বাংলা নিউজ > ছবিঘর > ইলেকট্রিকেও চলবে, পেট্রোলেও চলবে! হাইব্রিড বাইক বানালেন ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়ারা

ইলেকট্রিকেও চলবে, পেট্রোলেও চলবে! হাইব্রিড বাইক বানালেন ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়ারা

  • এটি এক চার্জে ৪০ কিলোমিটার দৌড়তে পারে। আবার তারপরে চাইলে এতে পেট্রোল ভরেও দিব্যি চালানো যাবে।
ব্যাটারিচালিত টু হুইলার কেনার সময়ে প্রথমেই মাথায় আসে রেঞ্জ। এক চার্জে কতটা যেতে পারব? মাঝ রাস্তায় চার্জ শেষ হয়ে গেলে? এবার তারই সমাধান করলেন একদল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া। এমন এক মোটরসাইকেল তৈরি করলেন যা ব্যাটারির পাশাপাশি পেট্রোলেও চলবে। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
1/5ব্যাটারিচালিত টু হুইলার কেনার সময়ে প্রথমেই মাথায় আসে রেঞ্জ। এক চার্জে কতটা যেতে পারব? মাঝ রাস্তায় চার্জ শেষ হয়ে গেলে? এবার তারই সমাধান করলেন একদল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া। এমন এক মোটরসাইকেল তৈরি করলেন যা ব্যাটারির পাশাপাশি পেট্রোলেও চলবে। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
রাজকোটের ভিভিপি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের পড়ুয়ারা এই মোটরবাইক তৈরি করেছেন। সপ্তম সেমিস্টারের ছাত্রছাত্রীরা এই বাইকটি তৈরি করেছেন। হোন্ডার বাইককে মডিফাই করে এটি তৈরি করা হয়েছে। এটি এক চার্জে ৪০ কিলোমিটার দৌড়তে পারে। আবার তারপরে চাইলে এতে পেট্রোল ভরেও দিব্যি চালানো যাবে। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
2/5রাজকোটের ভিভিপি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের পড়ুয়ারা এই মোটরবাইক তৈরি করেছেন। সপ্তম সেমিস্টারের ছাত্রছাত্রীরা এই বাইকটি তৈরি করেছেন। হোন্ডার বাইককে মডিফাই করে এটি তৈরি করা হয়েছে। এটি এক চার্জে ৪০ কিলোমিটার দৌড়তে পারে। আবার তারপরে চাইলে এতে পেট্রোল ভরেও দিব্যি চালানো যাবে। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
মেকানিকাল বিভাগের ডিন ডঃ মনিয়ার এএনআই-কে জানান, 'এটা তৈরির মূল কারণ হল জ্বালানির ক্রমবর্ধমান দাম। ই-যানবাহনগুলির এখনও দাম বেশি। এছাড়া রেঞ্জ, ফাস্ট চার্জিংয়ের অভাবের মতো সমস্যাগুলি রয়েছে। তাই আমরা এমন কিছু তৈরি করতে চেয়েছিলাম যাতে প্রয়োজন অনুযায়ী দুটিই ব্যবহার করা যায়।' ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
3/5মেকানিকাল বিভাগের ডিন ডঃ মনিয়ার এএনআই-কে জানান, 'এটা তৈরির মূল কারণ হল জ্বালানির ক্রমবর্ধমান দাম। ই-যানবাহনগুলির এখনও দাম বেশি। এছাড়া রেঞ্জ, ফাস্ট চার্জিংয়ের অভাবের মতো সমস্যাগুলি রয়েছে। তাই আমরা এমন কিছু তৈরি করতে চেয়েছিলাম যাতে প্রয়োজন অনুযায়ী দুটিই ব্যবহার করা যায়।' ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
'এতে চারটি ব্যাটারি প্যাক ব্যবহার করা হয়েছে। ব্যাটারিটি সম্পূর্ণ চার্জ হতে মোট ৬ ঘণ্টা সময় নেয়। একবার চার্জ দিলে টানা ৪০ কিলোমিটার চলবে এই ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল। সর্বোচ্চ গতিবেগ ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা,' জানিয়েছেন ডঃ মনিয়ার। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
4/5'এতে চারটি ব্যাটারি প্যাক ব্যবহার করা হয়েছে। ব্যাটারিটি সম্পূর্ণ চার্জ হতে মোট ৬ ঘণ্টা সময় নেয়। একবার চার্জ দিলে টানা ৪০ কিলোমিটার চলবে এই ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল। সর্বোচ্চ গতিবেগ ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা,' জানিয়েছেন ডঃ মনিয়ার। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
তিনি জানান, দুটি মোডের জন্য সুইচ রয়েছে। রাইডার চালানোর সময়ে ব্যাটারি মোড বা পেট্রোল মোড আগে থেকে বেছে নিতে পারবেন। কাছেপিঠে চালানোর জন্য ব্যাটারি মোড ব্যবহার করা যাবে। খরচও বেশ কম হবে। এদিকে দূরে গেলে ৪০ কিলোমিটার যাওয়ার পর পেট্রোল মোড অন করে নিলেই হবে। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
5/5তিনি জানান, দুটি মোডের জন্য সুইচ রয়েছে। রাইডার চালানোর সময়ে ব্যাটারি মোড বা পেট্রোল মোড আগে থেকে বেছে নিতে পারবেন। কাছেপিঠে চালানোর জন্য ব্যাটারি মোড ব্যবহার করা যাবে। খরচও বেশ কম হবে। এদিকে দূরে গেলে ৪০ কিলোমিটার যাওয়ার পর পেট্রোল মোড অন করে নিলেই হবে। ফাইল ছবি : এএনআই (ANI)
অন্য গ্যালারিগুলি