বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আইনজীবীর পরিবর্তে আদালতের শুনানিতে কি বিড়াল? শোনা গেল 'আমি বিড়াল নই' : ভিডিয়ো

জুম কলে চলছিল আদালতের শুনানি। আচমকা এক আইনজীবীর মুখে বিড়ালের ফিল্টার বসে যায়। তারপরই সতর্কবার্তা শোনান বিচারক। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সেই ভিডিয়ো। 

ফিল্টার-কাণ্ডের পর আমেরিকার ওয়েস্ট টেক্সাসের বিচারক রয় ফার্গুসন সতর্ক করেন, লগ-ইন করার আগে সর্বদা ফিল্টারের বিষয়টি খুঁটিয়ে দেখে নেবেন। ওই আইনজীবী তথা প্রিসিডিও কাউন্টির অ্যাটর্নি রড পন্টন বলেন, ‘আমি লাইভ আছি। আমি বিড়াল নই।’ প্রত্যুত্তরে ফার্গুসন বলেন, ‘আমি সেটা দেখতে পাচ্ছি।’ পরে নিজেই সেই ভিডিয়ো টুইটারে শেয়ার করেছেন ফার্গুসন। তাতে দেখা যায়, পন্টনের মুখে আচমকা বিড়ালের ফিল্টার দেখে বাকি দু'জন (বিচারক ছাড়া) অবাক হয়ে যান। স্বভাবতই সেই ঘটনায় থতমত খেয়ে যান পন্টন। তাঁকে আশ্বস্ত করেন বিচারক। শেষপর্যন্ত ভিডিয়োর শেষের দিকে দেখা যায়, কীভাবে বিড়ালের ফিল্টার সরিয়ে দিতে হবে, তা পন্টনকে শেখাচ্ছেন বাকিরা।

ছোটো ভিডিয়োর পাশাপাশি ফার্গুসন লিখেছেন, 'টেক্সাসের ৩৯৪ তম জেলা আদালতে ভার্চুয়াল শুনানির সময় এটা রেকর্ড করা হয়েছে এবং শিক্ষাগত কারণে তা প্রকাশ করা হয়েছে। এই বিষয়টা বোঝা গুরুত্বপূর্ণ যে আইনজীবীদের নিয়ে কটূক্তি করার জন্য এটা প্রকাশ করা হয়নি। বরং ন্যায়ের জন্য আইনি মহলের যে আত্মবলিদান, তা উদাহরণস্বরূপ তুলে ধরা হয়েছে।'

সেই ঘটনার পর একটি সাক্ষাৎকারে পন্টন জানান, সেই ঘটনার পর সারা বিশ্ব থেকে ফোন পাচ্ছেন তিনি। এমনকী জাতীয় টিভির জন্যও ডাক পড়েছে। তিনি বলেন, ‘আমি বরাবর দারুণ আইনজীবী হতে চাইতাম। কিন্তু এখন বিড়াল হিসেবে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য আমি বিখ্যাত হয়ে গিয়েছি।’

বন্ধ করুন