বাংলা নিউজ > ছবিঘর > নয়া মাইলস্টোন পার কাশ্মীরে বিশ্বের উচ্চতম সেতুর, দেখুন চোখধাঁধানো ছবি

নয়া মাইলস্টোন পার কাশ্মীরে বিশ্বের উচ্চতম সেতুর, দেখুন চোখধাঁধানো ছবি

প্যারিসের বিখ্যাত আইফেল টাওয়ারের থেকেও ৩৫ মিটার বেশি উঁচু এই সেতু।

অবশেষে শেষ হল বিশ্বের উচ্চতম রেলব্রিজের আর্চ নির্মাণের কাজ। কাশ্মীরে চন্দ্রভাগা নদীর থেকে প্রায় ৩৫৯ মিটার উচ্চতায় তৈরি হচ্ছে এই সেতু। ছবি : টুইটার 
1/5অবশেষে শেষ হল বিশ্বের উচ্চতম রেলব্রিজের আর্চ নির্মাণের কাজ। কাশ্মীরে চন্দ্রভাগা নদীর থেকে প্রায় ৩৫৯ মিটার উচ্চতায় তৈরি হচ্ছে এই সেতু। ছবি : টুইটার 
সেতুটি দৈর্ঘ্যে প্রায় ১.৩ কিলোমিটার। এর মাধ্যমে সংযুক্ত হবে উধমপুর-শ্রীনগর-বারামুল্লা। এই ব্রিজ চালু হলে কাশ্মীরের যোগাযোগ ব্যবস্থার চিত্র বদলে যাবে। ছবি : হিন্দুস্তান টাইমস ফাইল (HT File)
2/5সেতুটি দৈর্ঘ্যে প্রায় ১.৩ কিলোমিটার। এর মাধ্যমে সংযুক্ত হবে উধমপুর-শ্রীনগর-বারামুল্লা। এই ব্রিজ চালু হলে কাশ্মীরের যোগাযোগ ব্যবস্থার চিত্র বদলে যাবে। ছবি : হিন্দুস্তান টাইমস ফাইল (HT File)
প্রকল্পের মোট খরচ প্রায় ১ হাজার ৪৮৬ কোটি টাকা। মোট আড়াই বছর সময়ের মধ্যে সম্পূর্ণ কাজ শেষ হবে বলে মনে করছেন রেল কর্তারা। ছবি : এএনআই (ANI)
3/5প্রকল্পের মোট খরচ প্রায় ১ হাজার ৪৮৬ কোটি টাকা। মোট আড়াই বছর সময়ের মধ্যে সম্পূর্ণ কাজ শেষ হবে বলে মনে করছেন রেল কর্তারা। ছবি : এএনআই (ANI)
সম্প্রতি এই ব্রিজের নির্মাণের ছবি পোস্ট করেন রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল। অত্যন্ত্য দুর্গম, ঝুঁকিপূর্ণ এই স্থানে অক্লান্ত পরিশ্রমের জন্য ইঞ্জিনিয়ার ও কর্মীদের প্রশংসা করেন তিনি। ছবি : পীযুষ গোয়েলের টুইটার অ্যাকাউন্ট (Twitter)
4/5সম্প্রতি এই ব্রিজের নির্মাণের ছবি পোস্ট করেন রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল। অত্যন্ত্য দুর্গম, ঝুঁকিপূর্ণ এই স্থানে অক্লান্ত পরিশ্রমের জন্য ইঞ্জিনিয়ার ও কর্মীদের প্রশংসা করেন তিনি। ছবি : পীযুষ গোয়েলের টুইটার অ্যাকাউন্ট (Twitter)
প্যারিসের বিখ্যাত আইফেল টাওয়ারের থেকেও ৩৫ মিটার বেশি উঁচু এই সেতু। এর থেকেই এর উচ্চতার একটা আন্দাজ পাওয়া সম্ভব। এটি সম্পূর্ণ হলে তা ভারতীয় রেলে তথা বিশ্বের স্থাপত্যের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে স্থান পাবে। ছবি : এইচ টি ফাইল (HT File)
5/5প্যারিসের বিখ্যাত আইফেল টাওয়ারের থেকেও ৩৫ মিটার বেশি উঁচু এই সেতু। এর থেকেই এর উচ্চতার একটা আন্দাজ পাওয়া সম্ভব। এটি সম্পূর্ণ হলে তা ভারতীয় রেলে তথা বিশ্বের স্থাপত্যের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে স্থান পাবে। ছবি : এইচ টি ফাইল (HT File)
অন্য গ্যালারিগুলি