধিকারিকরা। ভোররাত পর্যন্ত তল্লাশি চলে বলে জানা গিয়েছে।


দীর্ঘমেয়াদী আর্থিক দোলাচলের পরে বৃহস্পতিবার বিকেলে YES Bank-এর লেনদেনের উপরে স্থগিতাদেশ জারি করে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের মাসিক ৫০,০০০ টাকার বেশি তোলার উপরে নিষেধাজ্ঞাও জারি করা হয়। পাশাপাশি, ব্যাঙ্কের নিজস্ব বোর্ড অফ ডিরেক্টর্সকে অতিক্রম করে স্টেট ব্যাঙ্কের প্রাক্তন মুখ্য অর্থনৈতিক আধিকারিক প্রশান্ত কুমারকে পরিচালক হিসেবে নিয়োগ করে আরবিআই।

ওই আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘তল্লাশিতে জানা গিয়েছে, YES Bank থেকে নেওয়া প্রতিটি ঋণের জন্য মোট ঋণ পরিমাণের ১০% ঘুষ দিতে হত কাপুরের এক আত্মীয়

কে।’তিনি আরও জানান, দেওয়ান হাউজিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন (DHFL) সংস্থাকে দেওয়া YES Bank-এর ঋণ মঞ্জুর প্রক্রিয়াও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। উল্লেখ্য, নিহত গ্যাংস্টার ইকবাল মির্চির বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতি মামলায় DHFL কর্তা কপিল ওয়াধাওয়ানকে এর আগে গ্রেফতার করে ইডি।

বন্ধ করুন