বাংলা নিউজ > ছবিঘর > জেলবন্দি রিয়া নিয়মিত যোগা শেখাতেন মহিলা কারাগারের অন্য বন্দিদের : আইনজীবী

জেলবন্দি রিয়া নিয়মিত যোগা শেখাতেন মহিলা কারাগারের অন্য বন্দিদের : আইনজীবী

  • ৮ সেপ্টেম্বর এনসিবির হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর ৯ তারিখ বাইকুল্লা জেলে পাঠানো হয় সুশান্ত মামলার মূল অভিযুক্ত। সেখানে একটানা ২৭ দিন কীভাবে কাটল রিয়ার ? 
প্রায় এক মাস বাইকুল্লা জেলে বন্দি থাকার পর গতকালই বম্বে হাইকোর্টের রায়ে শর্তসাপেক্ষে জামিন পেয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। সুশান্ত মৃত্যু মামলার সঙ্গে জড়িত মাদককাণ্ডে এনসিবির হাতে গত ৮ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার হয়েছিলেন রিয়া। জেলে কীভাবে কেটেছে রিয়ার ২৭টা দিন? 
1/10প্রায় এক মাস বাইকুল্লা জেলে বন্দি থাকার পর গতকালই বম্বে হাইকোর্টের রায়ে শর্তসাপেক্ষে জামিন পেয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। সুশান্ত মৃত্যু মামলার সঙ্গে জড়িত মাদককাণ্ডে এনসিবির হাতে গত ৮ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার হয়েছিলেন রিয়া। জেলে কীভাবে কেটেছে রিয়ার ২৭টা দিন? 
রিয়ার আইনজীবী সতীশ মানেসিন্ধে জানিয়েছেন রিয়া বাস্তব জীবনে ‘বেঙ্গল টাইগ্রেস’ এবং সে নিজের নষ্ট ভাবমূর্তি শুধরে নেবে বিশ্বাস তাঁর। সুশান্তের পরিবার ইচ্ছাকৃতভাবে ‘প্রতিহিংসা পরায়ণ’ আচরণ করছে রিয়ার সঙ্গে অভিযোগ অভিযুক্ত নায়িকার আইনজীবীর।  (MINT_PRINT)
2/10রিয়ার আইনজীবী সতীশ মানেসিন্ধে জানিয়েছেন রিয়া বাস্তব জীবনে ‘বেঙ্গল টাইগ্রেস’ এবং সে নিজের নষ্ট ভাবমূর্তি শুধরে নেবে বিশ্বাস তাঁর। সুশান্তের পরিবার ইচ্ছাকৃতভাবে ‘প্রতিহিংসা পরায়ণ’ আচরণ করছে রিয়ার সঙ্গে অভিযোগ অভিযুক্ত নায়িকার আইনজীবীর।  (MINT_PRINT)
সুশান্তকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ এনে রিয়া ও তাঁর গোটা পরিবারের বিরুদ্ধে গত ২৫ জুলাই বিহার পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করেন রিয়ার বাবা কেকে সিং। এরপর বিহার সরকারের সুপারিশ মেনে এই মৃত্যু রহস্যের কিনারার ভার পড়ে সিবিআইয়ের হাতে।  (PTI)
3/10সুশান্তকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ এনে রিয়া ও তাঁর গোটা পরিবারের বিরুদ্ধে গত ২৫ জুলাই বিহার পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করেন রিয়ার বাবা কেকে সিং। এরপর বিহার সরকারের সুপারিশ মেনে এই মৃত্যু রহস্যের কিনারার ভার পড়ে সিবিআইয়ের হাতে।  (PTI)
অন্যদিকে সুশান্তের মৃত্যু মামলার সঙ্গে জড়িত আর্থিক তছরুপের মামলার তদন্তে নেমে রিয়ার মাদকযোগের হদিশ পায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এরপর অগস্ট মাসেই এই মামলার তদন্তে নামে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। এবং গত ৫ সেপ্টেম্বর রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করে এনসিবি। তিনদিনের মাথায় গ্রেফতার হন রিয়া স্বয়ং।  (PTI)
