বাংলা নিউজ > ছবিঘর > ‘নিয়ম কানুন সর্বনেশে’, থাইল্যান্ডের খাবারের মেনু শুনলে আপনিও ঠিক এই কথাই বলবেন!

‘নিয়ম কানুন সর্বনেশে’, থাইল্যান্ডের খাবারের মেনু শুনলে আপনিও ঠিক এই কথাই বলবেন!

  • খেতে বসে বুঝলেন খাবারে পোকা পড়েছে! ব্যস আপনার খাওয়ার ইচ্ছেটাই গায়েব হয়ে গেল। কিন্তু, জানেন কি আপনি যেই পোকাগুলোকে দেখলে নাক সিঁটকান, সেগুলোই কোনও কোনও দেশের বেশ জনপ্রিয় ও দামি ডিশ!
আরশোলা বা তেলাপোকার নাম শুনলেই নিশ্চয়ই আপনার গা কেমন গুলিয়ে ওঠে। কিন্তু সেটার চাটনি থাইল্যান্ডের সুখুমবিট জেলার বাসিন্দাদের বড়ই প্রিয় খাবার। আরও জানেন কি, ওখানে গুবরে পোকার তরকারি ছাড়া অতিথি আপ্যায়ন হয় না। বাজারেই বিক্রি হয় এই গুবরে পোকা আর আরশোলা। এবং, দামও বেশ ভালোই। 
1/5আরশোলা বা তেলাপোকার নাম শুনলেই নিশ্চয়ই আপনার গা কেমন গুলিয়ে ওঠে। কিন্তু সেটার চাটনি থাইল্যান্ডের সুখুমবিট জেলার বাসিন্দাদের বড়ই প্রিয় খাবার। আরও জানেন কি, ওখানে গুবরে পোকার তরকারি ছাড়া অতিথি আপ্যায়ন হয় না। বাজারেই বিক্রি হয় এই গুবরে পোকা আর আরশোলা। এবং, দামও বেশ ভালোই। 
ব্যাংককের অদূরে স্যামুট প্রকার্ন এলাকায় গুসানেস ডি মেগুয়ে নামের এক ধরনের পোকার শূককীট দিয়ে বাড়িতে আসে অতিথিদের অপ্যায়ন করে। এমনকী, রেস্তোঁরাতেও খুব জনপ্রিয় এই খাবার। থাই গ্রামবাসীরা বিভিন্ন গাছের পাতা থেকে শুঁয়োপোকা সংগ্রহ করে প্রতিদিন সকালে সেগুলো বিক্রি করে মাছের মতো। আর সেগুলোকে কখনও কাঁচা তো কখনও তরকারি রান্না করে খাওয়া হয়। 
2/5ব্যাংককের অদূরে স্যামুট প্রকার্ন এলাকায় গুসানেস ডি মেগুয়ে নামের এক ধরনের পোকার শূককীট দিয়ে বাড়িতে আসে অতিথিদের অপ্যায়ন করে। এমনকী, রেস্তোঁরাতেও খুব জনপ্রিয় এই খাবার। থাই গ্রামবাসীরা বিভিন্ন গাছের পাতা থেকে শুঁয়োপোকা সংগ্রহ করে প্রতিদিন সকালে সেগুলো বিক্রি করে মাছের মতো। আর সেগুলোকে কখনও কাঁচা তো কখনও তরকারি রান্না করে খাওয়া হয়। 
স্যুরিনের রাস্তাঘাটের রেস্তোরাঁ ও টং দোকানে একটি বিশেষ রুটি খুব জনপ্রিয়। পতঙ্গ রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে বানানো হয় পাউডার। তা-ই দিয়ে বানানো হয় এই রুটি। যা খেতে বেশ ভালোবাসেন সেখানকার মানুষ। হোটেল ও রেস্তোরাঁর মেন্যুতে পাওয়া যায় মৌমাছির শূককীট, মথ, কাঠ ছিদ্রকারী ঘুনপোকার স্যুপ। যার দাম আকাশছোঁয়া। 
3/5স্যুরিনের রাস্তাঘাটের রেস্তোরাঁ ও টং দোকানে একটি বিশেষ রুটি খুব জনপ্রিয়। পতঙ্গ রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে বানানো হয় পাউডার। তা-ই দিয়ে বানানো হয় এই রুটি। যা খেতে বেশ ভালোবাসেন সেখানকার মানুষ। হোটেল ও রেস্তোরাঁর মেন্যুতে পাওয়া যায় মৌমাছির শূককীট, মথ, কাঠ ছিদ্রকারী ঘুনপোকার স্যুপ। যার দাম আকাশছোঁয়া। 
ভারত-বাংলাদেশ যে পঙ্গপালের হামলায় বিপর্যস্ত, সেই পঙ্গপাল খেতে পছন্দ করেন থাইবাসীরা। তাঁদের খুব প্রিয় ও মুখরোচক খাবার হল পঙ্গপালের আচার। পঙ্গপাল ধরে ওরা আচার তৈরি করে কৌটায় ভরে তা সংরক্ষণ করে রাখে। 
4/5ভারত-বাংলাদেশ যে পঙ্গপালের হামলায় বিপর্যস্ত, সেই পঙ্গপাল খেতে পছন্দ করেন থাইবাসীরা। তাঁদের খুব প্রিয় ও মুখরোচক খাবার হল পঙ্গপালের আচার। পঙ্গপাল ধরে ওরা আচার তৈরি করে কৌটায় ভরে তা সংরক্ষণ করে রাখে। 
ভাবছেন এগুলো আবার কী? আজ্ঞে, পিঁপড়ের ডিম। স্যুরিনের রেস্তোরাঁগুলোতে ঢুকে ওয়েটারের সামনে একবার ‘মাতাওয়ান’ শব্দটা উচ্চারণ করলেই হয়েছে। ওয়েটার সঙ্গে সঙ্গে আপনার সামনে হাজির করবে এক বাটি পিঁপড়ার স্যুপ। আর পকেটে পয়সা থাকলে খেতে পারেন পিঁপড়ের ডিমের মন মাতানো নানা খাবার। 
5/5ভাবছেন এগুলো আবার কী? আজ্ঞে, পিঁপড়ের ডিম। স্যুরিনের রেস্তোরাঁগুলোতে ঢুকে ওয়েটারের সামনে একবার ‘মাতাওয়ান’ শব্দটা উচ্চারণ করলেই হয়েছে। ওয়েটার সঙ্গে সঙ্গে আপনার সামনে হাজির করবে এক বাটি পিঁপড়ার স্যুপ। আর পকেটে পয়সা থাকলে খেতে পারেন পিঁপড়ের ডিমের মন মাতানো নানা খাবার। 
অন্য গ্যালারিগুলি