বাংলা নিউজ > ময়দান > চোটের কারণেই শেষ ২০০৯ দেল পোত্রোর কেরিয়ার, ঘরের মাঠে টুর্নামেন্টে হেরে অবসর ঘোষণা
দেল পোত্রো।

চোটের কারণেই শেষ ২০০৯ দেল পোত্রোর কেরিয়ার, ঘরের মাঠে টুর্নামেন্টে হেরে অবসর ঘোষণা

  • এক সময়ে বিশ্বর‍্যাঙ্কিংয়ের প্রথম তিনে প্রবেশ করা জুয়ান দেল পোত্রো ২০১৯ সালে শেষবার পেশাদার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন। লন্ডনের কুইন্সে আয়োজিত সেই টুর্নামেন্টেই হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন আর্জেন্টিনার টেনিস তারকা।

২০০৯ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর ইউএস ওপেনে রাফায়েল নাদালকে ৬-২, ৬-২, ৬-২ একেবারে উড়িয়ে দিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার তারকা দেল পোত্রো। আর ফাইনালে রজার ফেডারারের সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছিল। পাঁচ সেটের লড়াই শেষ হয়েছিল ৩-৬, ৭-৬ (৭-৫), ৪-৬, ৭-৬ (৭-৪), ৬-২-এ। ফেডেক্সকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন দেল পোত্রো। কিন্তু এ রকম দুরন্ত প্লেয়ারের কেরিয়ার শুধুমাত্র শেষ হয়ে গেল চোটের কারণে। চোটে জর্জরিত দেল পোত্রো শেষ পর্যন্ত অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন। 

এক সময়ে বিশ্বর‍্যাঙ্কিংয়ের প্রথম তিনে প্রবেশ করা জুয়ান দেল পোত্রো ২০১৯ সালে শেষবার পেশাদার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন। লন্ডনের কুইন্সে আয়োজিত সেই টুর্নামেন্টেই হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন আর্জেন্টিনার টেনিস তারকা। তবে তার আগেও বহু বার চোটের কারণে টেনিস কোর্ট থেকে তাঁকে দূরে থাকতে হয়েছিল। ২০১০ সালের শুরুতেই যেমন পাঁচে ছিলেন দেল পোত্রো। সেটাই বছরের শেষে ২৫৮-তে গিয়ে দাঁড়ায়। ফের তিনি লড়াই করে ঘুরে দাঁড়িয়েছিলেন। ২০১৪ সালে ফের তিনি ক্রমতালিকায় ৫-এ উঠে আসেন। দু'বছরের মধ্যে আবার ছিটকে যান ৬০০-র বাইরে। এর পর ২০১৯ সালের পর দেল পোত্রো ক্রমাগত চোটের সঙ্গে লড়াই করেছেন। শেষ পর্যন্ত তিনি সরে দাঁড়ালেন টেনিস থেকেই।

আর্জেন্টিনা ওপেনের ৩২ নম্বর রাউন্ড থেকে ছিটকে যান দেল পোত্রো। ঘরের মাঠে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাওয়ার পরেই নিজের অবসরের ঘোষণা করেন তিনি। নিজের ঘরের মাঠেই শেষ টুর্নামেন্ট খেলে কেরিয়ারে ইতি টানলেন দেল পোত্রো।

বন্ধ করুন