বাংলা নিউজ > ছবিঘর > ৭০টির বেশি জনপ্রিয় ছবিতে কাজ, মৃত্যুবার্ষিকীতে ফিরে দেখা ঋষি কাপুরকে

৭০টির বেশি জনপ্রিয় ছবিতে কাজ, মৃত্যুবার্ষিকীতে ফিরে দেখা ঋষি কাপুরকে

  • কেটে গেল গোটা একটা বছর। দর্শকদের কাছে তাঁর স্মৃতি এখনও বড়ই টাটকা! 
ঠিক এক বছর আগে সিনেপ্রেমীরা যখন ইরফান খানের মৃত্যুশোক কাটিয়ে উঠতে পারেনি, তখনই খবর এল চলে গিয়েছেন ঋষি কাপুরও। ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে শেষমেশ ৩০ এপ্রিল চলে গেলেন এই বর্ষীয়ান অভিনেতা। 
1/12ঠিক এক বছর আগে সিনেপ্রেমীরা যখন ইরফান খানের মৃত্যুশোক কাটিয়ে উঠতে পারেনি, তখনই খবর এল চলে গিয়েছেন ঋষি কাপুরও। ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে শেষমেশ ৩০ এপ্রিল চলে গেলেন এই বর্ষীয়ান অভিনেতা। 
২৯ এপ্রিল মুম্বইয়ের এইচএন রিলায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। আইসিইউতে ছিলেন গোটা দিন। এরপর ৩০ এপ্রিল সকাল ৮ টা ৪৫ মিনিটে মারা যান। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর।
2/12২৯ এপ্রিল মুম্বইয়ের এইচএন রিলায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। আইসিইউতে ছিলেন গোটা দিন। এরপর ৩০ এপ্রিল সকাল ৮ টা ৪৫ মিনিটে মারা যান। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর।
গোটা বিশ্ব তখন করোনা ভাইরাসের কারণে স্তব্ধ। অজীবন পজিটিভ থাকা এই অভিনেতার শেষ টুইটেও ছিল আশার বার্তা। লিখেছিলেন, ‘আমাদের সকলকে যৌথভাবে জয় করতে হবে করোনা ভাইরাসকে। দয়া করে কেউ ডাক্তার বা নার্সদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করবেন না। জয় হিন্দ।’  
3/12গোটা বিশ্ব তখন করোনা ভাইরাসের কারণে স্তব্ধ। অজীবন পজিটিভ থাকা এই অভিনেতার শেষ টুইটেও ছিল আশার বার্তা। লিখেছিলেন, ‘আমাদের সকলকে যৌথভাবে জয় করতে হবে করোনা ভাইরাসকে। দয়া করে কেউ ডাক্তার বা নার্সদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করবেন না। জয় হিন্দ।’  
১৯৫২ সালের ৪ সেপ্টেম্বর কাপুর পরিবারে জন্ম। তিনি ছিলেন অভিনেতা-নির্মাতা রাজ কাপুর ও কৃষ্ণা রাজ কাপুর দম্পতির দ্বিতীয় সন্তান এবং অভিনেতা পৃথবীরাজ কাপুরের নাতি।
4/12১৯৫২ সালের ৪ সেপ্টেম্বর কাপুর পরিবারে জন্ম। তিনি ছিলেন অভিনেতা-নির্মাতা রাজ কাপুর ও কৃষ্ণা রাজ কাপুর দম্পতির দ্বিতীয় সন্তান এবং অভিনেতা পৃথবীরাজ কাপুরের নাতি।
তাঁরা মোট পাঁচ ভাই-বোন। বড় ভাই রণধীর কাপুর ও ছোট ভাই রাজিব কাপুর। বোন ঋতু নন্দা ও রাইমা জৈন।
5/12তাঁরা মোট পাঁচ ভাই-বোন। বড় ভাই রণধীর কাপুর ও ছোট ভাই রাজিব কাপুর। বোন ঋতু নন্দা ও রাইমা জৈন।
১৯৭০ সালে বাবা রাজ কাপুরের পরিচালনায় ‘মেরা নাম জোকার’ ছবির মধ্য দিয়ে শিশুশিল্পী হিসেবে বলিউডে পা রাখেন ঋষি। দর্শক ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছিল কাপুর পরিবারের এই ছোট্ট সদস্যকে। 
6/12১৯৭০ সালে বাবা রাজ কাপুরের পরিচালনায় ‘মেরা নাম জোকার’ ছবির মধ্য দিয়ে শিশুশিল্পী হিসেবে বলিউডে পা রাখেন ঋষি। দর্শক ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছিল কাপুর পরিবারের এই ছোট্ট সদস্যকে। 