4/10অন্যদিকে সুশান্তের মৃত্যু মামলার সঙ্গে জড়িত আর্থিক তছরুপের মামলার তদন্তে নেমে রিয়ার মাদকযোগের হদিশ পায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এরপর অগস্ট মাসেই এই মামলার তদন্তে নামে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। এবং গত ৫ সেপ্টেম্বর রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করে এনসিবি। তিনদিনের মাথায় গ্রেফতার হন রিয়া স্বয়ং।  (PTI)
jরিয়ার আইনজীবী সতীশ মানেসিন্ধে এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে জানিয়েছেন, জেলে রিয়া কেমন আছেন তা দেখতে সেখানে হাজির হয়েছিলেন তিনি। রিয়ার পরিস্থিতি দেখে অবাক হয়ে যান স্বয়ং অভিযুক্তর আইনজীবী। মানেসিন্ধে জানান পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পেরেছিলেন রিয়া।  (PTI)
5/10jরিয়ার আইনজীবী সতীশ মানেসিন্ধে এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে জানিয়েছেন, জেলে রিয়া কেমন আছেন তা দেখতে সেখানে হাজির হয়েছিলেন তিনি। রিয়ার পরিস্থিতি দেখে অবাক হয়ে যান স্বয়ং অভিযুক্তর আইনজীবী। মানেসিন্ধে জানান পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পেরেছিলেন রিয়া।  (PTI)
রিয়া একদম আম বন্দির মতোই জেলে থাকত। কঠিন পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছিল সে। আর্মি পরিবারের মেয়ে হওয়ার জেরেই নাকি একদম যুদ্ধক্ষেত্রের মতো পরিস্থিতির সঙ্গেও ভালোভাবে মানিয়ে নিয়ে সক্ষম হয়েছিল রিয়া, জানান মানেসিন্ধে। উল্লেখ্য রিয়ার বাবা ইন্দ্রজিত্ চক্রবর্তী ভারতীয় সেনাবাহিনীতে চিকিত্সক হিসাবে কাজ করেছেন।  (REUTERS)
6/10রিয়া একদম আম বন্দির মতোই জেলে থাকত। কঠিন পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছিল সে। আর্মি পরিবারের মেয়ে হওয়ার জেরেই নাকি একদম যুদ্ধক্ষেত্রের মতো পরিস্থিতির সঙ্গেও ভালোভাবে মানিয়ে নিয়ে সক্ষম হয়েছিল রিয়া, জানান মানেসিন্ধে। উল্লেখ্য রিয়ার বাবা ইন্দ্রজিত্ চক্রবর্তী ভারতীয় সেনাবাহিনীতে চিকিত্সক হিসাবে কাজ করেছেন।  (REUTERS)
মানেসিন্ধের দাবি বাইকুল্লা জেলে প্রতিদিন সকালে যোগাভ্যাসের ক্লাস করাতেন রিয়া। সকল মহিলা বন্দিদের সঙ্গে নিয়েই যোগা করতেন সুশান্ত মামলার মূল অভিযুক্ত।  (PTI)
7/10মানেসিন্ধের দাবি বাইকুল্লা জেলে প্রতিদিন সকালে যোগাভ্যাসের ক্লাস করাতেন রিয়া। সকল মহিলা বন্দিদের সঙ্গে নিয়েই যোগা করতেন সুশান্ত মামলার মূল অভিযুক্ত।  (PTI)
