সোরেনকে অভিনন্দন মোদী-মমতার, বিজেপির বিরুদ্ধে জোটবদ্ধ হওয়ার বার্তা চিদম্বরমের

ইঙ্গিত মিলেছিল বুথফেরত সমীক্ষাতেই। আর সেটাই হল। বি... more

দুপুর পর্যন্ত হাড্ডাহাড্ডি চলছিল লড়াই। দুপুরের পর ট্রেন্ড কিছুটা স্পষ্ট হতেই রাস্তায় নেমে পড়েন ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার সমর্থকরা। বাজি ফাটিয়ে শুরু হয় উৎসব। চলে মিষ্টিমুখ। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
1/10দুপুর পর্যন্ত হাড্ডাহাড্ডি চলছিল লড়াই। দুপুরের পর ট্রেন্ড কিছুটা স্পষ্ট হতেই রাস্তায় নেমে পড়েন ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার সমর্থকরা। বাজি ফাটিয়ে শুরু হয় উৎসব। চলে মিষ্টিমুখ। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
দিল্লিতে শুনশান বিজেপির প্রধান কার্যালয়।(ছবি সৌজন্য পিটিআই)
2/10দিল্লিতে শুনশান বিজেপির প্রধান কার্যালয়।(ছবি সৌজন্য পিটিআই)
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী : ঝাড়খণ্ডের নির্বাচনে জেতার জন্য হেমন্ত সোরেনজি ও জেএমএমের নেতৃত্বাধীন জোটকে অভিনন্দন। রাজ্যের সেবা করার জন্য শুভ কামনা রইল। অনেক বছর ধরে বিজেপিকে রাজ্যের সেবা করার সুযোগ দেওয়ার জন্য ঝাড়খণ্ডের মানুষকে ধন্যবাদ। কঠোর পরিশ্রমের জন্য কর্মকর্তাদের প্রশংসা প্রাপ্য। আমরা রাজ্যের সেবা করতে থাকব ও আগামীদিনে মানুষের বিভিন্ন বিষয়গুলি তুলে ধরব। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
3/10প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী : ঝাড়খণ্ডের নির্বাচনে জেতার জন্য হেমন্ত সোরেনজি ও জেএমএমের নেতৃত্বাধীন জোটকে অভিনন্দন। রাজ্যের সেবা করার জন্য শুভ কামনা রইল। অনেক বছর ধরে বিজেপিকে রাজ্যের সেবা করার সুযোগ দেওয়ার জন্য ঝাড়খণ্ডের মানুষকে ধন্যবাদ। কঠোর পরিশ্রমের জন্য কর্মকর্তাদের প্রশংসা প্রাপ্য। আমরা রাজ্যের সেবা করতে থাকব ও আগামীদিনে মানুষের বিভিন্ন বিষয়গুলি তুলে ধরব। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
অমিত শাহ : ঝাড়খণ্ডের জনাদেশকে সম্মান করি আমরা। পাঁচ বছর ধরে রাজ্যের সেবা করতে দেওয়ার জন্য আমরা জনতাকে হৃদয় থেকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। রাজ্যের উন্নয়নের জন্য বিজেপি সবসময় নিয়োজিত থাকবে। তাঁদের পরিশ্রমের জন্য সকল কর্মকর্তাকে অভিনন্দন। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
4/10অমিত শাহ : ঝাড়খণ্ডের জনাদেশকে সম্মান করি আমরা। পাঁচ বছর ধরে রাজ্যের সেবা করতে দেওয়ার জন্য আমরা জনতাকে হৃদয় থেকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। রাজ্যের উন্নয়নের জন্য বিজেপি সবসময় নিয়োজিত থাকবে। তাঁদের পরিশ্রমের জন্য সকল কর্মকর্তাকে অভিনন্দন। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
বিদায়ি মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস : এটা আমার পরাজয়, বিজেপির নয়। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
5/10বিদায়ি মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস : এটা আমার পরাজয়, বিজেপির নয়। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
