বাংলা নিউজ > ছবিঘর > DC vs KKR: শাকিবকে কি বাদ দেওয়ার ঝুঁকি নেবে KKR? কোয়ালিফায়ারে সম্ভাব্য প্রথম একাদশ

DC vs KKR: শাকিবকে কি বাদ দেওয়ার ঝুঁকি নেবে KKR? কোয়ালিফায়ারে সম্ভাব্য প্রথম একাদশ

বুধবার (মহাষ্টমী) আইপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে নামছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর)। যে ম্যাচ জিতলেই তৃতীয়বার আইপিএল ফাইনালে প্রবেশের সুযোগ আছে। সেই ম্যাচে কি কেকেআর নিজেদের 'লাকি চার্ম' শাকিব আল হাসানকে প্রথম একাদশে রাখবে নাকি আন্দ্রে রাসেল ফিরতে চলেছেন? একনজরে দেখে নিন, প্লে-অফে কেকেআরের সম্ভাব্য প্রথম একাদশ -

শাকিবকে কি বাদ দেওয়ার ঝুঁকি নেবে KKR? কোয়ালিফায়ারে সম্ভাব্য প্রথম একাদশ। (ফাইল ছবি, সৌজন্য @KolkataKnightRiders)
1/12শাকিবকে কি বাদ দেওয়ার ঝুঁকি নেবে KKR? কোয়ালিফায়ারে সম্ভাব্য প্রথম একাদশ। (ফাইল ছবি, সৌজন্য @KolkataKnightRiders)
শুভমন গিল : প্লে-অফের আগেই ছন্দে ফিরেছেন। গ্রুপ লিগের শেষ দুটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে অর্ধশতরান করেছিলেন। এলিমিনেটরে ছোটো লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে দারুণ শুরু করেছিলেন নাইট ওপেনার। ১৮ বলে করেছিলেন ২৯ রান। যা কেকেআরের ভিত গড়ে দিয়েছিল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
2/12শুভমন গিল : প্লে-অফের আগেই ছন্দে ফিরেছেন। গ্রুপ লিগের শেষ দুটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে অর্ধশতরান করেছিলেন। এলিমিনেটরে ছোটো লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে দারুণ শুরু করেছিলেন নাইট ওপেনার। ১৮ বলে করেছিলেন ২৯ রান। যা কেকেআরের ভিত গড়ে দিয়েছিল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
ভেঙ্কটেশ আইয়ার : আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে কেকেআর যে ঘুরে দাঁড়িয়েছে, তার অনেকটা কৃতিত্ব ওপেনিং জুটির। শুভমন সাধারণ কিছুটা ধরে খেললেও দ্রুত রান তুলতে পারেন আইয়ার। ওপেনিংয়ে নির্ভরযোগ্য হয়ে উঠেছেন। এলিমিনেটরে বড় রান না করলেও উইকেট ছুড়ে দিয়ে শুরুতেই দলের উপর চাপ বাড়তে দেননি। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)  
3/12ভেঙ্কটেশ আইয়ার : আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে কেকেআর যে ঘুরে দাঁড়িয়েছে, তার অনেকটা কৃতিত্ব ওপেনিং জুটির। শুভমন সাধারণ কিছুটা ধরে খেললেও দ্রুত রান তুলতে পারেন আইয়ার। ওপেনিংয়ে নির্ভরযোগ্য হয়ে উঠেছেন। এলিমিনেটরে বড় রান না করলেও উইকেট ছুড়ে দিয়ে শুরুতেই দলের উপর চাপ বাড়তে দেননি। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)  
রাহুল ত্রিপাঠী : এলিমিনেটরে ব্যর্থ হয়েছেন। তবে আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেছেন। যা কেকেআরকে প্লে-অফে পৌঁছাতে সাহায্য করেছে। তবে আরও কিছুটা ধারাবাহিকতার প্রয়োজন আছে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
4/12রাহুল ত্রিপাঠী : এলিমিনেটরে ব্যর্থ হয়েছেন। তবে আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেছেন। যা কেকেআরকে প্লে-অফে পৌঁছাতে সাহায্য করেছে। তবে আরও কিছুটা ধারাবাহিকতার প্রয়োজন আছে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
নীতিশ রানা : আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে এখনও বড় ইনিংস খেলেননি। তবে গুরুত্বপূর্ণ রান করেছেন। এলিমিনেটরে চাপের মুখে ২৩ রান করেছিলেন। তবে কিছুটা অযাচিতভাবেই উইকেট ছুড়ে দিয়ে এসেছিলেন। সেই প্রবণতা কাটাতে হবে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
