100 Hours 100 Stars-এ বিজেন্দ্র সিং।
100 Hours 100 Stars-এ বিজেন্দ্র সিং।

100 Hours 100 Stars: দেশে অভিনেতা অনেক আছে, বক্সার নেই, বিজেন্দ্রকে রিংয়ে মন দিতে বলেছিলেন বিগ বি

  • বক্সিংয়ের রিং বলিউডের মঞ্চের মতো নয়, অলিম্পিক পদকজয়ী তুলে ধরলেন বাস্তবের ছবি।

কোনও রাখঢাক নেই। খোলামেলা মন্তব্যে বাস্তব সমাজের ছবি তুলে ধরলেন বিজেন্দ্র সিং। অলিম্পিক পদকজয়ী বক্সার এখনই পেশাদার রিংয়ের কিংবদন্তি। তবে মাটি থেকে পা সরেনি এতটুকু।

ফিভার নেটওয়ার্কের #100Hours100Stars-এর শোয়ে চ্যাম্পিয়ন বক্সার জানালেন এমন কিছু তথ্য, যা আপ্লুত করবে সকলকেই।

বিজেন্দ্র সিং জানালেন, বক্সিং থেকে শুরু করে হকি ও কুস্তি পর্যন্ত সমস্ত খেলাধুলোয় হরিয়ানার ক্রমশ এগিয়ে যাওয়ার কারণ। তারকা বক্সারের কথায়, ‘সরকার প্রচুর টাকা খরচ করে খেলোয়াড়দের পিছনে। একজন মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে যদি শুরু থেকে উৎসাহ পায় সরকারি তরফে, তবে তার উন্নতি করা স্বাভাবিক।’

রিংয়ে আগুনে মেজাজে ধরা দিলেও বাস্তবে নিতান্ত শান্তিপ্রিয় বিজেন্দ্র। তাঁর স্পষ্ট স্বীকারোক্তি, ‘নিজের ইন্দ্রিয়ের উপর নিয়ন্ত্রণ দরকার। তবেই বড় মানুষ হওয়া যায়। আমি শিখছি নিজের উপর নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে।’

সচরাচর রাগ করেন না। রাগ হলেও সেটাকে নিয়ন্ত্রণ করে নেন। এমনকি রিংয়েও এটাই তাঁর হাতিয়ার। ঘুসি খেয়েও মাথা গরম করেন না। কারণ, জানেন যে বক্সিংয়ের রিংটা বলিউডের মঞ্চ নয়। যেখানে একবার মার খেলে তৎক্ষণাৎ পালটা দিতে হবে। সেই চেষ্টা করলে প্রতিপক্ষের হাতে অস্ত্র তুলে দেওয়া হবে। বরং মাথা ঠাণ্ডা রেখে প্রতিআক্রমণের সুযোগের অপেক্ষায় থাকেন।

বিজেন্দ্র জানালেন, একদা অমিতাভ বচ্চন তাঁকে মূল্যবান পরামর্শ দিয়েছিলেন। তারকা বক্সার বলেন, ‘অমিতাভ বচ্চন জি’র সঙ্গে যখন দেখা হয়, তখন আমি নিজের পরিচয় দিই। উনি বলেন, আমি চিনি তোমাকে। আমি বলি আমিও একটা ছবিতে অভিনয় করেছি। তখন উনি বলেন, শোনো অভিনয়ের লোকের অভাব হবে না। তোমার মতো বক্সারের দরকার দেশের। তাই বক্সিং করো, অভিনয় পরে করার সময় পাবে।'

বন্ধ করুন