বাংলা নিউজ > ছবিঘর > KKR vs PBKS: শেষ ৫ ওভারে হতশ্রী ব্যাটিং, মর্গ্যানের ক্যাচ ফস্কানো - একনজরে KKR-র হারের কারণ

KKR vs PBKS: শেষ ৫ ওভারে হতশ্রী ব্যাটিং, মর্গ্যানের ক্যাচ ফস্কানো - একনজরে KKR-র হারের কারণ

  • পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে পাঁচ উইকেটে হেরে গেল কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর)। অথচ একটা সময় রীতিমতো দাপট দেখাচ্ছিলেন ভেঙ্কটেশ আইয়ার এবং রাহুল ত্রিপাঠী। কোন কোন কারণে কেকেআরকে হারের মুখ দেখতে হল, জেনে নিন একনজরে -
শেষ পাঁচ ওভারে হতশ্রী ব্যাটিং : বাড়তি ব্যাটসম্যান খেলানো হল। ১৮০ রান তোলার জায়গায় ছিল। তারপরও শেষ পাঁচ ওভারে মাত্র ৪৪ রান তুলেছে কেকেআর। হারিয়েছে চার উইকেট। সেখানেই ম্যাচে ফেরে পঞ্জাব। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
1/5শেষ পাঁচ ওভারে হতশ্রী ব্যাটিং : বাড়তি ব্যাটসম্যান খেলানো হল। ১৮০ রান তোলার জায়গায় ছিল। তারপরও শেষ পাঁচ ওভারে মাত্র ৪৪ রান তুলেছে কেকেআর। হারিয়েছে চার উইকেট। সেখানেই ম্যাচে ফেরে পঞ্জাব। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
ইয়ন মর্গ্যানের জঘন্য ফর্ম : খাতায়কলমে দলের সেরা ব্যাটসম্যান। কিন্তু এবারের আইপিএলে চূড়ান্ত অফ-ফর্মে আছেন। শুক্রবার পাঁচ নম্বরে নেমে দু'বলে দু'রান করলেন। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
2/5ইয়ন মর্গ্যানের জঘন্য ফর্ম : খাতায়কলমে দলের সেরা ব্যাটসম্যান। কিন্তু এবারের আইপিএলে চূড়ান্ত অফ-ফর্মে আছেন। শুক্রবার পাঁচ নম্বরে নেমে দু'বলে দু'রান করলেন। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
শুরুতেই মায়াঙ্ক আগরওয়ালের ক্যাচ ফস্কানো : ব্যাটিংয়ে দলকে ডোবাচ্ছেন। ফিল্ডিংয়েও নাইটদের ডোবালেন। পঞ্জাব ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই মায়াঙ্কের ক্যাচ ফস্কান ইয়ন মর্গ্যান। শেষপর্যন্ত যে মায়াঙ্কই পঞ্জাবের ভিত গড়ে দেন। করেন ২৭ বলে ৪০ রান। প্রথম উইকেটে মাত্র ৫৩ বলে ৭০ রান জোড়েন কে এল রাহুল এনং মায়াঙ্ক। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
3/5শুরুতেই মায়াঙ্ক আগরওয়ালের ক্যাচ ফস্কানো : ব্যাটিংয়ে দলকে ডোবাচ্ছেন। ফিল্ডিংয়েও নাইটদের ডোবালেন। পঞ্জাব ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই মায়াঙ্কের ক্যাচ ফস্কান ইয়ন মর্গ্যান। শেষপর্যন্ত যে মায়াঙ্কই পঞ্জাবের ভিত গড়ে দেন। করেন ২৭ বলে ৪০ রান। প্রথম উইকেটে মাত্র ৫৩ বলে ৭০ রান জোড়েন কে এল রাহুল এনং মায়াঙ্ক। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
চার বোলারে খেলার নীতি : চার বোলার খেলানোর সিদ্ধান্ত এমনিতেই ঝুঁকিপূর্ণ। তারপর সেই নীতিতে খেলতে হলে বোলারদের হাতে বড় রান দিতে হয়। সেটা পারেননি নাইট ব্যাটসম্যানরা। বরুণ চক্রবর্তী ছাড়া বোলাররাও সেভাবে দাগ কাটতে পারেননি। সুনীল নারিন চার ওভারে ৩৪ রান দেন। বাকিরাও আহামরি বল করেননি। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
4/5চার বোলারে খেলার নীতি : চার বোলার খেলানোর সিদ্ধান্ত এমনিতেই ঝুঁকিপূর্ণ। তারপর সেই নীতিতে খেলতে হলে বোলারদের হাতে বড় রান দিতে হয়। সেটা পারেননি নাইট ব্যাটসম্যানরা। বরুণ চক্রবর্তী ছাড়া বোলাররাও সেভাবে দাগ কাটতে পারেননি। সুনীল নারিন চার ওভারে ৩৪ রান দেন। বাকিরাও আহামরি বল করেননি। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
গুরুত্বপূর্ণ সময় ক্যাচ ফস্কানো : ম্যাচ থেকে কার্যত হারিয়ে গেলেও কেকেআরের সামনে প্রত্যাবর্তনের সুযোগ এসেছিল। শেষ লগ্নে বাউন্ডারি লাইনে ক্যাচ ফস্কান ভেঙ্কটেশ আইয়ার। ছক্কা হয়। একইভাবে যে শটে শাহরুখ খান পঞ্জাবকে জিতিয়েছেন, তাতেও ক্যাচ ফস্কান রাহুল ত্রিপাঠী। যা শেষপর্যন্ত ছক্কা হয়। সেই ক্যাচ দুটি ধরতে পারলে পঞ্জাবের ইনিংসে কাঁপুনি ধরে যেত। বিশেষত শেষ ওভারে পরপর দুটি উইকেট হারালে চাপে পড়ে যেত পঞ্জাব। সেখান থেকে জিততে পারত কেকেআর। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
5/5গুরুত্বপূর্ণ সময় ক্যাচ ফস্কানো : ম্যাচ থেকে কার্যত হারিয়ে গেলেও কেকেআরের সামনে প্রত্যাবর্তনের সুযোগ এসেছিল। শেষ লগ্নে বাউন্ডারি লাইনে ক্যাচ ফস্কান ভেঙ্কটেশ আইয়ার। ছক্কা হয়। একইভাবে যে শটে শাহরুখ খান পঞ্জাবকে জিতিয়েছেন, তাতেও ক্যাচ ফস্কান রাহুল ত্রিপাঠী। যা শেষপর্যন্ত ছক্কা হয়। সেই ক্যাচ দুটি ধরতে পারলে পঞ্জাবের ইনিংসে কাঁপুনি ধরে যেত। বিশেষত শেষ ওভারে পরপর দুটি উইকেট হারালে চাপে পড়ে যেত পঞ্জাব। সেখান থেকে জিততে পারত কেকেআর। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
অন্য গ্যালারিগুলি