Netflix দেখে ও প্রাণায়ম করে সময় কাটিয়েছিলেন দিল্লির প্রথম করোনা রোগী

সেরে উঠেছেন দিল্লির প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রো... more

ভিডিও কল করার সুবিধা ছিল- আইসোলেশন ওয়ার্ডে থাকলেও নিজেকে একা মনে হয়নি রোহিতের। তাঁর কাছে একটি ফোন ছিল যেটা দিয়ে তিনি পরিবারের সঙ্গে ভিডিওতে কথা বলতেন। গত সপ্তাহের শনিবার অবধি হাসপাতালে ছিলেন তিনি। (Bloomberg)
1/6ভিডিও কল করার সুবিধা ছিল- আইসোলেশন ওয়ার্ডে থাকলেও নিজেকে একা মনে হয়নি রোহিতের। তাঁর কাছে একটি ফোন ছিল যেটা দিয়ে তিনি পরিবারের সঙ্গে ভিডিওতে কথা বলতেন। গত সপ্তাহের শনিবার অবধি হাসপাতালে ছিলেন তিনি। (Bloomberg)
একই সঙ্গে বিনোদনের জন্য নেটফ্লিক্স দেখে নিজের সময় কাটাতেন রোহিত। তাঁর কথায়, যেমন হাসপাতালের ওয়ার্ড হয়, তার থেকে সম্পূর্ণ আলাদা ছিল এটি। চামড়ার ব্যবসায়ী রোহিত কাজের সূ্ত্রে ইতালি গিয়েছিলেন। ২৫ ফেব্রুয়ারি দেশে ফেরেন তিনি। তখন থেকেই জ্বর লেগে ছিল। ওষুধ খেয়েও না কমায় করোনার টেস্ট করেন তিনি।
2/6একই সঙ্গে বিনোদনের জন্য নেটফ্লিক্স দেখে নিজের সময় কাটাতেন রোহিত। তাঁর কথায়, যেমন হাসপাতালের ওয়ার্ড হয়, তার থেকে সম্পূর্ণ আলাদা ছিল এটি। চামড়ার ব্যবসায়ী রোহিত কাজের সূ্ত্রে ইতালি গিয়েছিলেন। ২৫ ফেব্রুয়ারি দেশে ফেরেন তিনি। তখন থেকেই জ্বর লেগে ছিল। ওষুধ খেয়েও না কমায় করোনার টেস্ট করেন তিনি।
আইসোলেশন ওয়ার্ডে প্রতিদিন দুই বার করে বেড কভার ইত্যাদি বদলানো হত সংক্রমণ আটকানোর জন্য বলে জানিয়েছেন রোহিত।  (PTI)
3/6আইসোলেশন ওয়ার্ডে প্রতিদিন দুই বার করে বেড কভার ইত্যাদি বদলানো হত সংক্রমণ আটকানোর জন্য বলে জানিয়েছেন রোহিত। (PTI)
রোহিত জানিয়েছে যে হাসপাতালে নিয়মিত প্রাণায়ম করতেন তিনি। প্রথমে মৃত্যুভয় থাকলেও পরে চিকিত্সকরা তাঁকে জানান যে ভয়ের কোনও কারণ নেই। তারপরেই তিনি কিছুটা আশ্বস্ত বোধ করেন।  (PTI)
4/6রোহিত জানিয়েছে যে হাসপাতালে নিয়মিত প্রাণায়ম করতেন তিনি। প্রথমে মৃত্যুভয় থাকলেও পরে চিকিত্সকরা তাঁকে জানান যে ভয়ের কোনও কারণ নেই। তারপরেই তিনি কিছুটা আশ্বস্ত বোধ করেন। (PTI)
রোহিত জানান তিনি চিকিত্সাধীন থাকার সময় চাণক্য নীতি পড়ছিলেন। চিকিত্সক ও নার্সদের সুস্থ হওয়ার পর বারবার ধন্যবাদ দেন এই ব্যবসায়ী। যেভাবে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তাঁকে নিরাময় করেছেন, তাতে কৃতজ্ঞ বোধ করেন রোহিত। কিন্তু চিকিত্সকরা বলেন, তাঁরা নিজেদের কাজ করছেন, এতে ধন্যবাদ দেওয়ার নেই।  (PTI)
5/6রোহিত জানান তিনি চিকিত্সাধীন থাকার সময় চাণক্য নীতি পড়ছিলেন। চিকিত্সক ও নার্সদের সুস্থ হওয়ার পর বারবার ধন্যবাদ দেন এই ব্যবসায়ী। যেভাবে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তাঁকে নিরাময় করেছেন, তাতে কৃতজ্ঞ বোধ করেন রোহিত। কিন্তু চিকিত্সকরা বলেন, তাঁরা নিজেদের কাজ করছেন, এতে ধন্যবাদ দেওয়ার নেই। (PTI)
হোলির দিন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন রোহিতকে ফোন করেন। তিনি কুশল বিনিময় করে কেমন খাওয়া দাওয়া দিচ্ছে, তাও জিজ্ঞেস করেন রোহিতকে। এতে অভিভূত ৪৫ বছরের ব্যবসায়ী। রোহিত বলেন যে তিনি আম আদমি ও দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তাঁর খোজ নিচ্ছেন। হর্ষবর্ধন জানিয়েছেন তিনি ও প্রধানমন্ত্রী, প্রনত্যেক রোগীর বিষয় খেয়াল রাখছেন (Bloomberg)
6/6হোলির দিন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন রোহিতকে ফোন করেন। তিনি কুশল বিনিময় করে কেমন খাওয়া দাওয়া দিচ্ছে, তাও জিজ্ঞেস করেন রোহিতকে। এতে অভিভূত ৪৫ বছরের ব্যবসায়ী। রোহিত বলেন যে তিনি আম আদমি ও দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তাঁর খোজ নিচ্ছেন। হর্ষবর্ধন জানিয়েছেন তিনি ও প্রধানমন্ত্রী, প্রনত্যেক রোগীর বিষয় খেয়াল রাখছেন (Bloomberg)
অন্য গ্যালারিগুলি