ভারত বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর সতীর্থদের কাঁধে সচিন। ছবি- গেটি ইমেজেস।
ভারত বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর সতীর্থদের কাঁধে সচিন। ছবি- গেটি ইমেজেস।

সচিনের পরামর্শেই ধোনি পাঁচে, ভারতের বিশ্বকাপ জয়ের মাস্টারমাইন্ড ছিলেন তেন্ডুলকর

  • কীভাবে ভারতের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার ব্লু-প্রিন্ট ছকেছিলেন তেন্ডুলকর, তা জানা গেল দীর্ঘ ৯ বছর পরে।

আক্ষরিক অর্থেই ভারতের ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের মাস্টারমাইন্ড ছিলেন সচিন তেন্ডুলকর। মাস্টার ব্লাস্টারের পরামর্শেই বিশ্বকাপ ফাইনালের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। যার ফল মেলে হাতেনাতে। কীভাবে ভারতের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার ব্লু-প্রিন্ট ছকেছিলেন তেন্ডুলকর, তা জানা গেল দীর্ঘ ৯ বছর পরে।

বিশ্বজয়ের স্মৃতিচারণে সচিন জানান, সেদিন ওয়াংখেড়েতে তিনি সেহওয়াগকে নির্দেশ দিয়েছিলেন নিজের পরিকল্পনার কথা দৌড়ে গিয়ে ক্যাপ্টেন ধোনিকে জানাতে। যদিও তার প্রয়োজন হয়নি শেষমেশ। ততক্ষণে ধোনি নিজেই চলে এসেছিলেন সাজঘরে। সচিনের পরামর্শ শোনার পর কোচ গ্যারি কার্স্টেনের সঙ্গে আলোচনা করে যুবরাজের পরিবর্তে ধোনি নিজে ব্যাট করতে নামেন পাঁচ নম্বরে।

গোটা টুর্নামেন্টে যুবরাজ সিং দু্র্দান্ত ফর্মে ছিলেন। সেদিক থেকে সেমিফাইনাল পর্যন্ত ধোনি বিশেষ কিছু করে দেখাতে পারেননি বিশ্বকাপে। বিরাট আউট হওয়ার পর পাঁচ নম্বরে যখন যুবির ব্যাট করতে আসার কথা, ভিড়ে ঠাসা গ্যালারিকে চমকে দিয়ে ব্যাট হাতে মাঠে নামেন ধোনি। তাঁর অপরজিত ৯১ রানের ইনিংস শেষ পর্যন্ত টিম ইন্ডিয়াকে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন করে।

ধোনির পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে আসা প্রসঙ্গে সচিন বলেন, 'যুবরাজ দুরন্ত ফর্মে ছিল। তবে শ্রীলঙ্কা দলে দু'জন দারুণ অফ-স্পিনার ছিল। তাই আমার ডানহাতি ও বাঁ-হাতির কম্বিনেশন ধরে রাখার কথা মনে হয়। ক্রিজে যখন গম্ভীর ও কোহলি ব্যাট করছিল, তখনই আমার মনে হয় যে, গম্ভীর আউট হলে যুবারজের আর বিরাট আউট হলে ডানহাতি ধোনির ব্যাট করতে যাওয়া উচিত। আমি যেহেতু নিজের সিট ছেড়ে উঠব না, তাই আমার পরিকল্পনার কথা আমি ওভারের মাঝে ব্যালকানিতে গিয়ে ধোনিকে বলে আসার নির্দেশ দিয়েছিলাম বীরুকে এবং এটাও বলেছিলাম যে, পরের ওভার শুরুর আগে আবার আমার কাছে ফিরে আসতে।'

সেহওয়াগের ব্যলকানিতে যাওয়ার অবশ্য প্রয়োজন হয়নি। সেই মুহূর্তে ধোনি নিজেই ড্রেসিংরুমে ঢুকেছিলেন। সচিন বীরুর সামনেই ধোনিকে জানান নিজের ভাবনার কথা। ধোনি ডেকে নেন কোচ কার্স্টেনকে। পরে চারজনের সমবেত আলোচনাতেই নির্ধারিত হয় গেমপ্ল্যান। ধোনি নিজে পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কোহলি আউট হওয়ায়। বাকিটা ভারতীয় ক্রিকেটের লোকগাথায় চিরস্থায়ী জায়গা করে নিয়েছে।

বন্ধ করুন