5/12নীতিশ রানা : আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে এখনও বড় ইনিংস খেলেননি। তবে গুরুত্বপূর্ণ রান করেছেন। এলিমিনেটরে চাপের মুখে ২৩ রান করেছিলেন। তবে কিছুটা অযাচিতভাবেই উইকেট ছুড়ে দিয়ে এসেছিলেন। সেই প্রবণতা কাটাতে হবে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
দীনেশ কার্তিক : তেমন ছন্দে নেই আইপিএলে। এলিনিটরে চাপের মুখে ব্যর্থ হয়েছেন। কেকেআরকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে পারেননি। তাও ইনিংস শেষ করার ক্ষেত্রে তাঁর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ হবে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)
6/12দীনেশ কার্তিক : তেমন ছন্দে নেই আইপিএলে। এলিনিটরে চাপের মুখে ব্যর্থ হয়েছেন। কেকেআরকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে পারেননি। তাও ইনিংস শেষ করার ক্ষেত্রে তাঁর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ হবে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)
ইয়ন মর্গ্যান : এবারের আইপিএলে একেবারে জঘন্যতম ফর্মে আছেন। প্রথম ১৪ ম্যাচে করেছিলেন মাত্র ১২৪ রান। গড় ছিল মাত্র ১২.৪। এলিমিনেটরে তো সাতে নেমেছিলেন। তবে সেই ম্যাচে প্রবল চাপের মুখে দলের জয় নিশ্চিত করেছিলেন। যা ব্যাটসম্যান মর্গ্যানকে ভরসা জোগাবে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
7/12ইয়ন মর্গ্যান : এবারের আইপিএলে একেবারে জঘন্যতম ফর্মে আছেন। প্রথম ১৪ ম্যাচে করেছিলেন মাত্র ১২৪ রান। গড় ছিল মাত্র ১২.৪। এলিমিনেটরে তো সাতে নেমেছিলেন। তবে সেই ম্যাচে প্রবল চাপের মুখে দলের জয় নিশ্চিত করেছিলেন। যা ব্যাটসম্যান মর্গ্যানকে ভরসা জোগাবে। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
শাকিব আল হাসান : এলিমিনেটরে ছয় বলে অপরাজিত ন'রানের ইনিংসের পর শাকিবকে বাদ দেওয়ার ঝুঁকি সম্ভবত নেবে না কেকেআর। চাপের মধ্যে থেকে দলকে জিতিয়েছিলেন। সেইসঙ্গে শারজার ঢিমেগতির পিচে তাঁর স্পিন বোলিংও যথেষ্ট কার্যকরী হয়েছে। ব্যাটসম্যানদের উপর চাপ তৈরি করেছে। যা স্বীকার করেছেন বিরাট কোহলিও। সেই পরিস্থিতিতে ম্যাচের আগে আন্দ্রে রাসেল পুরো ফিট হয়ে গেলেও বাংলাদেশি তারকাই সম্ভবত প্রথম একাদশে থাকছেন। (ফাইল ছবি, সৌজন্য আইপিএল)
8/12শাকিব আল হাসান : এলিমিনেটরে ছয় বলে অপরাজিত ন'রানের ইনিংসের পর শাকিবকে বাদ দেওয়ার ঝুঁকি সম্ভবত নেবে না কেকেআর। চাপের মধ্যে থেকে দলকে জিতিয়েছিলেন। সেইসঙ্গে শারজার ঢিমেগতির পিচে তাঁর স্পিন বোলিংও যথেষ্ট কার্যকরী হয়েছে। ব্যাটসম্যানদের উপর চাপ তৈরি করেছে। যা স্বীকার করেছেন বিরাট কোহলিও। সেই পরিস্থিতিতে ম্যাচের আগে আন্দ্রে রাসেল পুরো ফিট হয়ে গেলেও বাংলাদেশি তারকাই সম্ভবত প্রথম একাদশে থাকছেন। (ফাইল ছবি, সৌজন্য আইপিএল)
সুনীল নারিন : আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে খুব খারাপ ছন্দে ছিলেন না। এলিমিনেটরে একেবারে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছেন। প্লে-অফের 'অভিশাপ' কাটিয়ে চার উইকেট নিয়ে একাই রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের (আরসিবি) মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছিলেন। আউট করেছিলেন কে এস ভরত, বিরাট, এবি ডি'ভিলিয়ার্স এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে। চার ওভারে ২১ রান দিয়েছিলেন। তারপর যথন স্নায়ুর চাপ বাড়ছিল, তথন ব্যাট হাতে ১৫ বলে ২৬ রান করেছিলেন। যে ইনিংস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। প্রথম তিন বলে তিন ছক্কা মেরেছিলেন। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
