বাড়ি > ময়দান > সবথেকে কম বয়সে ICC-র এলিট প্যানেল আম্পায়ারের স্বীকৃতি পেলেন ভারতের নীতিন মেনন
নীতিন মেনন। ছবি- টুইটার।
নীতিন মেনন। ছবি- টুইটার।

সবথেকে কম বয়সে ICC-র এলিট প্যানেল আম্পায়ারের স্বীকৃতি পেলেন ভারতের নীতিন মেনন

  • তৃতীয় ভারতীয় হিসেবে আম্পায়ারদের কুলীন কুলে নীতিন।

অনন্য নজির নীতিন মেননের। আইসিসির ইতিহাসে সবথেকে কম বয়সী আম্পায়ার হিসেবে এলিট প্যানেলে ঢুকে পড়লেন নীতিন। মাত্র ৩৬ বছর বয়সে ২০২০-২১ মরশুমের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার এলিট প্যানেলের অন্তর্ভূক্ত হলেন ভারতীয় আম্পায়ার।

নীতিন ইংল্যান্ডের নাইজেল লংয়ের পরিবর্তে আম্পায়ারদের কুলীন কুলে জায়গা করে নেন। এখনও পর্যন্ত মেনন সাফল্যের সঙ্গে ৩টি টেস্ট, ২৪টি একদিনের আন্তর্জাতি ম্যাচ ও ১৬টি আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ পরিচালনা করেছেন। 

তৃতীয় ভারতীয় হিসেবে আইসিসির এলিট প্যানেল আম্পায়ারের তকমা পেলেন নীতিন। তাঁর আগে শ্রীনিবাস বেঙ্কটরাঘবন ও সুন্দরম রবি আইসিসির এলিট প্যানেলের অন্তর্ভূক্ত হয়েছিলেন।

চার সদস্যের কমিটি নীতিনকে বেছে নেয় এলিট প্যানেলের জন্য। কমিটিতে ছিলেন আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার জিওফ অ্য়ালারডিস, প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা ধারাভাষ্যকার সঞ্জয় মঞ্জরেকর এবং দুই ম্যাচ রেফারি ডেভিড বুন ও রঞ্জন মদুগালে।

নীতিনের বাবা নরেন্দ্র মেননও ছিলেন একজন আন্তর্জাতিক আম্পায়ার। আম্পারিংয়ের পেশায় আসার আগে নীতিন ক্রিকেট খেলেছেন রাজ্যদলের হয়ে। মধ্যপ্রদেশের হয়ে তিনি ২টি লিস্ট-এ ম্যাচে মাঠে নেমেছেন।

মাত্র ২২ বছর বয়সে প্রতিযোগীতামূলক ক্রিকেটকে বিদায় জানান নীতিন। ২৩ বছর বয়সে তিনি বিসিসিআই অনুমোদিত ম্যাচে সিনিয়র আম্পায়ারের ভূমিকা পালন করেন।

আইসিসির এলিট প্যানেলে ঢুকে পড়ায় স্বাভাবিকভাবেই খুশি নীতিন। তিনি জানিয়েছেন, বিশ্বের সেরা আম্পায়ার ও ম্যাচ রেফারিদের সঙ্গে নিয়মিত কাজ করার স্বপ্ন ছিল তাঁর। তিনি আশা প্রকাশ করেন, নিজের পারফর্ম্যান্সে কাউকে হতাশ করবেন না। এমন গর্বের মুহূর্তে নীতিনকে অভিনন্দন জানিয়েছে বিসিসিআই। 

বন্ধ করুন