বাংলা নিউজ > ময়দান > অজিদের ১০৩৩ বনাম ভারতের ১৩ উইকেট- অসম লড়াইয়ে একাধিক নয়া নজির রাহানের দলের

শুক্রবার থেকে ব্রিসবেনে শুরু হয়েছে ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া চতুর্থ টেস্ট। টি-২০'র পরে এবার সাদা জার্সিতে ও অভিষেক হল টি নটরাজন ও ওয়াশিংটন সুন্দরের। প্রসঙ্গত এর আগে এই চলতি টেস্ট সিরিজে অভিষেক হয়েছে শুভমান গিল, মহম্মদ সিরাজ এবং নভদীপ সাইনির।

প্রসঙ্গত, বেশ কয়েকটি রেকর্ড হয়ে গেল ভারতীয়রা এরকম আনকোরা দল নামানোয়। এই প্রথমবার হল যে বিপক্ষের দলের বোলারদের হাজারের ওপর টেস্ট উইকেট, অন্যদিকে বিপক্ষের একশোও নেই। অজি দলে বোলারদের মোট উইকেটের সংখ্যা ১০৩৩। অন্যদিকে এই টেস্টের আগে ভারতের বোলারদের মাত্র ১৩ উইকেট ছিল। 

১৯৩৩-র পর এতটা অনভিজ্ঞ বোলিং লাইন আপ নামায়নি ভারত।  ভারতের দ্বিতীয় টেস্টে তিন বোলার ছিলেন অমর সিং,সিকে নাইডু ও মহম্মদ নিসার। এরা প্রথম টেস্টটিও খেলেছিলেন। সব মিলিয়ে অভিজ্ঞতা ছিল তিন টেস্টের। ভারতীয় বোলারদের সম্মিলিত অভিজ্ঞতা হল চার টেস্টের। 

১৯৪৬-র পর এত কম উইকেট নিয়ে ম্যাচ শুরু করে ভারতীয় বোলাররা। 

উল্লেখ্য এই অভিষেকের দিক থেকেই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৪ টেস্টের বর্ডার-গাভাস্কর ট্রফিতে নয়া নজির গড়ে ফেলল রাহানের ভারত। চলতি টেস্ট সিরিজে ভারতীয় শিবির এখন চোট আঘাতে জর্জরিত। ফলে ছিটকে যেতে হয়েছে একাধিক তারকা ক্রিকেটারকে । পরিবর্তে একের পর এক নতুন মুখকে দেখা গেছে ভারতীয় দলের জার্সিতে।চোট-আঘাতে মিনি হসপিটালে পরিণত হওয়া ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বর্ডার-গাভাস্কর ট্রফিতে মোট ২০ জন ক্রিকেটারকে খেলিয়েছে। যা বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসে এক নয়া নজির । পূজারা এবং আজিঙ্ক রাহানে দুজনেই চারটি টেস্টেই খেলছেন।

প্রথম টেস্ট খেলে পিতৃত্বকালীন ছুটিতে দেশে ফিরে গিয়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। প্রথম টেস্টেই আবার ফোরআর্মে চোট পেয়ে সিরিজ থেকে ছিটকে যান মহম্মদ শামি। মেলবোর্নে দ্বিতীয় টেস্টে অভিষেক হয় শুভমান গিল ও মহম্মদ সিরাজের। প্রথম একাদশে জায়গা পান ঋষভ পন্থ, রবীন্দ্র জাদেজা। বাদ পড়েন ঋদ্ধিমান সাহা এবং পৃথ্বী শ। দ্বিতীয় টেস্টে আবার চোট পেয়ে ছিটকে যান উমেশ যাদব। সিডনিতে উমেশ যাদবের পরিবর্তে টেস্ট অভিষেক হয় নভদীপ সাইনির। মায়াঙ্ক আগরওয়ালের পরিবর্তে দলে আসেন রোহিত শর্মা। সিডনিতে লড়াকু ড্রয়ের মাধ্যমে সিরিজে ভারত সমতা বজায় রাখার পথে একাধিক ভারতীয় ক্রিকেটার চোট আঘাত পান।

ফলে ব্রিসবেনে সিরিজের শেষ টেস্টে দলে নেই চার ক্রিকেটার- হনুমা বিহারী, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা এবং জশপ্রীত বুমরাহ। এখানে টেস্ট অভিষেক হয়েছে নটরাজন এবং ওয়াশিংটন সুন্দরের। দলে এসেছেন শার্দুল ঠাকুর এবং মায়াঙ্ক আগরওয়াল। সব মিলিয়ে মোট ২০ জন ক্রিকেটার ভারতের হয়ে খেলে ফেলেছেন এই বর্ডার গাভাসকর ট্রফিতে। প্রসঙ্গত এর আগে ১৯৫৯ সালে ইংল্যান্ড সফরে টেস্ট সিরিজে , ২০১৪-১৫ মরসুমে অস্ট্রেলিয়া সফরে এবং ২০১৮ সালে ইংল্যান্ড সফরেও ভারতের হয়ে ১৭ জন ক্রিকেটার খেলেছিলেন একটি সিরিজে।

 

বন্ধ করুন