বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > স্ত্রীকে বিবাহবিচ্ছেদ দিয়ে দুধ দিয়ে স্নান করলেন শাসকদলের নেতা
দুধ দিয়ে স্নান করছেন অমিত রাজ। 
দুধ দিয়ে স্নান করছেন অমিত রাজ। 

স্ত্রীকে বিবাহবিচ্ছেদ দিয়ে দুধ দিয়ে স্নান করলেন শাসকদলের নেতা

  • বিষয়টি মিটমাট করার জন্য শনিবার জেলা পুলিশের তরফে দুক্ষকে ডাকা হয়। পুলিশ আধিকারিকদের উপস্থিতিতে ৩ লক্ষ টাকার বিনিময়ে অমিতের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদে রাজি হন টুম্পা।

স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর দুধ দিয়ে স্নান করলেন শাসকদলের এক নেতা। সেই ছবি আপলোড করলেন সোশ্যাল সাইটে। যা নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বাংলাদেশের টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর উপজেলার অভিরামপুর গ্রামে। দুধ দিয়ে স্নান করার পর বাংলাদেশের যুবলিগ নেতা অমিত রাজের দাবি, পাপমুক্ত হলাম।

মির্জাপুর উপজেলার বাঁশতৈল ইউনিয়নের যুবলিগের সহ সম্পাদক অমিত। চার বছর আগে সখিপুর উপজেলার রাজবাড়ি গ্রামের মেয়ে টুম্পার সঙ্গে তাঁর প্রণয় পরিণতি পায় বিয়েতে। অভিযোগ, তার পর থেকেই স্বামী - স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ শুরু হয়। এর মধ্যে জন্মায় এক পুত্রসন্তান। দাম্পত্যকলহের জেরে মাস তিনেক আগে ছেলেকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি ছাড়েন টুম্পা। সেকথা জানিয়ে স্থানীয় থানায় ডায়েরি করেন অমিত। ওদিকে জেলা পুলিশের কাছে বধূনির্যাতনের অভিযোগ আনেন টুম্পা।

বিষয়টি মিটমাট করার জন্য শনিবার জেলা পুলিশের তরফে দুক্ষকে ডাকা হয়। পুলিশ আধিকারিকদের উপস্থিতিতে ৩ লক্ষ টাকার বিনিময়ে অমিতের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদে রাজি হন টুম্পা। সেখানেই বিচ্ছেদের আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এর পর ছেলেকে নিয়ে বাড়ি চলে আসেন অমিত।

বাড়িতে ঢোকার সময় অমিতের ঠাকুমা অমিত রাজকে দুধ দিয়ে স্নান করান। এই খবর ছড়িয়ে পড়তে গ্রামে জড়ো হন সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরা। তাঁদের অমিত বলেন, ‘এখন আমি ও আমার পরিবার বিপদ থেকে মুক্ত। তাই দুধ দিয়ে স্নান করে পাপটুকুও ধুয়ে ফেললাম। আমার ঠাকুমা আমাকে দুধ দিয়ে স্নান করিয়ে ঘরে তুলেছেন।’

 

বন্ধ করুন