চিনের কারাগারে করোনাভাইরাস হানায় সংক্রামিত হয়েছেন ২২০ জন।
চিনের কারাগারে করোনাভাইরাস হানায় সংক্রামিত হয়েছেন ২২০ জন।

করোনা নিয়ে অবাস্তব দাবির পর পাল্টা প্রশ্নে ক্ষুব্ধ কলকাতার চিনা কনসাল জেনারেল

কলকাতায় চিনা কনসাল জেনারেল বলেন,করোনাভাইরাস নাকি মামুলি জ্বর-কাশি! তা থেকে ভয় পাচ্ছে নাা চিনের মানুষ।

করোনাভাইরাস নাকি মামুলি জ্বর-কাশি! কলকাতায় চিনা কনসাল জেনারেল ঝা লিউয়ের সেই টুইটের বেশ কড়া জবাব দিয়েছিলেন এক নেটিজেন। তা দেখে মেজাজ হারালেন লিউ। এমনকী ওই নেটিজেনকে ভাইরাসের অংশ হিসেবে তুলনা করলেন তিনি।

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি চিনের একটি সংবাদমাধ্যমের তরফে টুইটারে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করা হয়। তাতে দেখা যায়, মারণ ভাইরাসের উৎসস্থল উহানের একটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যোগা করছেন এক মহিলা। সেই ভিডিয়োটি ট্যাগ করে লিউ টুইটারে লেখেন, 'চিনের মানুষ এখন বুঝতে পেরেছেন COVID-১৯ বেশিমাত্রার সর্দি-কাশি ছাড়া আর কিছু নয়। আমরা এর ফলে ভীত নই। চূড়ান্ত লড়াইয়ের জন্য তৈরি হন। আর তা ভাইরাসদের ভয় পাইয়ে দেয়।'

বিষয়টি নিয়ে সরব হন এক নেটিজেন। যিনি চিনেরই বাসিন্দা। করোনাভাইরাসের কারণে কীভাবে উহান-সহ কয়েকটি শহর কার্যত তালাবন্দি হয়ে আছে, তা তুলে ধরে তিনি বলেন, 'আমরা এখন জানি, এটা (করোনাভাইরাস) বেশিমাত্রার সর্দি-কাশি ছাড়া আর কিছু নয়। তাই (চিনের) ভূ-খণ্ডের প্রায় সবাইকেই ঘরবন্দি করে রাখাটা অত্যন্ত অদ্ভুত মনে হয়। আরও অদ্ভুত কারণ, সেই বেশিমাত্রার সর্দি-কাশি এখনও পর্যন্ত ১,৬৬৬ জনের প্রাণ কেড়েছে ও ৯৫ শতাংশ মৃত্যুর খবর শুধু হুবেই থেকেই পাওয়া গিয়েছে।'

এরপরই মেজাজ হারিয়ে ফেলেন লিউ। তিনি পালটা বলেন, 'আপনি এমনভাবে কথা বলছেন যে মনে হচ্ছে, আপনিও ভাইরাসের অংশ ও ভাইরাসের মতো আপনাকে নির্মূল করা হবে। আপনাকে ধিক্কার।'

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চিনে নোভেল ভাইরাসে ২,২৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যাও বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৫,৪৬৫।

বন্ধ করুন