বাংলা নিউজ > ছবিঘর > প্রায় দেড় মাসের লকডাউনে সংক্রমণের হার ৩৬ থেকে কমে ১.৫%, আনলকের ঘোষণা দিল্লিতে

প্রায় দেড় মাসের লকডাউনে সংক্রমণের হার ৩৬ থেকে কমে ১.৫%, আনলকের ঘোষণা দিল্লিতে

  • প্রায় দেড় মাসের লকডাউনের পর আগামী সোমবার থেকে আনলকের পথে হাঁটছে দিল্লি। এপ্রিলের মাঝামাঝি দিল্লিতে করোনা সংক্রমণ ৩০ শতাংশ ছাড়িয়ে গিয়েছিল। তার জেরে লকডাউনের পথে হেঁটেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। কিন্তু এখন সেই সংক্রমণের হার কমে যাওয়ায় আনলকের ঘোষণা করলেন তিনি।
নিয়্ন্ত্রণে এসেছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ। তাই আগামী ৩১ মে থেকে দিল্লিতে ধাপে ধাপে 'আনলক' প্রক্রিয়া শুরু হতে চলেছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
1/6নিয়্ন্ত্রণে এসেছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ। তাই আগামী ৩১ মে থেকে দিল্লিতে ধাপে ধাপে 'আনলক' প্রক্রিয়া শুরু হতে চলেছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
শুক্রবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, ধীরে ধীরে সব গতিবিধি স্বাভাবিক হবে। আপাতত বিধিনিষেধ এবং ছাড়ের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
2/6শুক্রবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, ধীরে ধীরে সব গতিবিধি স্বাভাবিক হবে। আপাতত বিধিনিষেধ এবং ছাড়ের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
দিনমজুর থেকে কথা মাথায় রেখে সোমবার থেকে শুধু নির্মাণ কাজ এবং কারখানা চালু রাখার ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
3/6দিনমজুর থেকে কথা মাথায় রেখে সোমবার থেকে শুধু নির্মাণ কাজ এবং কারখানা চালু রাখার ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, বাকি সবকিছু বন্ধ থাকবে। সঙ্গে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া দিল্লিবাসীকে বাড়ি থেকে বের না হওয়ারও আর্জি জানিয়েছেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
4/6কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, বাকি সবকিছু বন্ধ থাকবে। সঙ্গে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া দিল্লিবাসীকে বাড়ি থেকে বের না হওয়ারও আর্জি জানিয়েছেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
কেজরিওয়াল জানান, দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ কমছে। বৃহস্পতিবার ১,১০০ জনের মতো নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। সংক্রমণের হার ১.৫ শতাংশে নেমে গিয়েছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
5/6কেজরিওয়াল জানান, দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ কমছে। বৃহস্পতিবার ১,১০০ জনের মতো নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। সংক্রমণের হার ১.৫ শতাংশে নেমে গিয়েছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
গত ২২ এপ্রিল দিল্লিতে সংক্রমণের হার ছিল ৩৬ শতাংশ। দেড় মাসের মতো লকডাউনের পর সেই হার ১.৫ শতাংশে এসে ঠেকেছে। গত ২০ এপ্রিল দিল্লিতে প্রায় ২৯,০০০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
6/6গত ২২ এপ্রিল দিল্লিতে সংক্রমণের হার ছিল ৩৬ শতাংশ। দেড় মাসের মতো লকডাউনের পর সেই হার ১.৫ শতাংশে এসে ঠেকেছে। গত ২০ এপ্রিল দিল্লিতে প্রায় ২৯,০০০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
অন্য গ্যালারিগুলি