রিয়া ড্রাগ সিন্ডিকেটের অংশ এমন কোনও জোরালো প্রমাণ দিতে ব্যর্থ হয়েছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো, জামিনের রায়ে জানিয়েছে বম্বে হাইকোর্ট। তবে কঠিন শর্তসাপেক্ষেই রিয়াকে জামিন দেওয়া হয়েছে। এক লক্ষ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন মিলেছে, যা আগামী একমাসের মধ্যে জমা দিতে হবে। এছাড়াও নিজের পাসপোর্ট জমা রাখতে হবে রিয়া চক্রবর্তীকে। । এবং আগামী ১০ দিন টানা নিকটবর্তী থানায় (সান্তাক্রুজ পুলিশ স্টেশন) হাজিরা দিতে হবে। এছাড়া বৃহত্তর মুম্বইয়ের বাইরে যেতে হলেই আগাম অনুমতি নিতে হবে। আগামী ছয় মাস টানা প্রতি মাসে একবার করে এনসিবির সামনে হাজিরা দিতে হবে।  (PTI)
8/10রিয়া ড্রাগ সিন্ডিকেটের অংশ এমন কোনও জোরালো প্রমাণ দিতে ব্যর্থ হয়েছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো, জামিনের রায়ে জানিয়েছে বম্বে হাইকোর্ট। তবে কঠিন শর্তসাপেক্ষেই রিয়াকে জামিন দেওয়া হয়েছে। এক লক্ষ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন মিলেছে, যা আগামী একমাসের মধ্যে জমা দিতে হবে। এছাড়াও নিজের পাসপোর্ট জমা রাখতে হবে রিয়া চক্রবর্তীকে। । এবং আগামী ১০ দিন টানা নিকটবর্তী থানায় (সান্তাক্রুজ পুলিশ স্টেশন) হাজিরা দিতে হবে। এছাড়া বৃহত্তর মুম্বইয়ের বাইরে যেতে হলেই আগাম অনুমতি নিতে হবে। আগামী ছয় মাস টানা প্রতি মাসে একবার করে এনসিবির সামনে হাজিরা দিতে হবে।  (PTI)
রিয়ার জামিন মঞ্জুর হওয়ার পর তাঁর আইনজীবী সতীশ মানেসিন্ধে বলেন- 'রিয়ার গ্রেফতারি ও হেফাজত সম্পূর্ণ অযাচিত এবং আইনের নাগালের বাইরে। রিয়ার পিছনে যেভাবে তিনটি কেন্দ্রীয় সংস্থা - সিবিআই, ইডি এবং এনসিবি পড়ে গিয়েছে, তা শেষ হওয়া উচিত। আমরা সত্যের প্রতি দায়বদ্ধ। সত্যমেব জয়তে।’
9/10রিয়ার জামিন মঞ্জুর হওয়ার পর তাঁর আইনজীবী সতীশ মানেসিন্ধে বলেন- 'রিয়ার গ্রেফতারি ও হেফাজত সম্পূর্ণ অযাচিত এবং আইনের নাগালের বাইরে। রিয়ার পিছনে যেভাবে তিনটি কেন্দ্রীয় সংস্থা - সিবিআই, ইডি এবং এনসিবি পড়ে গিয়েছে, তা শেষ হওয়া উচিত। আমরা সত্যের প্রতি দায়বদ্ধ। সত্যমেব জয়তে।’
যদিও বম্বে হাইকোর্টের রায়ের বিরোধিতা করে সর্বোচ্চ আদালতের দরজায় কড়া নাড়বে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। এ বিষয়ে অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল অনিল সিং বলেন, ‘এই বিষয়ে আইন সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশ্ন যুক্ত আছে। তাই আমরা সুপ্রিম কোর্টের সামনে এই রায়কে পরীক্ষা করতে চাই।’
10/10যদিও বম্বে হাইকোর্টের রায়ের বিরোধিতা করে সর্বোচ্চ আদালতের দরজায় কড়া নাড়বে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। এ বিষয়ে অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল অনিল সিং বলেন, ‘এই বিষয়ে আইন সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশ্ন যুক্ত আছে। তাই আমরা সুপ্রিম কোর্টের সামনে এই রায়কে পরীক্ষা করতে চাই।’
অন্য গ্যালারিগুলি