বাড়ি > ছবিঘর > রাম মন্দিরের জন্য বাংলা থেকে গঙ্গার জল ও মাটি নিয়ে অযোধ্যায় যাচ্ছে VHP

রাম মন্দিরের জন্য বাংলা থেকে গঙ্গার জল ও মাটি নিয়ে অযোধ্যায় যাচ্ছে VHP

  • আগামী ৫ অগস্ট অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হবে। সেজন্য বাংলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গঙ্গাজল এবং গঙ্গার মাটি পাঠাচ্ছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। একনজরে দেখে নিন সেই ছবি -
নবদ্বীপ থেকে গঙ্গাজল এবং গঙ্গামাটি পাঠানো হচ্ছে। (ছবি সৌজন্য ফেসবুক)
1/5নবদ্বীপ থেকে গঙ্গাজল এবং গঙ্গামাটি পাঠানো হচ্ছে। (ছবি সৌজন্য ফেসবুক)
হুগলির ত্রিবেণী সঙ্গম থেকেও গঙ্গাজল পাঠানো হয়েছে। গঙ্গা, সরস্বতী এবং কুন্তি নদীর সঙ্গমস্থলে অবস্থিত ত্রিবেণী। সেখান থেকে গঙ্গার মাটিও পাঠানো হয়েছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
2/5হুগলির ত্রিবেণী সঙ্গম থেকেও গঙ্গাজল পাঠানো হয়েছে। গঙ্গা, সরস্বতী এবং কুন্তি নদীর সঙ্গমস্থলে অবস্থিত ত্রিবেণী। সেখান থেকে গঙ্গার মাটিও পাঠানো হয়েছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
দক্ষিণেশ্বরের গঙ্গার ঘাটে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে পুজোর আয়োজন করা হয়। গঙ্গা থেকে মাটি ও জল তুলে শুদ্ধিকরণ করা হয়। তারপর তা হিন্দু বিশ্ব পরিষদের কার্যালয়ে পাঠানো হয়। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
3/5দক্ষিণেশ্বরের গঙ্গার ঘাটে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে পুজোর আয়োজন করা হয়। গঙ্গা থেকে মাটি ও জল তুলে শুদ্ধিকরণ করা হয়। তারপর তা হিন্দু বিশ্ব পরিষদের কার্যালয়ে পাঠানো হয়। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
এছাড়াও গঙ্গাসাগর, তারাপীঠ, কালীঘাট-সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে গঙ্গার জল ও গঙ্গার মাটি পাঠানো হচ্ছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
4/5এছাড়াও গঙ্গাসাগর, তারাপীঠ, কালীঘাট-সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে গঙ্গার জল ও গঙ্গার মাটি পাঠানো হচ্ছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে জানানো হয়েছে, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গঙ্গাজল এবং গঙ্গার মাটি কলকাতায় আনা হচ্ছে। তারপর বিশ্ব হিন্দু পরিষদের একটি প্রতিনিধিদল তা অযোধ্যায় নিয়ে যাবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
5/5বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে জানানো হয়েছে, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গঙ্গাজল এবং গঙ্গার মাটি কলকাতায় আনা হচ্ছে। তারপর বিশ্ব হিন্দু পরিষদের একটি প্রতিনিধিদল তা অযোধ্যায় নিয়ে যাবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
অন্য গ্যালারিগুলি