বাংলা নিউজ > ছবিঘর > গ্রামে করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে এসেছেন ২ লক্ষ স্বেচ্ছাসেবক, ৪ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মী

গ্রামে করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে এসেছেন ২ লক্ষ স্বেচ্ছাসেবক, ৪ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মী

  • পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এর মধ্যে প্রায় ৪৫% গ্রাম পঞ্চায়েতই করোনা মোকাবিলার জন্য পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্য কমিটি গঠন করেছে।
গ্রামাঞ্চলে কোভিড পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য জুন মাসে একটি পোর্টাল তৈরি করে কেন্দ্র সরকার। সেই পোর্টালের পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে নয়া তথ্য। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
1/5গ্রামাঞ্চলে কোভিড পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য জুন মাসে একটি পোর্টাল তৈরি করে কেন্দ্র সরকার। সেই পোর্টালের পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে নয়া তথ্য। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
পরিসংখ্যান বলছে, গ্রামাঞ্চলে কোভিড মোকাবিলায় দেশজুড়ে স্বেচ্ছাসেবকই ছিলেন প্রায় ২ লক্ষ মানুষ। এর পাশাপাশি ৪ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মী গ্রামাঞ্চলে কোভিড মোকাবিলায় নিযুক্ত ছিলেন। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
2/5পরিসংখ্যান বলছে, গ্রামাঞ্চলে কোভিড মোকাবিলায় দেশজুড়ে স্বেচ্ছাসেবকই ছিলেন প্রায় ২ লক্ষ মানুষ। এর পাশাপাশি ৪ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মী গ্রামাঞ্চলে কোভিড মোকাবিলায় নিযুক্ত ছিলেন। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
পঞ্চায়েত রাজ মন্ত্রকের এই পোর্টালের নাম কোভিড-নাইন্টিন ড্যাশবোর্ড। এতে দেশের মোট ২.৫ লক্ষ গ্রাম পঞ্চায়েতের কোভিড মোকাবিলার তথ্যাদি আছে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এর মধ্যে প্রায় ৪৫% গ্রাম পঞ্চায়েতই করোনা মোকাবিলার জন্য পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্য কমিটি গঠন করেছে। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
3/5পঞ্চায়েত রাজ মন্ত্রকের এই পোর্টালের নাম কোভিড-নাইন্টিন ড্যাশবোর্ড। এতে দেশের মোট ২.৫ লক্ষ গ্রাম পঞ্চায়েতের কোভিড মোকাবিলার তথ্যাদি আছে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এর মধ্যে প্রায় ৪৫% গ্রাম পঞ্চায়েতই করোনা মোকাবিলার জন্য পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্য কমিটি গঠন করেছে। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
ড্যাশবোর্ড অনুযায়ী, দেশের প্রায় ৮৬ হাজার পঞ্চায়েত কোভিড নিয়ে সচেতনতামূলক প্রচারের আয়োজন করেছে।ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
4/5ড্যাশবোর্ড অনুযায়ী, দেশের প্রায় ৮৬ হাজার পঞ্চায়েত কোভিড নিয়ে সচেতনতামূলক প্রচারের আয়োজন করেছে।ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
শুধু তাই নয়। দেশের প্রায় ৫৭ হাজার গ্রাম পঞ্চায়েত নিজেদের এলাকায় বেশি ঝুঁকিপূর্ণ, অর্থাত্ কো-মর্বিডিটি ও ষাটোর্ধ্বদের আলাদা করে চিহ্নিতকরণ করেছে। এর পাশাপাশি দেশজুড়ে প্রায় ১.৫ লক্ষ হোম আইসোলেশন কিট বিলি করা হয়েছে। এই কিটে সাধারণত প্যারাসিটামলের মতো সাধারণ ওষুধ এবং থার্মোমিটার থাকে। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
5/5শুধু তাই নয়। দেশের প্রায় ৫৭ হাজার গ্রাম পঞ্চায়েত নিজেদের এলাকায় বেশি ঝুঁকিপূর্ণ, অর্থাত্ কো-মর্বিডিটি ও ষাটোর্ধ্বদের আলাদা করে চিহ্নিতকরণ করেছে। এর পাশাপাশি দেশজুড়ে প্রায় ১.৫ লক্ষ হোম আইসোলেশন কিট বিলি করা হয়েছে। এই কিটে সাধারণত প্যারাসিটামলের মতো সাধারণ ওষুধ এবং থার্মোমিটার থাকে। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
অন্য গ্যালারিগুলি