হেমন্ত সোরেন : জনাদেশের জন্য ঝাড়খণ্ডের মানুষের কাছে ধন্য। আমাকে সমর্থন ও বিশ্বাস করার জন্য লালুজি, সোনিয়াজি, রাহুলজি, প্রিয়ঙ্কাজি ও সব কংগ্রেস নেতাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আজ রাজ্যের নতুন অধ্যায় শুরু হবে। আমি আশ্বস্ত করতে চাই, ধর্ম-বর্ণ-পেশা-জাতির ভিত্তিতে কারোর আশাভঙ্গ করা হবে না।(ছবি সৌজন্য পিটিআই)
6/10হেমন্ত সোরেন : জনাদেশের জন্য ঝাড়খণ্ডের মানুষের কাছে ধন্য। আমাকে সমর্থন ও বিশ্বাস করার জন্য লালুজি, সোনিয়াজি, রাহুলজি, প্রিয়ঙ্কাজি ও সব কংগ্রেস নেতাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আজ রাজ্যের নতুন অধ্যায় শুরু হবে। আমি আশ্বস্ত করতে চাই, ধর্ম-বর্ণ-পেশা-জাতির ভিত্তিতে কারোর আশাভঙ্গ করা হবে না।(ছবি সৌজন্য পিটিআই)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় : জয়ের জন্য হেমন্ত সোরেনজি, আরজেডি ও কংগ্রেসকে অভিনন্দন। নিজেদের আকাঙ্খা পূরণের জন্য মানুষ আপনাদের উপর ভরসা করেছেন। ঝাড়খণ্ডের ভাইবোনেদের শুভ কামনা। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বিরুদ্ধে প্রতিবাদের সময় ভোট হয়েছিল। এটা নাগরিকের পক্ষে রায়। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
7/10মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় : জয়ের জন্য হেমন্ত সোরেনজি, আরজেডি ও কংগ্রেসকে অভিনন্দন। নিজেদের আকাঙ্খা পূরণের জন্য মানুষ আপনাদের উপর ভরসা করেছেন। ঝাড়খণ্ডের ভাইবোনেদের শুভ কামনা। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বিরুদ্ধে প্রতিবাদের সময় ভোট হয়েছিল। এটা নাগরিকের পক্ষে রায়। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী : হেমন্ত সোরেনজি অভিনন্দন। খুব ভালো লড়াই এটা। আবার প্রমাইত হল, আঞ্চলিক দলকে হেয় করা উচিত নয়। (ছবি সৌজন্য টুইটার @priyankac19)
8/10প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী : হেমন্ত সোরেনজি অভিনন্দন। খুব ভালো লড়াই এটা। আবার প্রমাইত হল, আঞ্চলিক দলকে হেয় করা উচিত নয়। (ছবি সৌজন্য টুইটার @priyankac19)
শরদ পাওয়ার : ঝাড়খণ্ডের ফল প্রমাণ করল মানুষ অ-বিজেপি দলের সঙ্গে রয়েছেন। রাজস্থান, ছত্তিশগড়, মহারাষ্ট্রের পর ঝাড়খণ্ডেও মানুষ বিজেপিকে ক্ষমতা থেকে দূরে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
9/10শরদ পাওয়ার : ঝাড়খণ্ডের ফল প্রমাণ করল মানুষ অ-বিজেপি দলের সঙ্গে রয়েছেন। রাজস্থান, ছত্তিশগড়, মহারাষ্ট্রের পর ঝাড়খণ্ডেও মানুষ বিজেপিকে ক্ষমতা থেকে দূরে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
পি চিদম্বরম : হরিয়ানায় পর্যদুস্ত, মহারাষ্ট্রে বঞ্চিত, ঝাড়খণ্ডে পরাজিত। ২০১৯ সালে এটাই বিজেপির গল্প। সকল অ-বিজেপি দলগুলি নিজেদের আরও এগিয়ে আনুন ও ভারতের সংবিধান রক্ষার জন্য কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মেলান। (ছবি সৌজন্য পিটিআই) ( )
10/10পি চিদম্বরম : হরিয়ানায় পর্যদুস্ত, মহারাষ্ট্রে বঞ্চিত, ঝাড়খণ্ডে পরাজিত। ২০১৯ সালে এটাই বিজেপির গল্প। সকল অ-বিজেপি দলগুলি নিজেদের আরও এগিয়ে আনুন ও ভারতের সংবিধান রক্ষার জন্য কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মেলান। (ছবি সৌজন্য পিটিআই) ( )
অন্য গ্যালারিগুলি