‘ববি’, ‘প্রেম রোগ’, ‘দিওয়ানা’, ‘নাগীনা’, ‘নসীব আপনার আপনা’, ‘ইয়ারানা’, ‘পাতিয়ালা হাউস’-এর মতো একাধিক হিট ছবিতে কাজ করেছিলেন ঋষি কাপুর। 
7/12‘ববি’, ‘প্রেম রোগ’, ‘দিওয়ানা’, ‘নাগীনা’, ‘নসীব আপনার আপনা’, ‘ইয়ারানা’, ‘পাতিয়ালা হাউস’-এর মতো একাধিক হিট ছবিতে কাজ করেছিলেন ঋষি কাপুর। 
ঋষি আর নীতুর জুটি ছিল সুপার ডুপার হিট। ১৯৭৩ থেকে ১৯৮১ সালের মধ্যে নীতু সিংয়ের সঙ্গে জুটিবদ্ধ হয়ে ১২টি ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। এরপর ১৯৮০ সালের ২২ জানুয়ারি বিয়ে করেন অভিনেত্রী নীতু সিংকে। 
8/12ঋষি আর নীতুর জুটি ছিল সুপার ডুপার হিট। ১৯৭৩ থেকে ১৯৮১ সালের মধ্যে নীতু সিংয়ের সঙ্গে জুটিবদ্ধ হয়ে ১২টি ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। এরপর ১৯৮০ সালের ২২ জানুয়ারি বিয়ে করেন অভিনেত্রী নীতু সিংকে। 
১৯৮০ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় মেয়ে ঋদ্ধিমা কাপুরের। এরপর ১৯৮২ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন অভিনেতা রণবীর কাপুর।
9/12১৯৮০ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় মেয়ে ঋদ্ধিমা কাপুরের। এরপর ১৯৮২ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন অভিনেতা রণবীর কাপুর।
২০১৮ সলে ক্যানসার আক্তান্ত হওয়ার কথা জানতে পারেন অভিনেতা। স্ত্রী নীতুকে সঙ্গে নিয়ে নিউ ইয়র্কে যান চিকিৎসার জন্য। প্রায় এক বছর পর সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে দেশে ফেরেন তিনি। 
10/12২০১৮ সলে ক্যানসার আক্তান্ত হওয়ার কথা জানতে পারেন অভিনেতা। স্ত্রী নীতুকে সঙ্গে নিয়ে নিউ ইয়র্কে যান চিকিৎসার জন্য। প্রায় এক বছর পর সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে দেশে ফেরেন তিনি। 
২০১৯ সলের ১৩ ডিসেম্বর মুক্তিপ্রাপ্ত ‘দ্য বডি’ ঋশি কাপুর অভিনীত শেষ ছবি। 
11/12২০১৯ সলের ১৩ ডিসেম্বর মুক্তিপ্রাপ্ত ‘দ্য বডি’ ঋশি কাপুর অভিনীত শেষ ছবি। 
২০০৮ সালে ফিল্মফেয়ারের মঞ্চে তাঁকে ‘লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট’ অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়। ২০১১ সালে ‘দো দুনি চার’ ছবিতে অভিনয়ের সুবাদে ফিল্মফেয়ারে 'সেরা ক্রিটিকস চয়েজ; অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন তিনি। এরপর ২০১৭ সালে ‘কাপুর অ্যান্ড সনস’-এর জন্য পান সেরা পার্শ্ব অভিনেতার পুরস্কার।
12/12২০০৮ সালে ফিল্মফেয়ারের মঞ্চে তাঁকে ‘লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট’ অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়। ২০১১ সালে ‘দো দুনি চার’ ছবিতে অভিনয়ের সুবাদে ফিল্মফেয়ারে 'সেরা ক্রিটিকস চয়েজ; অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন তিনি। এরপর ২০১৭ সালে ‘কাপুর অ্যান্ড সনস’-এর জন্য পান সেরা পার্শ্ব অভিনেতার পুরস্কার।
অন্য গ্যালারিগুলি