বাংলা নিউজ > ময়দান > গোলাপি বল নিয়ে ক্ষোভ বিরাটদের! ভারতে অনিশ্চিত ডে-নাইট টেস্টের ভবিষ্যৎ
মোতেরায় পিঙ্ক বল টেস্ট। ছবি- বিসিসিআই।
মোতেরায় পিঙ্ক বল টেস্ট। ছবি- বিসিসিআই।

গোলাপি বল নিয়ে ক্ষোভ বিরাটদের! ভারতে অনিশ্চিত ডে-নাইট টেস্টের ভবিষ্যৎ

  • গোলাপি বলের পিচে পড়ে স্কিড করাতেই আপত্তি ভারতীয় ক্রিকেটারদের।

শুভব্রত মুখার্জি

বহু টালবাহানার পরে ভারত অবশেষে গোলাপি বলের টেস্ট খেলা শুরু করেছে। ইডেনে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে, অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ও আমদাবাদে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে মোট তিনটি গোলাপি টেস্ট আপাতত খেলে ফেলেছে বিরাট বাহিনী। অ্যাডিলেডে চরম লজ্জার সম্মুখীন হতে হয়েছিল তাদের। এছাড়া বাকি দুটি টেস্টে তারা জয়ের মুখ দেখেছে। আমদাবাদের নবনির্মিত স্টেডিয়ামে দিন-রাতের টেস্টে ইংল্যান্ডকে ১০ উইকেটে হারিয়ে ভারত সিরিজে ২-১ ফলে এগিয়ে রয়েছে। এরপরেই গোলাপি বলের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেছে।

জানা গিয়েছে ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের একাধিক ক্রিকেটার গোলাপি বলে খেলা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এর পিছনে তাঁদের সঙ্গত কারনও রয়েছে। বিসিসিআইয়ের তরফে খবর ক্রিকেটারদের এই অভিযোগকে গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন সৌরভরা।

আমদাবাদ টেস্টে মাত্র দেড়দিনে পড়েছে ৩০টি উইকেট। যার মধ্যে প্রায় সবকটাই গেছে স্পিনারদের দখলে। বেশিরভাগ উইকেট পড়েছে সোজা বলে। ইংল্যান্ড অধিনায়ক রুট স্বয়ং বলেছেন গোলাপি বলে এক্সট্রা প্লাস্টিক কোটিংয়ের কারনে বল পিচে পড়ে অতিরিক্ত গতিতে স্কিড করছিল ফলে ব্যাটসম্যানদের অসুবিধা হচ্ছিল। গোলাপি বলের পিচে পড়ে এই স্কিড করাতেই আপত্তি ভারতীয় ক্রিকেটারদের।

পাশাপাশি এই গোলাপি বলের দৃশ্যমানতা নিয়েও সমস্যা রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটারদের। বিসিসিআইয়ের এক সদস্য বলেছেন, 'লাল বলের তুলনায় গোলাপি বল অনেক বেশি স্কিড করে। ব্যাটসম্যানদের মানসিক প্রস্তুতি থাকে যে, পিচে পড়ার পর কত দ্রুত বল ব্যাটে আসবে। কিন্তু গোলাপি বলের ক্ষেত্রে সেই হিসেব খাটে না। আপত্তির এটা সব থেকে বড় কারণ।' উল্লেখ্য আমেদাবাদের তৃতীয় টেস্টের পর গোলাপি বলের এই সমস্যার কথা শোনা গেছিল রোহিত শর্মা এবং অক্ষর পটেলের মুখে।

বন্ধ করুন