9/12সুনীল নারিন : আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে খুব খারাপ ছন্দে ছিলেন না। এলিমিনেটরে একেবারে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছেন। প্লে-অফের 'অভিশাপ' কাটিয়ে চার উইকেট নিয়ে একাই রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের (আরসিবি) মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছিলেন। আউট করেছিলেন কে এস ভরত, বিরাট, এবি ডি'ভিলিয়ার্স এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে। চার ওভারে ২১ রান দিয়েছিলেন। তারপর যথন স্নায়ুর চাপ বাড়ছিল, তথন ব্যাট হাতে ১৫ বলে ২৬ রান করেছিলেন। যে ইনিংস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। প্রথম তিন বলে তিন ছক্কা মেরেছিলেন। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
লকি ফার্গুসন : আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে কেকেআরের ছন্দে ফেরার অন্যতম কারিগর হলেন কিউয়ি পেসার। দলের পেস বিভাগকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এলিমিনেটরে বিরাট কোহলিরা দুর্দান্ত শুরু করার পর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে প্রথম ধাক্কাটা দিয়েছিলেন ফার্গুসনই। শেষপর্যন্ত চার ওভারে ৩০ রান দিয়ে নিয়েছিলেন দুটি উইকেট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য আইপিএল)
10/12লকি ফার্গুসন : আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগে কেকেআরের ছন্দে ফেরার অন্যতম কারিগর হলেন কিউয়ি পেসার। দলের পেস বিভাগকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এলিমিনেটরে বিরাট কোহলিরা দুর্দান্ত শুরু করার পর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে প্রথম ধাক্কাটা দিয়েছিলেন ফার্গুসনই। শেষপর্যন্ত চার ওভারে ৩০ রান দিয়ে নিয়েছিলেন দুটি উইকেট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য আইপিএল)
বরুণ চক্রবর্তী : এবারের আইপিএলে এখনও পর্যন্ত কেকেআরের অন্যতম সেরা ভরসাযোগ্য অস্ত্র। এলিমিনেটরে কোনও উইকেট না পেলেও চার ওভারে দিয়েছিলেন মাত্র ২০ রান। যা বিরাটদের মিডল-অর্ডারের উপর প্রবল চাপ তৈরি করেছিল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য আইপিএল)
11/12বরুণ চক্রবর্তী : এবারের আইপিএলে এখনও পর্যন্ত কেকেআরের অন্যতম সেরা ভরসাযোগ্য অস্ত্র। এলিমিনেটরে কোনও উইকেট না পেলেও চার ওভারে দিয়েছিলেন মাত্র ২০ রান। যা বিরাটদের মিডল-অর্ডারের উপর প্রবল চাপ তৈরি করেছিল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য আইপিএল)
শিবম মাভি : এলিমিনেটরে বেশ মার খেয়েছিলেন। চার ওভারে দিয়েছিলেন ৩৬ রান। পাননি কোনও উইকেট। তবে আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগের তিনটি গ্রুপ লিগের ম্যাচে সাত উইকেট নিয়েছিলেন। সেই কারণে তাঁকে প্রথম একাদশে রেখে দেওয়ার সুযোগ প্রবল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য আইপিএল)
12/12শিবম মাভি : এলিমিনেটরে বেশ মার খেয়েছিলেন। চার ওভারে দিয়েছিলেন ৩৬ রান। পাননি কোনও উইকেট। তবে আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগের তিনটি গ্রুপ লিগের ম্যাচে সাত উইকেট নিয়েছিলেন। সেই কারণে তাঁকে প্রথম একাদশে রেখে দেওয়ার সুযোগ প্রবল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য আইপিএল)
অন্য গ্যালারিগুলি