বাংলা নিউজ > ছবিঘর > করোনা আক্রান্ত হলে কী করবেন? কী কী করতে হবে? জানালেন বিশিষ্ট চিকিৎসক

করোনা আক্রান্ত হলে কী করবেন? কী কী করতে হবে? জানালেন বিশিষ্ট চিকিৎসক

  • দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। টানা গত কয়েকদিন ধরে নয়া আক্রান্তের সংখ্যা দু'লাখের গণ্ডি ছাড়িয়ে গিয়েছে। সেই পরিস্থিতিতে করোনা আক্রান্ত হলে কী করবেন, সেই সংক্রান্ত টিপস দিলেন মুম্বইয়ের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালের অধিকর্তা সিএস প্রমেশ। জেনে নিন তা বিশদে -
সিএস প্রমেশ : যদি করোনাভাইরাস হয়, তাহলে কী করবেন? যাবতীয় সতর্কতা সত্ত্বেও করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন। টিকা নেওয়ার পরও করোনার কবলে পড়তে পারেন। মনে রাখবেন, কোনওটাই ১০০ শতাংশ কার্যকরী নয়। তবে একেবারে শূন্যের থেকে ৭০ থেকে ৯৫ শতাংশ কার্যকরী হওয়া ঢের ভালো। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
1/7সিএস প্রমেশ : যদি করোনাভাইরাস হয়, তাহলে কী করবেন? যাবতীয় সতর্কতা সত্ত্বেও করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন। টিকা নেওয়ার পরও করোনার কবলে পড়তে পারেন। মনে রাখবেন, কোনওটাই ১০০ শতাংশ কার্যকরী নয়। তবে একেবারে শূন্যের থেকে ৭০ থেকে ৯৫ শতাংশ কার্যকরী হওয়া ঢের ভালো। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
সিএস প্রমেশ : সংক্রমিত হওয়ার আগে থেকেই প্রস্তুতি নিন। থার্মোমিটার এবং পালস অক্সিমিটার কিনে বাড়িতে রাখুন। যদি আপনি সংক্রমিত হন, তাহলে এই দুটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জাম হবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
2/7সিএস প্রমেশ : সংক্রমিত হওয়ার আগে থেকেই প্রস্তুতি নিন। থার্মোমিটার এবং পালস অক্সিমিটার কিনে বাড়িতে রাখুন। যদি আপনি সংক্রমিত হন, তাহলে এই দুটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জাম হবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
সিএস প্রমেশ : করোনায় আক্রান্ত হলে আতঙ্কিত হবেন না। ৯৮ শতাংশ করোনা আক্রান্তই কোনওরকম বড়সড় সমস্যা ছাড়াই সুস্থ হয়ে ওঠেন। অন্যদের থেকে নিজেকে আলাদা করে নিন। নিভৃতবাসে যান। যদি সম্ভব হয়, আপনি বাড়িতেও করতে পারেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
3/7সিএস প্রমেশ : করোনায় আক্রান্ত হলে আতঙ্কিত হবেন না। ৯৮ শতাংশ করোনা আক্রান্তই কোনওরকম বড়সড় সমস্যা ছাড়াই সুস্থ হয়ে ওঠেন। অন্যদের থেকে নিজেকে আলাদা করে নিন। নিভৃতবাসে যান। যদি সম্ভব হয়, আপনি বাড়িতেও করতে পারেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
সিএস প্রমেশ : থার্মোমিটার ব্যবহার করে দেহের তাপমাত্রা এবং পালস অক্সিমিটারের মাধ্যমে অক্সিজেনের ওঠানামার তালিকা তৈরি করুন। দিনে দু'তিনবার তা পরিমাপ করুন। অক্সিমিটারের দিয়ে অক্সিজেনের মাত্রা প্রথমে পরিমাপ করে দেখুন। তারপর মিনিট ছয়েক হালকা হেঁটে একবার পরিমাপ করুন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য সঞ্জীব বর্মা/হিন্দুস্তান টাইমস)
4/7সিএস প্রমেশ : থার্মোমিটার ব্যবহার করে দেহের তাপমাত্রা এবং পালস অক্সিমিটারের মাধ্যমে অক্সিজেনের ওঠানামার তালিকা তৈরি করুন। দিনে দু'তিনবার তা পরিমাপ করুন। অক্সিমিটারের দিয়ে অক্সিজেনের মাত্রা প্রথমে পরিমাপ করে দেখুন। তারপর মিনিট ছয়েক হালকা হেঁটে একবার পরিমাপ করুন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য সঞ্জীব বর্মা/হিন্দুস্তান টাইমস)
সিএস প্রমেশ : যথেষ্ট পরিমাণ ফ্লুইড খান। শরীরে জলের পরিমাণ ঠিক রাখতে হবে। ইতিবাচক থাকুন। আপনি এই সময়টা অতিক্রম করে যাবেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
5/7সিএস প্রমেশ : যথেষ্ট পরিমাণ ফ্লুইড খান। শরীরে জলের পরিমাণ ঠিক রাখতে হবে। ইতিবাচক থাকুন। আপনি এই সময়টা অতিক্রম করে যাবেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
সিএস প্রমেশ : কখন আমার চিকিৎসকদের সাহায্য করা উচিত? যদি অক্সিজেনের মাত্রা ৯৪ শতাংশের নীচে নেমে যায় বা ছ'মিনিট হাঁটার আগে এবং পরে অক্সিজেনের মাত্রা চার শতাংশ বা তার বেশি পড়ে যায়, তাহলে হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
6/7সিএস প্রমেশ : কখন আমার চিকিৎসকদের সাহায্য করা উচিত? যদি অক্সিজেনের মাত্রা ৯৪ শতাংশের নীচে নেমে যায় বা ছ'মিনিট হাঁটার আগে এবং পরে অক্সিজেনের মাত্রা চার শতাংশ বা তার বেশি পড়ে যায়, তাহলে হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
সিএম প্রমেশ : আপনার কী ওষুধ নেওয়া উচিত? আপনার যদি অক্সিজেনের মাত্রা ঠিক থাকে, জ্বর ছাড়া কোনও উপসর্গ না থাকে, তাহলে প্যারাসিটামোল হলেই হবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
7/7সিএম প্রমেশ : আপনার কী ওষুধ নেওয়া উচিত? আপনার যদি অক্সিজেনের মাত্রা ঠিক থাকে, জ্বর ছাড়া কোনও উপসর্গ না থাকে, তাহলে প্যারাসিটামোল হলেই হবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
অন্য গ্যালারিগুলি